২০১৫ সালের সেড়া মোবাইল

0
365

২০১৫ সালের সেরা প্রযুক্তিপণ্যের তালিকা প্রকাশ করেছে প্রযুক্তিবিষয়ক ওয়েবসাইট পকেট-লিন্ট। সম্প্রতি লন্ডনে ‘ইই পকেট-লিন্ট গ্যাজেট অ্যাওয়ার্ডস’ নামের একটি অনুষ্ঠানে বর্ষসেরা কয়েকটি প্রযুক্তিপণ্যের ঘোষণা দিয়েছে প্রযুক্তিবিষয়ক ওয়েবসাইটটির কর্তৃপক্ষ। এতে বর্ষ সেরা স্মার্টফোন এর খেতাব জিতেছে স্যামসাংয়ের গ্যালাক্সি এস ৬ এজ।
পাশাপাশি বাঁকানো ডিসপ্লের এই ফোনটি কেবল বর্ষসেরা প্রযুক্তিপণ্যের খেতাব জেতেনি, একই সঙ্গে ‘প্রেস্টিজিয়াস গ্যাজেট অব দ্য ইয়ারের’ পুরস্কারও জিতেছে।
বর্ষসেরা প্রযুক্তিপণ্যেরtop smartphone ২০১৫ সালের সেড়া মোবাইল

বিচারকদের মধ্যে ছিলেন যুক্তরাজ্যের ডেইলি এক্সপ্রেস পত্রিকার প্রযুক্তি​​বিষয়ক সম্পাদক ডেভিড স্নেলিং। গ্যালাক্সি এস ৬ এজকে বর্ষসেরা হিসেবে বর্ণনা করে তিনি বলেন, ‘এর নকশা চমৎকার। স্যামসাং এ বছর তার ঝুলি থেকে চমৎকার এ ফোনটি বের করেছে।’ বর্ষসেরা স্মার্টফোনের তালিকায় দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে অ্যাপলের আইফোন ৬ এস।
স্মার্টফোন বিভাগে সেরা না হলেও টু-ইন ওয়ান বা ট্যাব ও পরিধানযোগ্য প্রযুক্তিপণ্য বিভাগের সেরা হয়েছে অ্যাপল। আইপ্যাড মিনি ৪ ও অ্যাপল ওয়াচের জন্য পকেট-লিন্টের তালিকায় বর্ষসেরা হয়েছে অ্যাপল।
অন্যান্য বিভাগের বিজয়ীদের মধ্যে রয়েছে এলজি, লেইকা, ব্যাং অ্যান্ড ওলুফসেন, অ্যামাজন ফায়ার টিভি। পকেট-লিন্ট গ্যাজেট অ্যাওয়ার্ডসের প্রতিষ্ঠাতা স্টুয়ার্ট মাইলস বলেন, ‘প্রযুক্তি শিল্প ঠিক কি ভাবছে সে বিষয়ে পকেট-লিন্ট পুরস্কারটি সবসময় চমৎকার নির্ণায়ক হিসেবে কাজ করে।’

সেরা স্মার্টফোন

কনফিগারেশন মূলত নির্ভর করে আপনি কোন ধরনের ও দামের স্মার্টফোন কিনছেন সেটির উপর। ফোনটি কেনার আগে কনফিগারেশনটি ভালো ভাবে যাচাই করে বুঝে নিতে হবে। মনে রাখতে হবে দেখতে একই রকম হলেই ফোনটি আসল নাও হতে পারে।
বর্তমানে বাজারে অনেক কপি ফোন পাওয়া যায়। সেগুলো দেখতে ব্র্যান্ডের মত হলেও কনফিগারেশনে ঝামেলা থাকে। তাই মডেল একই হলেও ফোনের মধ্যে বাস্তবে কনফিগারেশন কেমন তা যাচাই করে নিতে হবে

তথ্যসূত্র: ডেইলি এক্সপ্রেস।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here

18 − twelve =