আমাদের কাছ থেকে রমজান বিদায় হয়ে যাচ্ছে, আমরা কি আমাদের গুনাহগুলোকে বিদায় দিতে পেরেছি? চলুন, অনলাইনের পোস্টগুলো দেখে আরেকটু সচেতন হই ।

0
160

আসসালামু আলাইকুম ।  সবাই কেমন আছেন । আশা করি আল্লাহর অশেষ রহমতে ভালো । আর ভালো থাকাটাই সবসময়ের প্রত্যাশা ।   শান্তির বার্তা নিয়ে মাহে রমজান আমাদের মাঝে এসে উপস্থিত হয়েছিলো ।  আস্তে আস্তে আবার চলেও যাচ্ছে ।  সাথে চলে যাচ্ছে রহমত, মাগফিরাত ও নাজাতের সকল সুযোগ ।  আমরাকি পেরেছি সুযোগ গুলোকে কাজে লাগাতে ।  মাহে রমজানের পুরোপুরি না হোক, নূন্যতম হক আদায় করতে কতটুকু পেরেছি? 

আমরা সবাই জানি কুরআন নাজিলের মাস মাহে রমজান ।  এই কোরআনই রমজান মাসকে দামী করেছে । তেমনি এ মাসের হক আদায়ে যারা সচেষ্ট হবে নিসন্দেহে তারাও দামী হবে তাতে কোন ভুল নেই ।  রমজান মাসে সেহরী, ইফতার, তারাবীহসহ সকল সময়ে আল্লাহর রহমত ও অনাবিল প্রশান্তি  বিরাজ করে ।  এ মাসে একটি ফরজ নামাজ ৭০টি ফরজ নামাজের সমান ।  আর ১টি নফল ১টি ফরজ নামাজের সমান ।  পাশাপাশি কোরআন তেলাওয়াতের ক্ষেত্রেও রয়েছে অভাবনীয় সুযোগ ।  এক অক্ষরেই পাওয়া যাবে ৭০০ নেকী ।  কেউ যদি নিজে না পড়ে অন্যের তেলাওয়াত শুনে তাতেও রয়েছি দ্বিগুণ সওয়াব ।  পূর্ববর্তী কোন উম্মতের জন্য অল্প সময়ে নেকী অর্জনের এত বড় সুযোগ ছিলো না ।  কাজেই সুযোগ কাজে লাগানো উচিত । আর মাত্র অল্প কদিন । তারপর আর এ সুবর্ণ সুযোগটি থাকছে না ।

রমজান মাসে দান খয়রাতেও রয়েছে অনেক সওয়াব । ১ টাকা দানে ৭০ টাকা দানের সওয়াব যা অন্য ১১ মাসে পাওয়ার কোন সুযোগ নেই ।  আমাদের সকলের সামর্থ নেই বলে এ মাসে ওমরাহ করার অফুরন্ত সুযোগ আমরা লুফে নিতে পারছি না । কিন্তু যতটুকু সুযোগ আমাদের হাতরে নাগালে আছে তাতো নেয়াই যায় ।   জীবনে আরেকটি রমজান মাস পাওয়ার কোন নিশ্চয়তা নেই ।  তাই সময় থাকতে নেকী লুট করার প্রতিযোগীতায় লিপ্ত হওয়া জরূরী ।

রমজান শুধু একটি মাসেরই নাম নয় এটি হচ্ছে একটি ‘চিকিৎসা’, যেটা সামনের পুরো এগারোটি মাসের উপর নিয়ন্ত্রন রাখে। এ মাস টি হচ্ছে আত্ম শুদ্ধি, ও আত্ম সমালোচনার মাস। পুরো মাসেই আল্লাহ তায়ালা সমগ্র মুসলিম জাহানের মানুষ গুলোকে ধনি, গরিবসহ সকল স্তরের মানুষকে সকল ভেদাভেদ দূর করে এক কাতারে দাড় করায় । যাতে ধনিরা অনুধাবন করতে পারে গরিবের অনাহারের কষ্ট। আর তারা এই কষ্ট অনুধাবন করে যেন মহান আল্লাহর বিধান জাকাত প্রদান করে সমাজের ধনি, গরিব সামঞ্জস্যতা রক্ষা করে এটাই আল্লাহর বিধান।   শুধু তাই নয়, এ মাস আমাদের সুশৃঙ্খল হতে শিখায়, সংযমী হতে শিখায়, আত্নশুদ্ধি অর্জন করতে শিখায় । তাই আসুন আমরা রমজানের শিক্ষাকে আমাদের জীবনে বাস্তবায়ন করি। জাকাত প্রদান করি, তবে অবশ্যই সুশৃঙ্খল ভাবে ।  আমাদের যেন একমাত্র উদ্দেশ্য হয় লোক দেখানো নয়, আল্লাহকে সন্তুষ্ট করা ।   তাহলেই আমরা সফলকাম হতে পারবো । 

রমজান মাসে কুরআন শরীফ পড়ার জন্য কয়েকটি এপস এর লিংক- 

গুগল প্লে স্টোরে পাবেন  আল কোরআনের এপস ।  


অর্থসহ কুরআন (আরবী ও বাংলা) ।


অর্থবিহীন কুরআন (শুধুমাত্র আরবী) । 

 
 

এপসগুলো আপনার এন্ড্রয়েড মোবাইলে ডাউনলোড করে নিতে পারেন । 

 
 

রমজান মাস সম্পর্কিত কয়েকটি আটিকেল-

 
 
 
 
 

 

আমাদের সামনে রয়েছে হাজার বছরের চাইতেও শ্রেষ্ঠ রজনী ।

 

আশা করি আমরা সবাই আরেকটু সচেতন হবো । শেষ সময়ে এসে নিজেদের গুনাহ মাফ করে নিবো আল্লাহর কাছ থেকে ।  রমজান বিদায়ের আগে যেন আমাদের গুনাহগুলো বিদায় হয় এবং বাকী ১১ মাস যেন আমরা ভালো চলতে পারি, এ প্রত্যাশা  থাকলো । 

 
 
 

সবাই ভালো থাকবেন ।   অনেক অনেক শুভ কামনা রইলো ।

 
 
 
 

একটি উত্তর ত্যাগ