আপনার ইন্টারনেট ডাটা ব্যবহারের খরচ কমাতে হট টিপস

0
350
আপনার ইন্টারনেট ডাটা ব্যবহারের খরচ কমাতে হট টিপস

kafi

বড় একটি কোম্পানিতে ছোট একটি জব করছি :) দেখা হলে বিস্তারিত আড্ডা হবে। ধন্যবাদ
আপনার ইন্টারনেট ডাটা ব্যবহারের খরচ কমাতে হট টিপস

প্রতি মাসে কাড়ি কাড়ি টাকা খালি মোবাইলের ডাটার পেছনে খরচ হয়ে যাচ্ছে? ইন্টারনেট ডাটা রিচার্জ করছেন আর মুহূর্তেই সেটা শেষ হয়ে যাচ্ছে? এমন সমস্যা পোহাতে হয় অনেকেরই। অনেকে হয়তো রেগেমেগে সেলফোনে ইন্টারনেট ব্যবহার করাই ছেড়ে দেওয়ার কথা ভাবছেন। আসলে, আমাদের কিছু অসতর্কতার জন্য খরচ হয়ে যায় ইন্টারনেটের অতিরিক্ত ডাটা। এগুলোর দিকে একটু নজর রাখলেই খরচ কমে যাবে আপনার। যেগুলো হয় তো আপনার ডাটা ব্যবহারের খরচ কমাতে পারবে।

ডাটা ব্যবহারের খরচ কমাতে আপনার ইন্টারনেট ডাটা ব্যবহারের খরচ কমাতে হট টিপস

১. পুশ নোটিফিকেশন বন্ধ রাখুন: অনেকসময় আপনার ব্যবহৃত বিভিন্ন ধরনের অ্যাপসের কারণে খরচ হচ্ছে আপনার ডাটা। এগুলোর যেকোনো ধরনের প্রচারণামূলক বা মেসেজিং সার্ভিসের কারণে আপনার ডাটা খরচ হতে থাকে অজান্তেই। সুতরাং, যেকোনো ধরনের অ্যাপসে নোটিফিকেশন বন্ধ রাখুন।

২. ডাটার ব্যবহার ট্র্যাকিং করুন: অ্যান্ড্রয়েড এবং আইওএস প্ল্যাটফর্মে আপনার ব্যবহৃত ডাটার পরিমাণ ট্র্যাক করার সুবিধা রয়েছে এখন। এতে কোন অ্যাপসরে কারণে আপনার কতটা ডাটা খরচ হচ্ছে, তা সহজেই হিসাবে রাখতে পারবেন এবং সেই অনুযায়ী ডাটা ব্যবহার করতে পারবেন।

৩. হোয়াটসঅ্যাপে অটো-ডাউনলোড বন্ধ রাখুন: হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহারকারীরা অনেক সময়ই অন্য কিছু গ্রুপের থেকে ছবি, ভিডিও কিংবা অডিও রিসিভ করেন; যেগুলো স্বয়ংক্রিয়ভাবে ডাউনলোড হয়ে যায়। একমাত্র ওয়াইফাই ব্যবহার করার সময় ছাড়া সবসময় এই অটো-ডাউনলোড অপশনটি বন্ধ রাখুন।

৪. ভিডিও দেখা বা গান শোনায় সতর্ক হোন: মোবাইলের ডাটা থেকে কোনো মিউজিক ভিডিও বা গান যদি স্ট্রিমিং করেন; সে ক্ষেত্রে ক্ষেত্রবিশেষে অনেক বেশি ডাটা খরচ হতে পারে। সুতরাং এ ক্ষেত্রে সতর্ক হোন, পারতপক্ষে ওয়াইফাই সংযোগ ছাড়া সেলফোনে ভিডিও বা অডিও স্ট্রিমিং না করাই লাভজনক।

৫. ডাটা কমপ্রেশন ব্যবহার করুন: আপনার যদি অনলাইনে অনেক আর্টিকেল পড়ার অভ্যাস থাকে, সে ক্ষেত্রে আপনার মোবাইলে ডাটা কমপ্রেশন চালু রাখা খুবই ভালো বুদ্ধি। এতে করে স্বয়ংক্রিয়ভাবে বিভিন্ন ওয়েবপেইজে আপনার ডাটা খরচের পরিমাণ অনেকটাই কমে আসবে।

একটি উত্তর ত্যাগ