সেরা কিছু স্ক্যানিং অ্যাপ স্মার্টফোনের জন্য

0
182
আমাদের অনেক সময়ই হঠাত করেই বলা চলে বিভিন্ন রকমের ডকুমেন্ট স্ক্যান করার প্রয়োজন হয় এবং অনেক ক্ষেত্রেই স্ক্যানার হাতের কাছে থাকেনা। তবে প্রযুক্তির এই যুগে আপনার হাতের স্মার্টফোনটিই কিন্তু আপনার প্রায় যে কোন ডকুমেন্টই চমৎকার ভাবে স্ক্যান করতে সক্ষম। এর জন্য অবশ্য ধন্যবাদটি আপনার স্মার্টফোনের শক্তিশালী ক্যামেরা ইউনিটকেই দেয়া প্রয়োজন কেননা আলটিমেটলি সেই ক্যামেরা ইউনিটের জন্যেই কিন্তু মোটামুটি ঝামেলার এই কাজটি বেশ সহজ হয়ে দাঁড়িয়েছে। যাই হোক, আজকে আমি স্মার্টফোনের জন্য সেরা কিছু স্ক্যানিং অ্যাপলিকেশন আপনাদের সাথে শেয়ার করব যেগুলো আপনার স্মার্টফোনে ডকুমেন্ট স্ক্যান করার প্রক্রিয়া আরও সহজ করবে। চলুন তাহলে, শুরু করা যাক।
index সেরা কিছু স্ক্যানিং অ্যাপ স্মার্টফোনের জন্য
Google Drive 

আপনার জানা আছে কিনা জানি না তবে না জেনে থাকলে অবশ্যই অবাক হবেন জেনে যে গুগল ড্রাইভ অ্যাপলিকেশনটির মধ্যেও রয়েছে ডকুমেন্ট স্ক্যান করার সুবিধা এবং শুধু যে এর মাধ্যমে স্ক্যানই করা যাবে তাই কিন্তু নয় বরং এর মধ্যে রয়েছে অপটিক্যাল ক্যারেকটার রিকগনাইজেশন বা সংক্ষেপে ‘ওসিআর’ সুবিধা যার ফলে আপনি একটি ডকুমেন্ট স্ক্যান করার পর সেখান থেকে চাইলে সেই ইমেজ ফাইলগুলোই ওয়ার্ড ডকুমেন্টে কনভার্ট করে ব্যাবহার করতে পারবেন।

Google Drive শুধু অ্যান্ড্রয়েডেই নয় বরং আইওএস অপারেটিং সিস্টেমেও ব্যবহার করা যাবে।

