চিনে নিন বিশ্বের সবচেয়ে ব্যয়বহুল ৮ সুপারকার  FavoriteLoadingবুকমার্ক

যেসব মূল্যবান ও অত্যাধুনিক গাড়ি কিনতে মিলিয়ন ডলার ব্যয় করতে হয় সেগুলোকে সাধারণ গাড়ির সঙ্গে তুলনা করলে চলে না। এসব গাড়ির গতি যেমন দানবীয় তেমন অন্যান্য ব্যয়ও প্রচুর। এ লেখায় রয়েছে তেমন আটটি গাড়ির কথা। এক প্রতিবেদনে বিষয়টি জানিয়েছে টেক ইনসাইডার।
৮. অ্যাসটন মার্টিন ভলকান
২.৩ মিলিয়ন ডলার দামের অ্যাসটন মার্টিন ভলকান গাড়িটি দেখতে যেমন অসাধারণ তেমন পারফরমেন্সও চমৎকার। ৮০০ হর্সপাওয়ারের এ ব্রিটিশ গাড়িটিতে রয়েছে ভি১২ ইঞ্জিন। মাত্র ২৪টি এ ধরনের গাড়ি তৈরি হয়েছে এবং তার সবগুলোই বিক্রি হয়ে গিয়েছে। আপনি যদি এ ধরনের আরেকটি গাড়ি কিনতে চান তাহলে আরও পাঁচ বছর অপেক্ষা করতে হবে।

index69 চিনে নিন বিশ্বের সবচেয়ে ব্যয়বহুল ৮ সুপারকার

৭. ফেরারি এফ৬০
বিশ্বখ্যাত ফেরারির এফ৬০ মডেলের গাড়িটি কিনতে চাইলে ২.৫ মিলিয়ন ডলার ব্যয় করতে হবে। ফেরারির ৬০তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে এ গাড়িটি নির্মিত হয়েছে। এ মডেলের গাড়ি মাত্র ১০টি তৈরি হয়েছে এবং সর্বসাধারণ জানার আগেই সবগুলো বিক্রি হয়ে গিয়েছে।

৬. ফেরারি এফ৬৯
ক্লাসিক ফেরারি গাড়ি যাদের পছন্দ তাদের অন্যতম প্রিয় গাড়ি ফেরারি এফ৬৯। এটি মূলত একটি রেসিং কার।

৫. পাগানি হুয়ায়রা বিসি
কার্বন ফাইবারের অসাধারণ ব্যবহার করা হয়েছে ২.৬ মিলিয়ন ডলার দামের এ গাড়িটি নির্মাণে। এ কারণে গাড়িটি যেমন হালকা তেমন এর পারফরমেন্সও অসাধারণ। এ গাড়িটির রোডস্টার ভার্সন এখনও বাজারে পাওয়া যাচ্ছে।

৪. ফেরারি এক্সএক্স কে
ফেরারির অসাধারণ ট্র্র্যাক কার হিসেবে এ তিন মিলিয়ন ডলার মূল্যের গাড়িটি অন্যতম জনপ্রিয় মডেল। এ গাড়িটি হাইব্রিড হওয়ায় এতে বৈদ্যুতিক ও পেট্রল উভয় ইঞ্জিনই রয়েছে। গাড়িটির ইঞ্জিনের ক্ষমতা ১০৩৬ হর্সপাওয়ার। তবে আপনি চাইলেই এখন এ গাড়িটি কিনতে পারবেন না। কারণ মাত্র ৪০টি এ ধরনের গাড়ি নির্মিত হয়েছে এবং তার সবই বিক্রি হয়ে গিয়েছে।

৩. ম্যাকলরেন পি১ জিটিআর
৩.১ মিলিয়ন ডলার খরচ করে একটি রেসিং কার কিনতে চাইলে ম্যাকলরেন পি১ জিটিআর হতে পারে আদর্শ। এ গাড়িটি ১৯৯৫ এফ১ জিটিআর লে ম্যানস বিজয়ী গাড়ির হুবহু রং করা হয়েছে। এতে রয়েছে ৯৮৬ হর্সপাওয়ার টার্বোচার্জড ভি৮ ইঞ্জিন ও অনবোর্ড ইলেকট্রিক মোটর।

২. ল্যাম্বার্গিনি ভেনিনো রোডস্টার
সাড়ে চার মিলিয়ন ডলার মূল্যের ল্যাম্বরগিনি ভেনিনো রোডস্টার গাড়িটিতে রয়েছে ৭৪০ হর্সপাওয়ার ইঞ্জিন। তবে এত খরচ করলেও গাড়িটির কোনো ছাদ পাবেন না আপনি! অবশ্য এ গাড়িটির ক্রেতারা এ জন্য মোটেই অনাগ্রহী নন। গাড়িটি যেমন ব্যয়বহুল তেমন দৃষ্টিনন্দনও বটে।

১. কোয়েনিগসেগ সিসিএক্সআর ট্রেভিটা
৪.৮৬ মিলিয়ন ডলারের এ গাড়িটি মাত্র দুই পিস তৈরি হয়েছে। একটির ক্রেতা মার্কিন বক্সার ফ্লয়েড মেওয়েদার জুনিয়র। এটি কার্বন ফাইবারে তৈরি হলেও অন্যান্য কার্বন ফাইবার গাড়ির মতো ডার্ক রংয়ের নয়। এর বডিতে রয়েছে উজ্জ্বল হীরার মতো রং।

এই জাতীয় আরো টিউন

আপনিও লিখুন মতামতের উত্তর

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

sixteen + eleven =