অ্যান্ড্রয়েডের অতিরিক্ত নেট ব্যবহার বন্ধ করে দিন  FavoriteLoadingবুকমার্ক

অ্যান্ড্রয়েড ফোনের একটি দিক নিয়ে আমরা সবাই সমস্যায় ভুগে থাকি, সেটি হলো অতিরিক্ত ইন্টারনেট ডেটা ব্যবহার। আপনি অপ্রয়োজনীয় অ্যাপ্লিকেশনগুলো বন্ধ করে রাখলেও দেখবেন ১০-২০ দিনেই আপনার ৫০০-১০০০ মেগাবাইট ডাটা খরচ হয়ে গেছে! ডাটা ব্যবহারই নয়, ডাটা খরচ হতে থাকার কারণে অনেকেই আমরা ব্যাটারি ব্যাকআপ অনেক কম পাই, যার কারণে আমাদের সারাদিন ফোন চার্জে দিয়ে রাখতে হয়। লিমিটেড ইন্টারনেট ব্যবহারকারীদের জন্য এটি আসলেই একটি মহাসমস্যার ব্যাপার। কিন্তু আপনি যদি অ্যান্ড্রয়েডের এই ইন্টারনেট ব্যবহারের লাগাম টেনে ধরতে চান, তাহলে আপনি ব্যবহার করতে পারেন ড্রয়েডওয়াল নামের দারুণ এই অ্যাপ্লিকেশন।

droidwall অ্যান্ড্রয়েডের অতিরিক্ত নেট ব্যবহার বন্ধ করে দিন

ড্রয়েডওয়াল হচ্ছে আন্ড্রয়েডের জন্য একটি ফায়ারওয়াল সফটওয়্যার। আরও অন্যান্য ফায়ারওয়াল থাকলেও এটি সবচেয়ে ছোট বলে ব্যবহার সহজ। একবার সেট করে পরে আর না চালালেও চলবে এবং এটি অযথা র‍্যাম দখল করবে না। আবার চাইলে এক ক্লিকে ফায়ারওয়াল বন্ধ করেও দেয়া যাবে। ড্রয়েডওয়াল ব্যবহারের পর আমি ১৫ মেগাবাইট ডাটা খরচ করে প্রায় ১ দিন ব্রাউজ এবং চ্যাট করেছি।

ড্রয়েডওয়াল যেভাবে ব্যবহার করবেন

গুগল প্লে স্টোর লিংকঃ ড্রয়েড ওয়াল 

প্রথমেই বলে নেই, আপনার ফোন রুটেড হতে হবে। আর কিছু কিছু ফোনে কাজ নাও করতে পারে, কিন্তু বেশিরভাগ ফোনেই এটি বেশ ভালোভাবেই কাজ করে। এটি আকারে মাত্র ৩০০ কিলোবাইট। তাই আপনার ডিভাইস রুট করা থাকলে ও লিমিটেড ইন্টারনেট ব্যবহারকারী হলো অ্যাপ্লিকেশনটি ব্যবহার করে উপকৃত হবেন আশা করা যায়।

ড্রয়েডওয়াল ব্যবহার করতে প্রথমে অ্যাপ্লিকেশনটি ইন্সটল করুন। ইন্সটল শেষ হলে ওপেন করুন।

এবার মেনু চেপে ফায়ারওয়াল ডিজেবল্ডে ক্লিক করুন। সুপারইউজার রিকুয়েস্ট আসবে।

সুপারইউজার রিকোয়েস্ট অ্যালাউ করুন।

কাজ হয়ে গেলে এবার আপনি যেসব অ্যাপ্লিকেশনে ডাটা ব্যবহার করতে চান সেগুলোর সামনের বক্সগুলোতে টিক দিন।

এবার মেনু চেপে অ্যাপ্লাই রুলস-এ চাপুন। ব্যস হয়ে গেল! এরপর থেকে আপনার টিক দেয়া অ্যাপ্লিকেশনগুলো ছাড়া আর কোনও অ্যাপ ডাটা.ব্যবহার করতে পারবে না। আপনি চাইলে পরে অন্যান্য অ্যাপ্লিকেশনকেও টিক বা আনটিক করে অ্যাপ্লাই রুলস দিয়ে ডাটা এনাবল ডিজেবল করতে পারবেন। ফায়ারওয়াল বন্ধ করতে মেনু থেকে ফায়ারওয়াল এনাবল্ডে ক্লিক করুন, ফায়ারওয়াল বন্ধ হয়ে যাবে।

আসা করি এর পর আর যাই হোক, আপনার অযথা ডাটা খরচের চিন্তা আর করতে হবে না। খরচ এবং ব্যাটারি লাইফ, দুটোই সাশ্রয় হবে। আপনার ড্রয়েডওয়াল ব্যবহারের অভিজ্ঞতা জানাতে ভুলবেন না যেন।

এই জাতীয় আরো টিউন

1 মতামত

  1. রেজাউল হক

    টিক দিবার পর এ্যাপস টা কি চাল রাখতে হবে। কারন এ্যাপস টা অফ করলে সব ঠিক উঠে যায়। আর তাই যদি হয় তবে বার বার টিক দিতে হবে ফোন অন করার পর।

    মতামতের উত্তর

আপনিও লিখুন মতামতের উত্তর

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

18 + twenty =