গুগল এর ১০০+ সার্ভিস এবং প্রোডাক্ট সম্পর্কে বিস্তারিত বর্বণা সহ জেনে নিন

0
384
গুগল এর ১০০+ সার্ভিস এবং প্রোডাক্ট সম্পর্কে বিস্তারিত বর্বণা সহ জেনে নিন

tarikul.h

আমি ভালোবাসি বিজ্ঞান এর তথ্য সমুহ নিয়ে ঘাটা ঘটি করতে, নিজে খুব একটা জানিনা কিন্তু নানান দেশি বিদেশি ওয়েবসাইট থেকে তথ্য প্রযুক্তি মুলক সংবাদ গুলো পড়তে এবং লিখতে আমার চমৎকার লাগে।
গুগল এর ১০০+ সার্ভিস এবং প্রোডাক্ট সম্পর্কে বিস্তারিত বর্বণা সহ জেনে নিন

এখন ১০০+ গুগল এর প্রোডাক্ট সম্পর্কে বলব। আপনি শুধু পড়তে থাকুন এর কাউন্ট করতে থাকুন কত কিছু এই গুগল এর।

গুগল এর ১০০+ সার্ভিস এবং প্রোডাক্ট সম্পর্কে বিস্তারিত বর্বণা সহ জেনে নিন

  • Google Search & Google Features  – গুগল সার্চ ইঞ্জিন। সব থেকে বহুল ব্যবহার হয়।
  • AdMob– অ্যাড এর মাধ্যমে মোবাইল আপস প্রমোট করার জন্য।
  • Android– একটি অপারেটিং সিস্টেম। যা আজ সারা পৃথিবীতে ব্যবহার করছে।
  • Blogger– একটি ফ্রী ব্লগিং প্লাটফর্ম।
  • Dartr– নতুন প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ ডেভেলপ করে এই গুগল টিম।
  • Google.org– এটিতে গুগল তাদের সমস্ত ধরনের টেকনলজি কে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য সাহায্য করে থাকে।
  • Google Account Activity– এইটার মাধ্যমে আপনি সারা মাসে গুগল এর সব প্রোডাক্টগুলোতে কি কি করছেন সেটা জানা যাবে।
  • Google Ad Planner– একটি ফ্রী মিডিয়া প্ল্যানিং টুল। যেখানে গেলে আপনার ওয়েবসাইট এর জন্য কি ধরনের অ্যাড দিলে বা কোন অডিয়েন্স থেকে ভিজিটর আসছে সেটা ক্লিয়ারভাবে যাচাই বাছাই করতে পারবেন।
  • Google AdSense– এটা একটি কন্টাক্টচুয়াল অ্যাডভারটাইজিং সিস্টেম। যেখান থেকে অ্যাড নিয়ে আপনার সাইট এ বসিয়ে আয় করতে পারবেন।
  • Google AdWords– এটা একটি গুগল   অ্যাডভারটাইজিং সিস্টেম। যা কিনা আপনি অ্যাড দিতে পারেন গুগল এর কাছে।
  • Google Affiliate Network – এটা এমন একটি প্রোডাক্ট যা  ফুল টাইম অনালাইন মার্কেটিং সার্ভিস এর জন্য পেমেন্ট করে মিডিয়া পারফর্মেন্স এর উপর নির্ভর করে।
  • Google Alerts– গুগল এই প্রোডাক্ট টি অনেক মজার বলা যায়। আপনি যেকোনো ধরনের নিউজ পেতে গুগল এলারট ব্যবহার করলে গুগল আপনাকে মেইল করে পাঠাই দিবে আপনার মেইল ঠিকানা তে।
  • Google Analytics– এটি আপনার সাইট কে ইম্প্রুভ করতে সাহায্য করে।
  • Google Answers– এটা সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজাররা বা যারা সার্চ এর উপর রিসার্চ করেন তারা এটি ব্যবহার করেন বিভিন্ন ধরনের প্রশ্নের উত্তর এর জন্য।
