যে ৭ কারণে আপনার সম্পত্তির নিরাপত্তায় এক্সেস কন্ট্রোল সিস্টেম ব্যবহার করবেন

0
46

আমার মনে আছে,অফিসের জন্য একটি এক্সেস কন্ট্রোল সিস্টেম ইনস্টল করার আগের সময়টা কি পরিমাণ ঝামেলাকর ছিল। অফিসের দরজা খুলতে কর্মীরা ম্যানেজারের জন্য সামনের দরজায় অপেক্ষা করতো, এমনকি কনকনে ঠান্ডা তাপমাত্রার মধ্যেও। অন্যদিকে মূলকর্মীকে অফিসে থাকতে হতো না হয় ফিরে আসতে হতো, যাতেকেয়ারটেইকার অফিস পরিষ্কার করতে পারে। সকল কর্মীদের বিদায় নেওয়া পর্যন্ত ম্যানেজারদের থেকে যেতে হতো, যাতে তারা দরজাটি বন্ধ করে দিতে পারে।

এমনই ছিল আমাদেরপুরনো দিনগুলি।  বর্তমানে আমরা আমাদের এক্সেস কন্ট্রোল সিস্টেম নিয়ে খুবই সন্তুষ্ট। আমরা শুধুমাত্র নিজেদের জন্য একসেস কন্ট্রোল সিস্টেম ইন্সটল করিনি, বরং আমাদের অনেক ক্লায়েন্টদের একসেস কন্ট্রোলের সুবিধাগুলো গ্রহন ও উপভোগ করতে দেখছি। তারা খেয়াল করছে, তাদের কাজগুলো কতটা দক্ষ হয়ে উঠেছে। এর একটি দারুন উদাহরন হলো, ১২ টি দরজাবিশিষ্ট একটি মিশ্র বানিজ্যিক ভবন। একসেস কন্ট্রোল সিস্টেমের মাধ্যমে তারা খুব সহজেই জনসাধারন ও বাসিন্দাদের জন্য দরজাগুলো, এমনকি নির্দিষ্ট মেঝেগুলোতে লিফটের প্রবেশাধিকারও নিয়ন্ত্রন করে থাকে।

আপনি যদি একজন সম্পত্তি ব্যবস্থাপক,বাড়ির মালিক, বোর্ড সদস্য কিংবা একজন সংশ্লিষ্ট ইউনিট মালিক হয়ে থাকেন, তাহলে একসেস কন্ট্রোল সিস্টেমে আপনি এমন কিছু উপায় পাবেন যা আপনার জীবনকে আরো সহজতর করে তুলবে।

যে ৭ কারণে আপনার সম্পত্তির নিরাপত্তায় এক্সেস কন্ট্রোল সিস্টেম ব্যবহার করবেন
সেরা ৭টি কারন – কেন আপনার সম্পত্তির প্রয়োজন এক্সেস কন্ট্রোল সিস্টেমঃ

 

১। কষ্টসাধ্য নকল! (নকল করা কঠিন)

আকৃতিভিত্তিক চাবি খুব সহজেই নকল করা যায়, কিন্তু ইলেক্ট্রনিক চাবি নকলখুবই উচু মাত্রার ছলচাতুরী করতে প্রয়োজন। এটা আপনার একসেস সিস্টেমকেআরোঅনেক বেশি নিরাপদ করে তোলে,যা সাধারন চাবির দ্বারা একবারেই সম্ভব নয়।

২। তালা অপরিবর্তিত! (তালা কখনোই পরিবর্তন করবেন না)

হারানো বা চুরি হওয়া চাবি প্রায় সর্বদাই আপনার স্বাভাবিক নিরাপত্তা ব্যবস্থায় ফাটল সৃষ্টি করে; অন্যদিকে প্যাডলক প্রতিস্থাপন হতে পারে ব্যয়বহুল ও ঝামেলাকর। ইলেকট্রনিক একসেস কন্ট্রোল সফটওয়্যারে কখনোই আপনার সাইটের তালাগুলো পরিবর্তন করতে হয় না।যদি একটি কী-কার্ড বা চাবির রিং কখনো হারিয়ে যায় তবে ডাটাবেইজ থেকে তা বাদ দিয়ে একটি নতুন কী ইস্যু করা যায়। যদি কোন তত্ত্বাবধায়ক বা বিল্ডিঙের রক্ষনাবেক্ষনকারী ব্যক্তি চাকরীচ্যুত হয়, কয়েক সেকেন্ডের মধ্যেইতার প্রবেশাধিকার বাতিল করা যাবে। এটা দারুনভাবে আপনার সামগ্রিক ঝুঁকি ও চুরির সুপ্ত-সম্ভাবনাগুলো কমিয়ে আনতে সক্ষম।

 

৩। একটি চাবিই যথেষ্ট (একটি চাবি। ব্যস।)

ইলেকট্রনিক এন্ট্রিতে আপনি একটি মাত্র চাবি অথবা কোড দিয়েই আপনার অনুমতিপ্রাপ্ত প্রতিটি দরজায় প্রবেশ করতে পারবেন, ফলেএতে কোন একটি দরজার চাবি ভুলক্রমে ফেলে আসার সুযোগই নেই।

 

৪। পূর্বে কি ঘটেছে জানুন (ইতিহাস জানুন)

পরবর্তী পর্যালোচনার জন্যএকসেস কন্ট্রোলের মাধ্যমে আপনার সাইটে প্রতিটি প্রবেশ সংরক্ষিত হয়।আভ্যন্তরীনভাবে কারিগরি গতিবিধি অথবা প্রতিক্রিয়া সময়কাল চিহ্নিতকরন কিংবা ভাংচুর ও চুরির তদন্তে এটি হতে পারে আপনার অমূল্য হাতিয়ার।

