ফোনের চার্জ স্থায়ী হবে ৪০০ গুণ বেশি  FavoriteLoadingবুকমার্ক

স্মার্টফোনে আজকাল কত রকমের কাজ করা যায়, তার ইয়ত্তা নেই। কিন্তু ব্যাটারির চার্জ ফুরিয়ে গেলে সবই অকেজো। বিড়ম্বনা এড়াতে তাই অনেকে বাড়তি ব্যাটারি বা পাওয়ার ব্যাংক সঙ্গে রাখেন। কিন্তু ব্যাটারির চার্জের স্থায়িত্ব আরও বাড়াতে পারলে এসব ঝামেলাই তো থাকবে না। আর সেই লক্ষ্যে বিজ্ঞানীদের চেষ্টার কমতি নেই।
যুক্তরাষ্ট্রের একদল গবেষক এমন একটি ব্যাটারি তৈরি করেছেন, যাতে চার্জ থাকবে সাধারণ স্মার্টফোনের ব্যাটারির চেয়ে ৪০০ গুণ বেশি। আর এটি ট্যাব, কম্পিউটার থেকে শুরু করে মোটরগাড়ি ও মহাকাশযানেও ব্যবহার করা যাবে। তা ছাড়া যন্ত্রের আয়ু বাড়াতেও সহায়ক হবে এই ব্যাটারি। এমনিতে স্মার্টফোনসহ অন্যান্য যন্ত্র কয়েক বছরেই ব্যবহারের অনুপযোগী হয়ে পড়ে।
ক্যালিফোর্নিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে (আরভাইন) ওই ব্যাটারির ডিজাইন করা হয়। এটি একটি ম্যাঙ্গানিজ-ডাই অক্সাইডের খোলকে সোনার অতি সূক্ষ্ম (ন্যানোওয়্যার) প্রলেপ দিয়ে তৈরি।

index ফোনের চার্জ স্থায়ী হবে ৪০০ গুণ বেশি

এতে আরও আছে বিশেষ ধরনের তড়িৎবিশ্লেষ্য বা ইলেকট্রোলাইট। ন্যানোওয়্যারগুলো মানুষের চুলের চেয়ে কয়েক হাজার গুণ সরু। এদের বিদ্যুৎ পরিবাহিতা অনেক বেশি। অবশ্য ব্যাটারিতে এসবের ব্যবহার নতুন নয়। স্মার্টফোনে ব্যবহৃত প্রচলিত লিথিয়াম-আয়ন ব্যাটারিগুলোও ন্যানোওয়্যারে তৈরি। তবে সেগুলো দুর্বল এবং বহুবার চার্জ দেওয়ার পর একপর্যায়ে অকেজো হয়ে যায়। নতুন ব্যাটারিটিতে বিজ্ঞানীরা ন্যানোওয়্যারের ওই ভঙ্গুর দশা রোধ করতে পেরেছেন। পরীক্ষাগারে এটি তিন মাসে দুই লাখ বার চার্জ দেওয়ার পরও সক্রিয় রয়েছে। এটির চার্জ ধারণক্ষমতা একটুও কমেনি। অথচ বাজারে প্রচলিত সাধারণ স্মার্টফোনের ব্যাটারি সাধারণত সাত হাজারবার চার্জ দেওয়ার পর নষ্ট হয়ে যায়।
গবেষক দলটির প্রধান মইয়া লে থাই বলেন, ন্যানোওয়্যারভিত্তিক ব্যাটারির ইলেকট্রোড দীর্ঘস্থায়ী হয়ে থাকে বলে তাঁরা প্রমাণ পেয়েছেন। ভবিষ্যতে লিয়িয়াম-আয়ন ব্যাটারির জায়গা নেবে নতুন প্রযুক্তির এই ব্যাটারি। আর প্রচলিত ব্যাটারিগুলোর আয়ু বাড়াতে কিছু বিষয় খেয়াল রাখলে কাজ হয়। যেমন: ৩০ ডিগ্রি সেলসিয়াসের বেশি তাপমাত্রা আছে—এমন জায়গায় স্মার্টফোন রাখতে নেই। আর চার্জের পরিমাণ একেবারে শূন্যে না নামিয়ে ৫০ শতাংশে নেমে গেলেই নতুন করে চার্জ দেওয়া ভালো। ফোনের ব্লুটুথ ও ক্যামেরার ফ্ল্যাশ বন্ধ রাখলেও ব্যাটারি বেশি দিন ভালো থাকে।

এই জাতীয় আরো টিউন

আপনিও লিখুন মতামতের উত্তর

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

11 + 8 =