  • Google Apps– এটা একটি সফটওয়ার যা কিন্তা বিজনেস মেইল, ইনফরমেশন এর জন্য ব্যবহার হয়।
  • Google App Engine– গুগল অ্যাপ ইঞ্জিন আপনার ওয়েবসাইট এর চলার জন্য একটি অ্যাপ্লিকেশন যা গুগল এর অবকাঠামোর উপর ভিত্তি করে।
  • Google Base–  গুগল বেস এমন একটি যায়গা যেখানে আপনি যেকোনো ধরনের অনালাইন এবং অফলাইন কন্টেন্ট সহজেই সাবমিট করতে পারেন।
  • Google Blog Search– গুগল ব্লগ সার্চ একটি সুন্দর পদ্ধতি, যার মাধ্যমে আপনি অতি সহজেই ব্লগ খুজে পাবেন।
  • Google Body (Now, Zygote Body)-  এটা মানুষের ৩ডি বডির মডেল।
  • Google Bookmarks – এখানে আপনি আপনার ফেভারিট সাইটগুলো সেভ করে রাখতে পারেন।
  • Google Book Search– বই খোজার জন্য এটি একটি মারাত্মক সার্চ পদ্ধতি। মিলিয়ন বুকস এখান থেকে পাওয়া যাবে।
  • Google Browser Size– গুগল ব্রাউজার সাইজ একটি এমন পদ্ধতি যা আপনার সাইট এর ভিজিটররা কোন ধরনের এরিয়া ঘুরতে কি শতাংশ ঘুরছে তার একটি ভিজুয়াল টুল।
  • Google Calendar–  গুগল ক্যালেন্ডার একটি অসাধারন আইডিয়া গুগল এর। কারন এটি তে এমন একটি সিস্টেমে করা হয়েছে। আপনার যেকোনো প্রয়োজনে যদি আপনি গুগল ক্যালেন্ডার এর সার্ভিস টি ব্যবহার করেন তাহলে গুগল আপনাকে আপনার মেইল এবং মোবাইলে মেসেজের এর মাধ্যমে জানিয়ে দিবে। যেমনঃ কোন প্রোগ্রাম বা ইভেন্টের এলারট দিয়ে দিবে। যেটা আপনার জীবনে চলতে সাহায্য করে। এতে করে আপনার ভুলে যাওয়ার সমস্যা টা সমাধান হয়ে যাবে। এটা সত্যি একটি অসাধারন প্রোডাক্ট গুগল এর।
  • Google Cars– গুগল কার একটি সার্চ পদ্ধতি। যেখানে আপনি সব ধরনের কার গাড়ির মডেল এবং তার প্রাইজ জানতে পারবেন। এতে করে যেকোনো ধরনের কার গাড়ি কিনতে আপনাকে অনেক সহায়ক হবে।
  • Google Checkout এইটি ব্যবহার করা হয় গুগল স্টোর থেকে পণ্য ক্রয় করে তার প্লেস দিয়ে দেওয়ার জন্য। আপনি পণ্য কিনে একটি নির্দিষ্ট প্লেস দিলে পণ্য টি বাসাই পৌঁছে যাবে।
  • Google Chrome– এটি একটি ব্রাউজার। আমরা এই গুগল ক্রম এর সাথে সবাই পরিচত আছি। তাই বেশি কিছু বললাম না।
  • Google Chrome Sync– আপনার অ্যাকাউন্ট দিয়ে আপনি গুগল ক্রম এ কি কি ব্যবহার করেছেন তা দেখতে পারবেন এই টুল টি ব্যবহার করলে।
  • Google Chromebook– গুগল ক্রম বুক থেকে বিভিন্ন ধরনের বা বিভিন্ন কোম্পানির ল্যাপটপ আপনি কিনতে পারবেন।
  • Google Chromium–  গুগল ক্রোমিয়াম একটি প্রজেক্ট  এর ভিতর ইনক্লুড করা হয়েছে যথাক্রমে ক্রোমিয়াম এবং ক্রোমিয়াম ওএস(OS)। যেখানে পিছনের সোর্স কোড জানা যাবে ।
