এ যুগের কিছু প্রাচীন জিনিস!

0
150

বর্তমান সময়ে সেলফি শব্দটির নাম শোনেনি এমন মানুষ খুব কমই খুঁজে পাওয়া যাবে। প্রতিনিয়ত যেন অনেকটা বেশি করেই এই ছোট্ট জিনিসটির সাথে অভ্যস্ত হয়ে পড়ছি আমরা। কথাগুলো শুনে একটা দীর্ঘশ্বাস ফেলে হয়তো বলতেই পারেন- এ সবই তো এই যুগের তৈরি! কিন্তু আপনি কি জানেন যে সেলফি জিনিসটি মোটেও বর্তমান সময়ের সৃষ্টি নয়? বরং আরো অনেক আগে থেকেই সেলফি তুলতে পারদর্শী ছিল মানুষ। আর শুধু সেলফিই নয়, বর্তমান যুগে এমন অনেক নিত্য-নতুন জিনিসের সাথে পরিচিত হয়েছি এবং হচ্ছি আমরা যেগুলো মোটেও নতুন কিছু নয়। যেগুলোর প্রচলন ছিল প্রাচীন কালেও। চলুন দেখে আসি সেসব নতুন বোতলে ভরা পুরোন মদের মতন বারবার ঘুরেফিরে চলে আসা ব্যাপারগুলোকে।

CassieCastellaw_SelfieOnAStick-107RET এ যুগের কিছু প্রাচীন জিনিস!

১. সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম বর্তমান সময়ে সবার জন্যই খুব প্রয়োজনীয় ও দৈনন্দিন জীবনের সাথে অঙ্গাঙ্গিভাবে জড়িয়ে থাকা একটি ব্যাপার। তবে শুনলে অবাক হবেন যে, এই সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম জিনিসটা কিন্তু এ যুগের নয়, বরং অনেক আগে, রোমানদের ভেতরেও ছিল ঠিক এমনই এক সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমের চল। দ্যা ইকনোমিস্টের সবেক ডিজিটাল সম্পাদক টম স্ট্যান্ডেজ তার বই রাইটিং ইন ওয়াল: সোশ্যাল মিডিয়াতে জানান যে, এক বা দুই নয়, বরং প্রথম ২০০০ বছরের ভেতরেই রোমানরা বর্তমান ফেসবুকের সমতুল্য কিছু একটা তৈরি করে ফেলেছিল। বেশকিছু প্রত্নতাত্মিক গবেষণার পর বিশেষজ্ঞরা এমন কিছু লেখাযুক্ত দেয়াল খুঁজে পান যেগুলোর প্রতিটি পাশে লেখায় পূর্ণ ছিল। যেটা অনেকটা আমাদের বর্তমান যুগের ফেসবুকের পোস্ট দেওয়া আর তার উত্তরে কমেন্ট করার মতন। এই যেমন- কেউ একজন লিখে গিয়েছে যে সে একজন মেয়েকে ভালোবাসে। তার উত্তরে সেই মেয়ে, তার বন্ধুরা এবং আরো অনেকেই কথা চালিয়ে গিয়েছে। পাল্টা উত্তর দিয়েছে প্রথমজনাও। শুধু তাই নয়, সেসময় বর্তমান লাফ আউট লাউড বা লোলের মতন অনেক ছোটখাটো ইঙ্গিতবহ শব্দও ব্যবহার করত তারা।

২. সেলফি

বর্তমান সময়ে সেলফি নিয়ে অতিরিক্ত মাতামাতিতে যাদের অনেকেই বেশ হতাশ তাদেরকেই বলছি, সেলফি জিনিসটা কিন্তু মোটেও এখনকার আবিষ্কার নয়। মূলত যতদিন ধরে ক্যামেরা আবিষ্কার হয়েছে ততদিন থেকেই সেলফিরও আবিষ্কার হয়েছে। তবে সেসময় অবশ্য আয়নার ভেতরেই নিজের ছবি তুলতে ভালোবাসতেন সবাই। এছাড়াও ক্যামেরারসাথে হাত লাগিয়ে সেলফি ভঙ্গীতেও ছবি তুলতেন অনেকে!

৩. রূপকথা

এটা তো সবাইই জানে যে এখনকার ডিজনির রূকথার চরিত্র ও গল্পগুলো মূলত অনেক আগের। এই যেমন- রুপানজেল নেওয়া হয়েছে গ্রীম ভাইয়েদের কাছ থেকে কিংবা ফ্রোজেন লিখেছিল হ্যান্স ক্রিস্টিয়ান অ্যান্ডারসন। কিন্তু এসব তথ্য জানলেও আপনি কি জানেন যে আসলে কিছু বিখ্যাত রূপকথা এমন রয়েছে যেগুলোর বয়স আমাদের ধারণারও অনেক বাইরে। প্রায় ৫,০০০ বছর! সম্প্রতি অনেক গবেষণার পর এ বিষয়ে বিশেষজ্ঞরা জানতে পারেন যে বর্তমান যুগের এমন কিছু বিখ্যাত রূপকথা রয়েছে যেমন- জ্যাক আর শিম গাছ, যার বয়স কিনা ৫,০০০ বছর। এছাড়াও বিউটি এন্ড দ্যা বিস্ট ১,০০০ বছর আগের এবং স্মিথ এন্ড ডেভিল নামক রূপকথাটিকে ব্রোঞ্জ আমলেও রূপকথা বলে শণাক্ত করেছেন তারা।

একটি উত্তর ত্যাগ