কেমন ছিলেন স্টিভ জবস ?

0
264

অ্যাপলের সহপ্রতিষ্ঠাতা ও সাবেক প্রধান নির্বাহী স্টিভ জবস পরিচিত ছিলেন রাগি বস হিসেবে। কোনো কিছু পছন্দ না হলে সেটা কর্মীদের মুখের ওপরই বলে দিতেন। সে কারণে জবসকে নিয়ে ভয়ে থাকতেন অ্যাপলের অনেক কর্মীই। স্টিভ জবসকে নিয়ে নির্মিত বিভিন্ন চলচ্চিত্রেও তাঁকে বদমেজাজি হিসেবে তুলে ধরা হয়েছে। জবসকে নিয়ে লেখা এক প্রতিবেদনে ব্যক্তি স্টিভ জবসের অচেনা দিকটিই তুলে ধরেছে প্রযুক্তি ও বাণিজ্যবিষয়ক ওয়েবসাইট বিজনেস ইনসাইডার।

index কেমন ছিলেন স্টিভ জবস ?

তবে অ্যাপলের সাবেক প্রধান নির্বাহী জন স্কালি এ নিয়ে ভিন্ন মত পোষণ করেছেন। স্কালি বলেন, ‘জবসকে সব জায়গাতেই বদমেজাজি হিসেবে দেখানো হয়েছে। কিন্তু তার আবেগি দিকটা সব সময় আড়ালেই থেকে গেছে। জবসকে কর্মীরা যেমন ভয় পেত, তেমনি তিনি খুব জনপ্রিয়ও ছিলেন কর্মীদের মধ্যে।’

স্টিভ জবসের জীবনী লেখক ওয়াল্টার আইজ্যাকসনও বিভিন্নভাবে এ কথাটি তুলে ধরেছেন। স্টিভের বোন মোন সিম্পসন আইজ্যাকসনকে বলেছিলেন, ‘সে ছিল খুবই আবেগি একজন মানুষ।’

অ্যাপলের সাবেক চিফ ডিজাইন অফিসার জোনাথন ইভ বলেছিলেন, ‘সে ছিল খুবই সংবেদনশীল একজন মানুষ।’

জবসের স্বভাব সম্পর্কে বলতে গিয়ে স্কালি বলেন, ‘জবস পাগলের মতো কাজ করত। এবং সে যে স্বপ্ন দেখত সেটা সত্যি করার জন্য দিনরাত পরিশ্রম করত। নিজের ব্যক্তিগত জীবনকে অবহেলা করে কাজের পেছনেই সবচেয়ে বেশি সময় ব্যয় করত সে। কারণ সে এমন সব প্রযুক্তিপণ্য তৈরি করতে চাইত, যা মানুষ ভালোবাসবে।’

স্কালি আরো বলেন, ‘এ কারণেই জবসের তৈরি পণ্য মানুষ ভালোবাসত এবং সেগুলো পৃথিবীকে বদলে দিতে পেরেছে।’

স্কালি জানিয়েছেন,  জবস নাকি কাঁদতেনও। একথা নিজেই স্কালিকে বলেছিলেন জবস। কাজের সুবাদে স্টিভ জবসের ঘনিষ্ঠ ছিলেন তিনি। স্কালিকে জবস বলেছিলেন, ‘আমি যখন পবিত্র কোনো কিছুর মধ্যে নিজেকে খুঁজে পাই, সেটা ভালোবাসা হোক কিংবা আত্মার শুদ্ধির জন্য, আমি সব সময় কেঁদে ফেলি।’

LEAVE A REPLY

four − 3 =