  • Google Code– এই টুলস টি ব্যবহার করলে বাইরের ডেভেলপেরগন জানতে পারবেন গুগল এর ডেভেলপমেন্ট সম্পর্কে।
  • Google Contacts– গুগল কন্টাক্ট ব্যবহার করলে আপনি আপনার যেকোনো কন্টাক্ট নাম্বার বা কোন ব্যাক্তির সম্পূর্ণ ইনফরমেশন রাখতে পারবেন। এমনকি আপনি তার সম্পর্কে বিস্তারিত লিখেও রাখতে পারেন। আমরা সাধারনত এর জন্য ডায়েরি ব্যবহার করে থাকি। আপনি একই সাথে অ্যান্ড্রয়েড ফোনের মাধ্যমে এই কন্টাক্ট অ্যাপস ব্যবহার করে সেভ করে রাখতে পারেন।
  • Google Cultural Institute– এই প্রোডাক্ট এর মাধ্যমে আপনি যেকোনো ধরনের কালচারাল প্রোগ্রাম ক্রিয়েট করে সবার মাঝে সেটা শেয়ার করতে পারেন। এতে করে আপনার অনলাইন একটিভিটি অনেক খুব বেশি না হলে চলবে। আপনার কালচারাল প্রোগ্রাম টি মানুষ দেখবে। আমরা ফেসবুক এ এটাকে সাধারনত ইভেন্ট বলে জানি। আপনি একই সাথে প্লেস দিয়ে ম্যাপ আকারে সবার সামনে উপস্থাপনা করতে পারবেন।
  • Google Custom Search Engine & Google Subscribed Links- গুগল এই প্রোডাক্ট টি আমরা হইত সবাই ব্যবহার করে থাকি। কিন্তু মজার বিষয় আমরা জানি না। হ্যাঁ আপনি এখানে যেয়ে আপনার সাইট এর জন্য সার্চ বক্স তৈরি করতে পারবেন। আপনি চাইলে এর কন্ট্রোল প্যানেল থেকে বিভিন্নভাবে ইডিট করতে পারবেন। এটি আপনার ভিজিটরদের জন্য অনেক সহজ করে তুল্বে আপনার সাইট এর কন্টেন্ট খুজে পেতে।
  • Google Dashboard–  গুগল ড্যাশবোর্ড একটি সাধারন ভিউ সিস্টেম। মানে আপনি গুগল এর কোন কোন প্রোডাক্টগুলো ব্যবহার করছেন এবং সে প্রোডাক্টগুলর সব কিছু একনজরে দেখতে পাবেন।
  • Google Desktop– গুগল ডেস্কটপ একটি ডেস্কটপ টুল। যা আপনি ডাউনলোড করে গুগল এর প্রোডাক্টগুলো একবারে ডেস্কটপ থেকে বসেই ব্যবহার করতে পারবেন।
  • Google Developers – এটা আসলে ডেভেলপেরদেরকে অনুপ্রাণিত করে। কারন গুগল তাদের সমস্ত ধরনের ডেভেলপমেন্টগুলো এখানে লাইভ দেই।
  • Google Docs– গুগল ডকস একটি অসাধারন প্রোডাক্ট এই কারনে যে, আপনি যেকোনো ধরনের লেখা যেটা মাইক্রোসফট ওয়ার্ড বা এক্সেল সিটে লিখেন সেইগুলো গুগল ডকস এর মাধ্যমে অনলাইন এ আপনার বন্ধু বা যে কারর সাথে শেয়ার করতে পারবেন।
  • Google Drive– গুগল ড্রাইভ একটি সুন্দর সিস্টেম বলব আমি এই কারনে যে, ১৫ জিবি জাইগা গুগল আপনাকে দিবে। আর এতে আপনি যেকোনো ধরনের ফাইল আপলোড করতে পারবেন। যদি শেয়ার করতে চান তাহলে সেটাও পারবেন। এছাড়া আরও অনেক কিছু পাওয়া যাবে। পরবর্তীতে আমি গুগল আর বিভিন্ন প্রোডাক্ট এর উপর যখন লিখব তখন বিস্তারিত আলোচনা হবে।