 

৫। প্রকল্পের চাহিদানুযায়ী নির্ধারণযোগ্য (যেকোন প্রকল্প, নির্ধারণযোগ্য)

ইলেকট্রনিক একসেস কন্ট্রোল আপনাকে বিভিন্ন দরজা ও সময়ভেদে ব্যবহারকারীদের প্রবেশাধিকার স্তরনির্ধারণ করার সক্ষমতা প্রদান করে। এটি প্রয়োজনের অতিরিক্ত অঞ্চলে প্রবেশাধিকার অগ্রাহ্য করে আপনার সম্ভাব্য ঝুঁকির মাত্রা সংকুচিত রাখে। একসেস কন্ট্রোলের সফটওয়্যারকে পরিবর্তনের মাধ্যমে লিফট সহ যেকোন আকারের উন্নয়ন প্রকল্পকে সেবার আওতায় আনা যায়।

 

৬। প্রবেশাধিকার প্রদান

বন্ধ রাখা অঞ্চলে কোন যন্ত্রবিদ বা বাইরের কর্মী প্রবেশের প্রয়োজনে দূরবর্তী অবস্থান থেকে অনুমোদিত অপারেটর/ম্যানেজার সেই দরজা খুলতে পারবেন। এটি নিরাপত্তা ও নমনীয়তার একটি অতিরিক্ত মাত্রা প্রদান করে, কারণ এখানে আপনি নিশ্চিতভাবেই জানবেন কারা আপনার সাইটে প্রবেশ করছে।সমবেত নিরাপত্তা ক্যামেরাগুলো আপনাকেবাস্তবেই সত্যিকারের কর্মী কিংবা আপনি ভুল ব্যক্তিকে প্রবেশাধিকার দিচ্ছেন কিনাতা দেখার সুযোগ করে দেবে।

৭। দ্রুততর, অধিক নিরাপদ ও কম চাবি

তালা-চাবি ব্যবহারের চেয়ে একসেস কন্ট্রোল অধিক নিরাপদ ও দ্রুততর। সঠিক চাবিটি খুঁজে বের করতেআপনাকে আরচাবির রিং এর দিকে তাকাতে হবে না।অথবাআপনাকে চাবির স্তুপাকৃতির রিং বহন করে পকেট কিংবা ব্রিফকেইসের জায়গা নষ্ট করতে হবে না। আপনি যদি বিভিন্ন সম্পত্তির মালিক হন, আপনাকে আর কখনোই চাবি হারানোর দুশ্চিন্তায় ভুগবেন না! আজকের দুনিয়ায় জীবনটাকে যথাসম্ভব নিরাপদ করতে প্রয়োজন কয়েক স্তরের সুরক্ষা। একাধিক মালিকানার বহুতল এপার্টমেন্ট ভবনগুলোয় চোর-ডাকাত ও অন্যান্য অপরাধীদের জন্য নানাবিধ দুষ্কর্মের সুবর্ণ সুযোগরয়েছে। এমন প্রতিটি ক্ষেত্রে একজন এপার্টমেন্ট ভাড়াটিয়া হয় অনাকাঙ্ক্ষিত দুর্ঘটনার শিকার।এজন্য অপরাধীর প্রবেশ রুখতে এই কাঠামোগুলো অবশ্যই ভালোমানের নিরাপত্তা নজরদারি, অ্যালার্ম পর্যবেক্ষণ এবং একসেস কন্ট্রোল সিস্টেম দ্বারা সজ্জিত হওয়া প্রয়োজন।

মানুষ যেহেতু অলস হয়ে থাকে তাই অপরাধীরাও তার ব্যতিক্রম নয়। তারা নিরাপত্তা স্তরগুলো উন্মোচন করার জন্য যন্ত্রণা পোহাতে পছন্দ করে না। কিন্তু একই সময়ে এই সিস্টেমগুলোকে অবশ্যই ভবনের কর্মী ও বাসিন্দাদের জন্য ব্যবহার বান্ধব হতে হবে। যখন ক্লায়েন্টরা আমাদের কাছে এসে তাদের সম্পত্তির নিরাপত্তা সম্পর্কে উদ্বেগ প্রকাশ করে,তখন আমরা তাদের বাসিন্দা ও ভাড়াটিয়াদের নিরাপদ রাখার জন্য শ্রেষ্ঠ সমাধান প্রদান করে থাকি। সম্পত্তির চাহিদানুযায়ী প্রকল্প স্বনির্ধারণ এবং তাদের উদ্বেগের সমাধান নিশ্চিতকরণই আমাদের অগ্রাধিকার।একজন সম্পদ ব্যবস্থাপক বা ভবন মালিক তখনই আর্দশ বলে বিবেচিত হবেন যখন তিনি অধিবাসী, ভাড়াটিয়া এবং কর্মীদের নিরাপত্তা পূর্ণাঙ্গরূপে নিশ্চিত করতে সক্ষম হবেন। আপনার সম্পত্তির প্রতিটি ঘের আচ্ছাদন ও সুরক্ষা স্তরের প্রতি যথাযথ পদক্ষেপ আপনাকে একটি শান্তিপূর্ণ জীবন দানের পাশাপাশি আপনার সম্পত্তি এবং ভাড়াটিয়াদেরকে রাখবে সুরক্ষিত ও নিরাপদ।