অনলাইনে আশানুরুপ আয়ের পথে বাধা ও তা দূর করার উপায়  FavoriteLoadingবুকমার্ক

অনেক experience এবং কাজের দক্ষতা থাকার পরও আপনি অনলাইনে আয় করতে ব্যর্থ?

আমরা অনেকেই জানি যে, অনলাইনে কাজ করে মাসে 10k, 20k, 50k পর্যন্ত আয় করা যায়। অনেক বড় উদ্যোক্তা আছেন যাদের মাসিক আয় ১ লাখ ডলারেরও বেশী। আমাদের দেশে অনেকেই ভাল আয় করছেন কিন্তু এর সংখ্যা খুবই কম। আমাদের দেশে যে পরিমাণ মানুষ অনলাইন সেক্টরে কাজ করে সে অনুযায়ী ওয়েব উদ্যোক্তার সংখ্যা খুবই কম। আমরা যদি উন্নত দেশ গুলোর দিকে তাকাই তাহলে দেখা যাবে যে আমাদের আয় সে তুলনায় অনেক কম। এমনকি ইন্ডিয়া এবং ফিলিপাইন এর মত দেশ আমাদের থেকে অনেক এগিয়ে। এক্ষেএে আমরা বলতে পারি যে, আমাদের দেশে সফল ওয়েব উদ্যোক্তার সংখ্যা অনেক কম।

index অনলাইনে আশানুরুপ আয়ের পথে বাধা ও তা দূর করার উপায়

অনেকেই অনেক কিছু জানার পরও আয় করতে পারছেন না বা ভাল আয় করতে পারছেন না। তাদের জন্য আমরা আয়োজন করেছি একটি বিশেষ ফ্রি সেমিনার। যার মাধ্যমে আমরা চেষ্টা করবো আপনার সমস্যা চিহিৃত করে তার সঠিক সমাধান দেয়ার।

 

কি কি সমস্যার কারণে আপনি অনলাইনে ব্যর্থ হয়েছেন?

১. সঠিক ধারণা না থাকা (মাইন্ড সেটাপ): অনেকেই মনে করেন যে অল্প কিছুদিনের মধ্যে অনেক আয় করবে এবং রাতারাতি বড়লোক হবে কিন্তু বাস্তবে কাজ করতে গিয়ে সফল হয় না। অল্প দিনেই মিলিওনিয়ার হওয়ার চিন্তা থেকে অনেকেই ব্যর্থ হন। দেখা গেছে অল্প কিছুদিন চেষ্টা করে কাজ করা ছেড়ে দেন।

২. গবেষণায় লেগে থাকা: এই স্তরে অনেকেই আটকে থাকেন। দেখা গেছে অনলাইনে এফিলিয়েট নিয়ে কিছুদিন কাজ করার গবেষণা করেন কিন্তু বাস্তবে কাজ শুরু করেন না যার কারণে অনেকেই ব্যর্থ হন। আবার দেখা গেছে কাজ শুরু করার জন্য আজকে-কালকে শুরু করবে ভেবে আর কাজ শুরু হয় না।

৩. নিজেকে সব বিষয়ে Expert হতে হবে: সবকিছুই নিজের জানতে হবে এমন ধারণা পোষণ করা। আপনি সব বিষয়ে Expert হবেন এটা চিন্তা করা ঠিক না। আপনার যে বিষয়ে অভিজ্ঞতা নেই সে বিষয়ে আপনি expert আউটসোর্স করতে পারেন। নিজেকে সব বিষয়ে Expert হতে হবে এটা ভুল ধারণা।