  • Google Earth & Google Mars – এই প্রোডাক্ট টি সম্পর্কে আমার জানামতে এমন কেউ নেই যে জানে না। কারন বেশিরভাগ ইউজার গুগল চেনার আগে এটি ইউজ করে থাকে। তাই এটার সম্পর্কে কিছু বলব না। জানতে চাইলে লিঙ্কে যেয়ে দেখুন দেখবেন ছোট বেলার কথা মনে পড়ছে। আপনার আব্বু আম্মু বলত পৃথিবীর উপরের কথা।
  • Google FeedBurner– এটাকে আরএসএস ফিড বলা হয়। অর্থাৎ এটি শুধুমাত্র ব্লগাররা ইউজ করতে পারেন তাদের ব্লগের জন্য।
  • Google Fiber– গুগল ফাইবার একটি ব্রডব্যান্ড কানেকশন সিস্টেম। গুগল চ্যালেঞ্জ এটি। তারা ১০০ গুন দ্রুত কানেকশন নেটওয়ার্ক এর জন্য চ্যালেঞ্জ নিয়েছে। এটি অবশ্যই কিছু এরিয়া ভিত্তিক করা হয়েছে।
  • Google Finance– এখান থেকে আপনি বিভিন্ন ধরনের কম্পানি যাবতীয় অফার ব্রড রেঞ্জ সহ স্টক বিজনেস মিউচুয়াল ফান্ডস এবং কোম্পানির তথ্য জানতে পারবেন। একই সাথে আপনি আপনার কোম্পানির যেকোনো ধরনের প্রোটফলিও দিতে পারবেন। তাছাড়া আপনি সারা পৃথিবীর সমস্ত ধরনের শেয়ার এর ইনফরমেশন গ্রাপ আকারে দেখতে পারবেন।
  • Google Fonts –  এটা থেকে আপনি গুগল ইউজেস বিভিন্ন ধরনের ফন্ট কালেক্ট করতে পারবেন। এটা আপনি চাইলে ডাউনলোড ও করতে পারবেন। গুগল এর ইউজেস ফন্ট গুলো আসলেই সুন্দর। চাইলে আপনি ডাউনলোড করে ইউজ করতে পারেন।
  • Google Fusion Tables–   এটি ব্যবহার করতেপারবেন ডাটা রাখার জন্য।  এটি আপনি ব্যবহার করার পর সেটা সবার সাথে শেয়ার করতে পারবেন।
  • Google Friend Connect আপনার ব্লগে কেউ ভিজিট করার পর যদি সে চাই আপনার ব্লগের সাথে সংযুক্ত হতে তাহলে আপনি তার জন্য একটি গ্যাজেট আপনার ব্লগে বসাই দিতে পারবেন। যার ফলে সে আপনার ব্লগের সাথে কানেক্ট থাকবে।
  • Google Glass– এটা গুগল এর নতুন প্রোডাক্ট। সত্যি একটি অসাধারন প্রোডাক্ট। এটি সান গ্লাস টাইপ এর কিন্তু এর দক্ষতা অনেক বেশি। সবাইকে আমি অনুরধ করব এই লিঙ্কে ক্লিক করে একবার প্রোডাক্টগুলো দেখে আসতে। পুরা বিশ্ব কে তাক লাগিয়ে দেওয়ার মত প্রোডাক্ট। আমি একটা অবশ্য অর্ডার করেছি। জানি না আসবে কি না। তবে আসবে বলে আমি আশাবাদী।
  • Google Go – এটি একটি প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ এর জন্য। যেখানে স্পষ্ট ভাবে আবার অস্পষ্ট ভাবে থাকে। পড়লেই ব্যাপারটা ক্লিয়ার হওয়া সম্ভব।
  • Google Grants– গুগল গ্রান্টস একটি প্রোফিট বিহীন অরগাইনেজেশন। যেখানে অ্যাডভারটাইজিং সিস্টেম কে আরও এগিয়ে নিয়ে যাওয়া যায় এই টুলস এর মাধ্যমে।