CamScanner 
CamScanner অ্যাপলিকেশনটি একটি বহুল পরিচিত এবং চমৎকার অ্যাপলিকেশন যা আপনি বিনামূল্যেই ব্যবহার করতে পারবেন। CamScanner অ্যাপলিকেশনটির জনপ্রিয়তার প্রধান কারণগুলোর মধ্যে এর সিম্পল ইউজার ইন্টারফেস অন্যতম। সহজ ইন্টারফেস তথা সহজ এই অ্যাপলিকেশনটির মাধ্যমে আপনি ডকুমেন্ট স্ক্যান করে সরাসরি পিডিএফ ফাইলে সংরক্ষণ করতে পারবেন এবং এই অ্যাপলিকেশনটিতেও আপনি ওসিআর সুবিধা পাবেন। মজার ব্যাপার হচ্ছে আপনার স্মার্টফোন দিয়ে একটি ডকুমেন্ট স্ক্যান করার পর এই অ্যাপলিকেশনটি স্বয়ংক্রিয়ভাবেই স্ক্যানড ইমেজটি ক্রপ করতে সক্ষম। ফ্রি এই অ্যাপলিকেশনটিতে আপনি মাসে ৫ ডলার খরচ করে ক্লাউড স্টোরেজ স্পেস, এডিট্যাবল ওসিআর, অটো-সিনক্রোনাইজেশন সুবিধা ইত্যাদি প্রিমিয়াম সুবিধা পেতে পারবেন। চমৎকার এই অ্যাপলিকেশনটি আপনি অ্যান্ড্রয়েড, উইন্ডোজ এবং আইওএস-এ ব্যবহার করতে পারবেন।
Genius Scan
Grizzly Labs এর তৈরি Genius Scan অ্যাপলিকেশনটিও একটি সিম্পল এবং ক্রস-প্ল্যাটফর্ম ডকুমেন্ট স্ক্যানার যা ফাস্ট ইমেজ স্ন্যাপিং সুবিধা বা রিসিপ্ট, নোট, স্কেচ অথবা অন্যান্য ডকুমেন্ট থেকে পিডিএফ জেনারেটের সুবিধা দিয়ে থাকে। অ্যাপটি স্বয়ংক্রিয়ভাবেই লাইন আপ, আইসোলেট করতে সক্ষম। আপনি এই অ্যাপটি দিয়ে কোন ডকুমেন্ট স্ক্যান করে তা সাথে সাথেই ইমেইল করে দিতে পারবেন। অ্যাপলিকেহশনটি সম্পূর্নই বিনামূল্যে ব্যবহারযোগ্য কিন্তু আপনি যদি ইন-অ্যাপ পারচেসে ৭ ডলার খরচ করে এর প্রিমিয়াম ভার্সনটি আনলক করেন তবে আপনি বেশ কিছু চমৎকার প্রিমিয়াম সুবিধা পাবেন। চমৎকার এই অ্যাপলিকেশনটি আপনি অ্যান্ড্রয়েড, উইন্ডোজ এবং আইওএস-এ ব্যবহার করতে পারবেন।
Scannable By Evernote 
আপনি যদি একজন এভারনোট ব্যবহারকারী হয়ে থাকেন তবে এই অ্যাপটির চমৎকার দিক সম্পর্কে নিশ্চয়ই আপনি জানেন? আর যদি ডাই-হার্ড ব্যবহারকারী হয়ে থাকেন তবে আমি বলবো আপনার জন্য এভারনোটের সাথে ইন্টিগ্রেটেড স্ক্যানারের উপর ভালো কোন স্ক্যানার সম্ভবত হতে পারেনা। আর আপনারা যারা খুব একটা পরিচিত নন জেনারেলি নোট-টেকিং এই অ্যাপটির সম্পর্কে তাদের বলতে চাই – ‘হ্যাঁ, এই অ্যাপটি ব্যবহার করে আপনি চমৎকার ভাবে আপনার প্রয়োজনীয় ডকুমেন্টগুলো স্ক্যানও করতে পারবেন। তবে এই সুবিধাটি বর্তমানে শুধু আইওএস ব্যবহারকারীরাই পাবেন।
FineScanner 

টেক্সটবুক বা রিসার্চ পেপার স্ক্যান করার প্রয়োজন? যদি তাই হয় তবে FineScanner অ্যাপলিকেশনটি সহজেই আপনার হয়ে কাজটি করে দিতে সক্ষম। আইওএস এর জন্য নির্মিত এই অ্যাপলিকেশনটি আপনার আইফোন এবং আইপ্যাড ডিভাইসকে সহজেই একটি রিচ ডকুমেন্ট স্ক্যানারে রুপান্তরিত করতে সক্ষম। অ্যাপলিকেশনটিতে রয়েছে ওসিআর সুবিধা যা মোটমাট ৪৪টির মত ভাষা সাপোর্ট করে তাই আপনি আপনার প্রয়োজন মত যে কোন ল্যাঙ্গুয়েজ ওসিআর পদ্ধতিতে স্ক্যান করে ডক ফাইলে কপি করে নিতে পারবেন। এছাড়াও এই অ্যাপলিকেশনটিতে স্ক্যান করা ডকুমেন্ট আপনি সংরক্ষণ করতে পারবেন প্রায় ১২টির মত ফরম্যাটে। এই অ্যাপলিকেশনটিও বিনামূল্যে আইওএস ব্যাবহারকারিরা ব্যবহার করতে পারবেন তবে এতে রয়েছে কিছু ইন-অ্যাপ পারচেস সুবিধা।

 

এই ছিলো আজকের সেরা স্মার্টফোনের স্ক্যানার অ্যাপগুলো, আশা করি ভালো লেগেছে। আপনাদের কাছে যদি সেরা কোন স্ক্যানারের নাম থেকে থাকে যা আপনারা ব্যবহার করেছেন এবং সত্যিই ভালো তবে লিখে দিননা মন্তব্যের পাতায়… আমিও না হয় জানলাম।

LEAVE A REPLY

1 × 3 =