৪. প্রজেক্ট সম্পর্কে পরিপূর্ণ গাইড লাইন ও সাথে ওয়ার্কিং প্ল্যান না থাকা : আপনি যে কাজ করবেন তার সঠিক ও সুনির্দিষ্ট গাইড-লাইন এবং রূপরেখা থাকতে হবে। আপনি কবে কি কাজ করবেন এবং কোন কাজ আউটসোর্সিং করবেন তার সঠিক গাইড লাইন থাকতে হবে। আপনার প্রজেক্ট শুরু করতে কত খরচ হবে এবং কত দিন লাগবে আপনার ইনকামে যেতে সে বিষয়ে পরিপূর্ণ ধারণা থাকা।

৫. সফল ফ্রিল্যান্সার থেকে সাপোর্ট না নেয়া: আপনি একজন ভাল মেন্টর থেকে আপনার গাইড লাইন নিতে পারেন। আপনি যে কোন প্রজেক্ট শুরু করার আগে মেন্টর এর সাথে আলাপ করে নিবেন এবং প্রজেক্টের ফলোআপ নিতে পারেন।

৬. বারবার সিদ্ধান্ত পরিবর্তন: আপনার প্ল্যানিং প্রতিনিয়ত পরিবর্তন করছেন। দেখা গেছে যে, একটি নির্দিষ্ট ম্যাথডে কাজ করে আপনার সফলতা আসার আগেই আপনি নতুন পদ্ধতিতে কাজ শুরু করলেন। সব কাজই অল্প অল্প করে চেষ্টা করে দেখা এবং বারবার সিদ্ধান্ত পরিবর্তন করা একটি বড় সমস্যা।

৭. প্রজেক্ট ব্যর্থ হলে ব্যর্থতার কারণ নিয়ে গবেষণা না করা: আপনি সবকাজে ব্যর্থ হবেন তা কিন্তু সঠিক না। আপনি ব্যর্থ হতে পারেন কিন্তু কি কি কারণে আপনি ব্যর্থ হয়েছেন তা চিহিৃত করে তার সমাধান করবেন। পরবর্তী প্রজেক্টে যেন আগের প্রজেক্টের ভুলগুলো না হয় সেদিকে লক্ষ্য রাখতে হবে।

৮. প্রোডাক্টিভিটি না থাকা: আপনি হয়ত সারাদিন অনলাইনে সময় কাটান কিন্তু দিন শেষে দেখেন কাজের কাজ তেমন কিছুই হয়নি। আপনি নিজেকে নির্দিষ্ট কোন কাজে ফোকাস রাখতে ব্যর্থ হন, হারিয়ে যান ফেইসবুক, মুভি দেখা বা অন্য কোন নন প্রোডাক্টিভ কাজে।

আপনি বা আমি আমরা সকলেই কম বেশী এই সমস্যাগুলোতে আক্রান্ত। এ থেকে উত্তরণের উপায় বের করে দিতে পারেন একজন সফল মেন্টর যিনি এই সমস্যাগুলো পাড়ি দিয়ে নিজেকে সফল ওয়েব উদ্যোক্তা হিসাবে প্রতিষ্ঠিত করতে পেরেছেন।

আপনারা জেনে খুশি হবেন বাংলাদেশের অনলাইন মার্কেটারদের কথা চিন্তা করে Softnet BD এমনই একটি ব্যাতিক্রমধর্মী সেমিনারের আয়োজন করতে যাচ্ছে যেখানে আপনাদের সমস্যা গুলোর বাস্তব সম্মত সমাধান করতে হাজির হবেন ইন্টারন্যাশনাল মার্কেটে দীর্ঘ ৮ বছর সফলতার সাথে কাজ করার অভিজ্ঞতা সম্পন্ন একজন online গুরু যার নাম মো: নাসিমুল কবির সেলিম

ফ্রি ইভেন্টে অংশগ্রহন করতে রেজিষ্ট্রেশন করুন।

http://bit.ly/19bj5Iq

ফ্রি ইভেন্টে অংশগ্রহন করতে রেজিষ্ট্রেশন করুন।

http://bit.ly/19bj5Iq

এই জাতীয় আরো টিউন

আপনিও লিখুন মতামতের উত্তর

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

20 − sixteen =