  • Google Groups– গুগল গ্রুপস এ যেয়ে আপনি কমন বিষয় গুলো নিয়ে আলোচনা করতে পারবেন। কোন কিছু জানার থাকলে সেটা জানতেও পারবেন।
  • Google Hangouts– এটি একটি লাইভ কনভারসেশন সিস্টেম। যেখানে ভিডিও, ছবি ইত্যাদি শেয়ার করে লাইভ কনভারসেশন করা যায়।
  • Google Ideas– টেকনোলোজি কে আরও এগিয়ে নিয়ে যেতে মুলত এটি তৈরি। এখানে সাধারন ইউজার, ইঞ্জিনিয়ার, এক্সপার্ট সবার জন্য উম্মুক্ত জাইগা। এখানে টেকনোলোজি কে আরও বাড়িয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য বিভিন্ন ধরনের রিসার্চ এবং আইডিয়া প্রদান করা হয়।
  • Google Image Search & Similar Images– গুগল ইমেজ সার্চ এর মাধ্যমে আপনি যেকোনো ইমেজ দ্বারা সার্চ করতে পারবেন। এতে করে ওই ইমেজ টি অনলাইন জগতে যেখানে থাকবে সেই সব লিঙ্ক গুলা চলে আসবে।
  • Google Input Tools– এই টুলস টি ইউজ করে যেকোনো ভাষা ব্যবহার করে সার্চ করা যাবে।
  • Google Keep– আপনি খুব দ্রুততার সাথে নোটস, লিস্ট এবং ছবি সংরক্ষণ করে রিমাইন্ড করে রাখতে পারেন।
  • Google Local Business Center– যদি আপনি একজন বিজনেস ম্যান হোন তাহলে গুগল আপনাকে এই প্রোডাক্ট এর মাধ্যমে কিছু রুলস ফলো করার পর আপনার কাস্টোমারদের কে খুজতে সাহায্য করবে। এতে দেখা যায় যে অনেক সময় অনেক প্রোডাক্ট আমরা দেখি সার্চ দিলে লোকেশন সহ চলে আসে। এটার এই একটাই কারন।
  • Google Mail (Gmail)- আমরা সবাই মনে হয় এটি ইউজ করি। গুগল মেইল চিঠি আদান প্রদান করার মত একটা অনলাইন সিস্টেম।
  • Google Maps & Google Map Maker– গুগল ম্যাপস এর মাধ্যমে আপনি লোকাল বিজনেস লোকেশন খুজতে পারেন, এমন কি ড্রাইভিং ডিরেকশন তৈরি করতে পারবেন তাছাড়া আপনি আপনার বাসা, অফিস লোকেশন সিলেক্ট করে নাম ইডিট করলে সেটা লিখে সার্চ দিল আপনার লোকেশন চলে আসবে। যা আপনার বিজনেশ কে আরও বেশি শক্তিশালী করে তোলে।
  • Google Mobile–  আপনার ফোন কে আরও আপগ্রেড করে তুলতে পারবেন গুগল এর ফ্রী প্রোডাক্ট দিয়ে।
  • Google Moderator– এই টুলস টি ব্যবহার করা হয় শুধুমাত্র ডিস্ট্রিবিউটারদের জন্য। কোন প্রশ্নের উপর ভোট , উপস্থাপন,  এবং ইভেন্টস এর জন্য এটি ব্যবহার হয়।
  • Google Moon– আপনি এখান থেকে মুন ৩ডি ভাবে দেখতে পারবেন।
  • Google Music– আপনি আপনার ফেভারিট মিউজিক এখানে আপলোড করতে পারেন।
  • Google NewsNews Archive Search & Google News Timeline – এটি ইউজ করলে আপনি বিশ্বের সব নামকরা নিউজগুলো প্রতিনিয়ত দেখতে পাবেন। প্রত্যেকটি হেড লাইন আকারে দেখতে পারবেন। চাইলে আপনি বিস্তারিত পড়তে পারবেন।
