পানির বোতলে এক্সপায়ার ডেট থাকার কারণ

0
171

কখনো লক্ষ্য করে দেখেছেন, শপিং মল বা ডিপার্টমেন্টাল স্টোরগুলো বিক্রি হওয়া সব প্যাকেজড খাবারে একটি নির্দিষ্ট মেয়াদ থাকে। তার পর সেগুলি খাওয়া নিতান্তই ক্ষতিকারক। তবে বেশিরভাগ মানুষই কেনার সময় এসব ব্যাপার লক্ষ্য করেন না। এই একই ব্যাপার প্রযোজ্য মিনারেল ওয়াটারের ক্ষেত্রেও। আপনি বলতেই পারেন, বিশুদ্ধ পানি আবার কখনো খারাপ হয় নাকি! হয়, যদি তা প্লাস্টিকের বোতলের মধ্যে ভরা থকে।

আজ্ঞে হ্যাঁ, এই প্লাস্টিকের বোতলের জন্যই মিনারেল ওয়াটারেরও একটি নির্দিষ্ট মেয়াদ থাকে। তার পর তা পান করা মোটেই স্বাস্থ্যকর নয়। অনেকে রাস্তার পাশের দোকান থেকে খাবার খেলেও পানি পান করতে চান না। তবে মেয়াদ পার হয়ে যাওয়া বোতলের জবের চেয়ে তা কম ক্ষতিকারক।

index পানির বোতলে এক্সপায়ার ডেট থাকার কারণ

কেন? চিকিত্‍সকরা বলছেন, মেয়াদ পার হয়ে যাওয়া বোতল থেকে অত্যন্ত ক্ষতিকারক যৌগ বিস্ফানল-এ নির্গত হয়। যা মানব দেহে স্বাভাবিক হরমোন ক্ষরণকে বাধা দেয়। এর সঙ্গে যৌগটি সরাসরি স্তন ক্যান্সার, পুরুষদের বন্ধ্যাত্ব, হৃদরোগ এবং ব্রেন ড্যামেজের সঙ্গে জড়িত। এই একই যৌগ পাওয়া যায় এটিএম থেকে বেরনো স্লিপেও। সে জন্য ব্যবহার শেষ হলে তা দ্রুত ছিঁড়ে ফেলে-দেওয়াই যুক্তিযুক্ত বলে মনে করেন চিকিত্‍সকরা।

যে বোতলে পানি ভরা হয়, তা ১৫-২০ দিন পর্যন্ত ব্যবহার করা যায়। তবে অনেকেই এই বোতল বাড়িতে দীর্ঘদিন পর্যন্ত ব্যবহার করে থাকেন। এই বোতলগুলি যদি রোদের মধ্যে রাখা হয় তা হলে আরও বেশি পরিমাণে বিস্ফানল নির্গত হয়। যদি একান্তই ব্যবহার করতে হয়, তবে তা ঠান্ডা এবং অপেক্ষাকৃত অন্ধকার জায়গায় রাখাই ভালো। খেয়াল রাখতে হবে, যাতে বোতলের তলায় কোনো রকম দাগ বা ময়লা না জমে থাকে। মাথায় রাখবেন, এই বোতলগুলি একবার ব্যবহারের জন্য তৈরি করা হয়। তাই কোনোভাবেই এ গুলি বাড়িতে ব্যবহার করবেন না। যদিও করেও ফেলেন তবে মাস খানেকের মধ্যে তা ফেলে দিন।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here

5 × three =