ইন্টারনেট থেকে আয় করার উপায়  FavoriteLoadingবুকমার্ক

চাকরী বা ব্যবসার বদলে কম্পিউটার এবং ইন্টারনেট ব্যবহার করে আপনি যথেষ্ট পরিমান আয় করতে পারেন। সেটা ডাটা এন্ট্রির মত সহজ কাজই হোক আর প্রোগ্রামিং এর মত দক্ষতার কাজই হোক। অনেকে বলেন এটাই ভবিষ্যতের কাজের নিয়ম। বর্তমানে যেমন কোন কোম্পনীকে কাজ করানোর জন্য বেতন দিয়ে কর্মী নিয়োগ করতে হয়, ভবিষতে তারা একাজের জন্য ইন্টারনেটের ওপর নির্ভর করবেন। যে কেউ যোগাযোগ করে সেই কাজ করে অর্থ উপার্জন করতে পারেন। এতে দুপক্ষেরই লাভ।

affiliate-marketing-strategy ইন্টারনেট থেকে আয় করার উপায়

সাধারনভাবে আউটসোসিং নামে পরিচিত এই কাজ আপনি করবেন ফ্রিল্যান্সার হিসেবে। কাজের তালিকা দেখে ঠিক করবেন আপনি কোন কাজ করতে চান, সেজন্য যোগাযোগ করবেন। তারা যদি মনে করে আপনি সেকাজ ঠিকভাবে করতে পারবেন তাহলে তারা কাজ দেবেন।

অনেকগুলি প্রতিস্ঠান ওয়েবসাইটের মাধ্যমে এধরনের কাজের মধ্যস্থতা করে। আপনি যদি কাজ খোজ করেন তাহলে তাদের সাইটে গিয়ে কাজের তালিকা দেখতে পারেন। আর যারা আউটসোর্সিং পদ্ধতিতে কাজ করাতে চান তারা তাদের কাজের বর্ননা তাদের সাইটে দিতে পারেন। ফল হিসেবে আপনি যখন কর্মী কথন সেখানে দেখবেন কাজের তালিকা, আর আপনি যখন কাজ করাবেন তখন আপনি দেখবেন কর্মীর তালিকা।

এধরনের কিছু সাইটের পরিচিতি তুলে ধরা হচ্ছে এখানে

www.odesk.com

আউটসোর্সিং কাজের জন্য অত্যন্ত জনপ্রিয় একটি সাইট। মোট ৯টি ক্যাটাগরীতে অসংখ্য ধরনের কাজ পাওয়া যায় তাদের সাইটে। বিভাগ অনুযায়ী কাজ খুজে সেই কাজের জন্য যোগাযোগ করতে পারেন।

তাদের সাথে কাজ করার জন্য একটি ফরম পুরন করে সদস্য হতে হবে। আপনি যে বিষয়ে কাজ করতে আগ্রহি সে বিষয়ে পরীক্ষা দেয়ার ব্যবস্থা রয়েছে। সাধারন সদস্য হিসেবে আপনি সপ্তাহে দুটি কাজের জন্য আবেদন জানাতে পারেন। পরীক্ষা দিয়ে সার্টিফায়েড সদস্য হয়ে সেই সংখ্যা বাড়াতে পারেন।

তারা পারিশ্রমিকের ১০ ভাগ নিজেরা নেয়। অবশ্য কর্মী হিসেবে আপনি সেটা জানার সুযোগ পাবেন না। ১০ভাগ বাদ দেয়ার পর যে পরিমান সেটাই আপনাকে জানানো হবে, কাজেই আপনার হিসেবে তারা আপনার কাছে কোন অর্থ নিচ্ছে না।

www.freelancer.com

আরেকটি জনপ্রিয় সাইট। তাদের সদস্য সংখ্যা প্রায় আড়াই লক্ষ। লোগো ডিজাইন, বিজনেস কার্ড ডিজাইন, ওয়েবসাইট ডিজাইন থেকে শুরু করে ডাটা এন্ট্রি, পাওয়ার পয়েন্ট প্রেজেন্টেশন তৈরী, সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন সব ধরনের কাজ পাওয়া যাবে তাদের সাইটে। আপনার কাছে কোন ফি নেয়া হবে না। তবে আপনি যদি তাদের মাধ্যমে কর্মী খোজেন তাহলে ৫ ডলার দিতে হবে।

www.elance.com

এখানে মাসে প্রায় ৫০ হাজার কাজ জমা হয়। প্রোগ্রামিং, ওয়েবসাইট ডিজাইন, গ্রাফিক ডিজাইন, এনিমেশন, ফ্লাশ ডিজাইন, ডাটা এন্ট্রি সব ধরনের কাজ রয়েছে তাদের সাইটে। তাদের সদস্য হোন, কাজের তালিকা দেখুন, কাজের জন্য আবেদন করুন, কাজের অগ্রগতি দেখুন। পুরো কাজই হবে অনলাইনে।

www.vworker.com

আগে নাম ছিল রেন্ট-এ-কোডার, বর্তমান নাম ভার্চুয়াল ওয়ার্কার। অত্যন্ত জনপ্রিয় এই সাইটে ডিজাইন আর্ট এন্ড মাল্টিমিডিয়া, টেকনোলজি, রাইটিং এন্ড ট্রন্সলেশন, বিজনেস সার্ভিসেস, এডমিনিষ্ট্রেটিভ সাপোর্ট ইত্যাদি বিভাগে বহু কাজ রয়েছে এখানে। কাজ জমা দেয়া বা করার জন্য কোন ফি নেই।

www.guru.com

টেকনোলজি, ক্রিয়েটিভ আর্টস এবং বিজনেস প্রধান এই ৩টি বিভাগের মধ্যে রয়েছে অনেকগুলি ভাগে বিভক্ত নানাধরনের কাজ। যেমন ক্রিয়েটিভ আর্টস এর মধ্যে রয়েছে গ্রাফিক ডিজাইন, মাল্টিমিডিয়া, ইলাষ্ট্রেশন, ফটোগ্রাফি, ভিডিওগ্রাফি, ফ্যাসন, ইন্টেরিয়র ডিজাইন ইত্যাদি। তাদের কাছে কোন বিষয়ে প্রশ্ন করে উত্তর এবং পরামর্শ পেতে পারেন।

এখানে কাজের জন্য তাদের সদস্য হবেন, প্রোফাইল তৈরী করবেন, যে কাজ করতে চান সেজন্য আবেদন করবেন, কাজশেষে জমা দেবেন এবং পেমেন্ট রিসিভ করবেন।

জনপ্রিয় এই সাইটগুলি ভিজিট করে তাদের সুবিধা-অসুবিধা যাচাই করতে পারেন। এদের বাইরেও আরো অনেক সাইট এধরনের সেবা দেয়। সার্চ করে সেগুলিও দেখতে পারেন। কাজ করার জন্য একজনকে বাছাই করে সেখানে শুরু করাই ভাল। ভালভাবে সাইটের সমস্ত তথ্য পড়ে অভিজ্ঞতা সঞ্চয়ের পর সহজেই যাচাই করা সম্ভব কোথায় সহজে কাজ পাওয়া যায়, পেমেন্ট বেশি পাওয়া যায়, অর্থ লেনদেন সহজ এবং নিশ্চিত ইত্যাদি। তখন প্রয়োজনে একজনের বদলে আরেকজন, কিংবা একাধিক যায়গায় কাজ করা সম্ভব।

এই জাতীয় আরো টিউন

আপনিও লিখুন মতামতের উত্তর

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

3 × 4 =