  • Google Nexus– এটি একটি মোবাইল ফোন। যা কিনা গুগল এর প্রোডাক্ট। এটি তৈরি করেছে গুগল।
  • Google Offers–  এটি ইউজ করলে জানতে পারবেন আপনি যেকোনো লোকেশনের যেকোনো প্রোডাক্ট এর উপর কি অফার চলছে সে সম্পর্কে। এমনকি আপনিও আপনার প্রোডাক্ট অফার তৈরি করতে পারবেন।
  • Google PageSpeed Insights– এটি ব্যবহার করলে আপনি আপনার সাইট কে এনালাইসিস করতে পারবেন সেই সাথে সাজেশন পাবেন। কি করলে ভাল হবে সেটা সম্পর্কে জানতে পারবেন।
  • Google PageSpeed Service– আপনার সাইট এর ব্যবহারকারীরা যাতে আরও দ্রুত সাইট এ প্রবেশ করতে পারে সেই জন্য গুগল এর এই প্রোডাক্ট।
  • Google Person Finder– এটার মাধ্যমে আপনি  মানুষ কে খুজতে পারবেন।
  • Google Play– গুগল প্লে স্টোর সমস্ত অ্যান্ড্রয়েড ব্যবহারকারীদের জন্য একটি ডিজিটাল প্লাটফর্ম। যেখানে যেয়ে আপনি আপনার অ্যান্ড্রয়েড ফোন এর জন্য যেকোনো অ্যাপস খুজে পাবেন।
  • Google Plus–  সহজ ভাষা তে বলতে গেলে গুগল প্লাস ফেসবুক এর মত। তবে সেখানে ফ্রেন্ড সহ আরও অনেক ধরনের সার্কেল তৈরি করা যায়।
  • Google Postini– আপনার ইমেইল কে আরও সিকিউর রাখার জন্য গুগল এর এই প্রোডাক্ট ।
  • Google PowerMeter– Google.org এর একটি প্রোডাক্ট। যার মুল কথা শক্তি বাচাও, টাকা বাচাও।
  • Google Product Search (Froogle)-এটির মাধ্যমে আপনি প্রোডাক্ট খুজে পাবেন বিভিন্ন ধরনের। এবং সেটি ছবি আকারে উপস্থাপন করা হয় সাথে কেনার জন্য লিঙ্ক দেওয়া হয়।
  • Google Profiles– গুগল প্রোফাইল এর মাধ্যমে মানুষ আপনার সম্পর্কে জানতে চাইল খুব দ্রুত জানতে পারবে।
  • Google Scholar– এটি একটি সার্চিং সিস্টেম। আপনি আর্টিকেল, বুকস ইত্যাদি খুব দ্রুত খুজে পেতে পারেন এই প্রোডাক্ট এর মাধ্যমে।
  • Google Self-driving Car– এটি গুগল এর একটি নতুন প্রোডাক্ট। টেকনোলোজি কে আরও অগ্রসর করতে গুগল এর এই প্রজেক্ট।
  • Google Sites– গুগল সাইট  একটি ফ্রী সহজ পদ্ধতি ওয়েবসাইট তৈরি করার জন্য।
  • Google SketchUp– এখান থেকে যে কোন কিছু ৩ ডি আকারে প্রকাশ করা যাবে, মডিফাই করা যাবে।
  • Google Sky – গুগল আকাশ টাকে আরও সহজ ভাবে দেখানর জন্য বিভিন্ন নাম্বার পয়েন্ট করে সেটা দেখানোর জন্য এই প্রোডাক্ট।
  • Google Street View– এটির মাধ্যমে আপনি বিশ্ব কে আরও সহজভাবে এক্সপলোর করতে পারবেন।
  • Google Suggest – এটির মাধ্যমে আপনার সার্চ কে আরও সহজ করে তলা হয়। বিভিন্ন ধরনের সার্চ এর উপর রিলেটেড সার্চ নিচে দেওয়া হয়।

এছাড়া গুগল আরও অনেক প্রোডাক্ট রয়েছে যেগুলো হল

একটি উত্তর ত্যাগ