কিছু ভুল, যা নতুন ফটোগ্রাফাররা করেন

0
797

ভুল, যা নতুন ফটোগ্রাফাররা করেন এবং মাঝে মধ্যেই এটা নিয়ে কথা শুনতে হয়। আজকে আলোচনা করবো সেই বিষয় গুলি; যাতে আপনি যদি নতুন ফটোগ্রাফার হয়ে থাকেন, তাহলে আপনি নিজে ঐ ভুল গুলি থেকে বাচঁতে পারবেন। আসেন তাহলে শুরু করি।

photorapher কিছু ভুল, যা নতুন ফটোগ্রাফাররা করেন

ভুল ১ঃ অতিরিক্ত এবং অস্বাভাবিক রং

আমি ছবি তোলা শুরু করবার কিছুদিনের মধ্যেই পরিচয় ঘটে Adobe Photoshop Lightroom সফটওয়্যারটির সাথে, আর যায় কোথায় কালার বাড়িয়ে অস্থির অবস্থা। ছবিটাতে আমি ইচ্ছা মত আকাশ-পানি-সূর্য সব কিছুর উপরে রং ঢেলেছি। কন্ট্রাস্ট, স্যাচুরেশন, টেম্পারেচার সব কিছু নিয়ে পরীক্ষা করে মোটামুটি সাধারণ একটি ছবিকে বানিয়েছি অস্বাভাবিক।

ছবিটি দেখলে যে কেউই বুঝবে যে আকাশের রং থেকে শুরু করে সবই ছিলো অবাস্তব এবং রং গুলি ছিলো চোখে বাঁধবার মত। প্রথম প্রথম এগুলিতে বেশ হাত তালি (ফেসবুক লাইক) পেতাম ঠিকই, তবে এখন এগুলি দেখলে এতটাই লজ্জা লাগে যে কয়েকদিন আগে ফেসবুকে একটা স্ট্যাটাস দিয়েই বসেছিলামঃ বান্দরের হাতে যেমন খুন্তা দিতে নাই, নতুন ফটোগ্রাফারের হাতেও তেমনি লাইটরুম দিতে নাই

নতুন ফটোগ্রাফাররা প্রায় প্রত্যেকেই এই ভুল করে থাকেন। ইফ ফটো ফ্যাক্টরি পেজে জেনেছেন, তাই যারা নতুন ফটোগ্রাফী করছেন, তাদের বলি, কালার পরিবর্তন এমনিতেই চলে আসবে, কালার কি করে সুন্দর করতে হয় তাও এমনিতেই শিখে যাবেন।

ভুল ২ঃ ছবি গুলি শার্প হয়না

নতুন ফটোগ্রাফারদের আর একটি ভুল হলো তাদের ছবি শার্প হয়না। হয়তো ওয়াইড লেন্স দিয়ে ম্যাক্রো কারতে গিয়ে না হয় সাটার স্পিডের সমস্যার কারণে বা হাত কেঁপে গিয়ে এই সমস্যা হয়। কিন্তু ইফ ফটো ফ্যাক্টরি পেজে জেনেছেন নতুন ফটোগ্রাফাররা এই দোষটা পুরাই চাপিয়ে দেন কিট লেন্সের উপরে। তাদের ধারণা থাকে যে কিট লেন্সে ছবি শার্প হয়না, যেটা একটা ভুল ধারণা। ছবির দিকে লক্ষ রাখতে হবে যেন ছবি শার্প হয়, ছবি যত শার্প হবে, তত ভালো। তাই বলে আবার ক্যামেরার সেটিংস থেকে শার্পনেস এত্তোগুলা বাড়ায় দিয়েন না, তাতে বরং ছবি নষ্ট হতে পারে। সেটিংস এর শার্পনেস নরমাল রেখে আপনি ভালো করে ছবি তুলুন।

ভুল ৩ঃ ছবি সোজা হয়না

নতুন ফটোগ্রাফারদের এটা অন্যতম আর একটি সমস্যা। নতুন ফটোগ্রার রা ছবির অন্য সব কিছু নিয়ে এতটাই ব্যাস্ত হয়ে পড়েন যে তাদের জন্য ছবি সোজা রাখবার কথা মনে রাখাই কষ্টের। কিন্তু একটা ছবি সামান্য একটু কাঁৎ হবার কারণেই দেখাতে পারে জঘন্য! ছবি সোজা রাখতে যে কোন একটা কিছুকে চয়েজ করুন যা সোজা আছে। নদীতে নৌকার ছবি তুললে নদীর অপর পাড়কে হিসাব করতে পারেন, রাস্তায় গাড়ির ছবি তুললে রাস্তার বর্ডারকে হিসাব করতে পারেন, ইফ ফটো ফ্যাক্টরি পেজে জেনেছেন কোন দোকানের ছবি তুললে সেই দোকানের সাটার/দরজাকে দিয়ে হিসাব করতে পারেন, স্ট্রীটফটোগ্রাফীতে খাম্বাকে হিসাব করতে পারেন।

এছাড়া আর একটা সমস্যা হয়, তা হল অনেক সময় ছবির কর্ণার skew হয়ে যায়, যেটা ফটোশপে খুব সহজেই সমাধান করা যায়, এবং ইউটিউবে প্রচুর ভিডিও টিউটোরিয়াল পাবেন।

ভুল ৪ঃ কাছে যেতে চান না

নতুন ফটোগ্রাফাররা দূর থেকেই সব তুলতে চান, কাছে যেতে চান না। কিন্তু ফটোগ্রাফার Robert Capa একবার বলেছিলেন, “যদি আপনার ছবি যথেষ্ট সুন্দর না হয়, তার অর্থ হচ্ছে আপনি কাছে যাচ্ছেন না”। তাই জুম লেন্সের কথা চিন্তা না করে বরং ওয়াইড লেন্স নিয়ে কাছে যান, এতে ল্যান্ডস্কেপ, পোট্রেইট সহ সব ছবিই সুন্দর আসবে।

ভুল ৫ঃ কন্ট্রাস্ট, এক্সপোজার, সাদা-কালো লেভেল ঠিক না থাকা

একটা সুন্দর ছবি শুধু মাত্র কন্ট্রাস্ট এক্সপোজার এবং সাদা কালোর লেভেলের জন্য খারাপ হয়ে যেতে পারে। অনেকেই ছবির কন্ট্রাস্ট এত পরিমানে বাড়িয়ে ফেলেন যে তা শুধু বিশ্রী উপমা দেওয়া যায়। এক্সপোজার এমন একটা বিষয়, যা আপনার ক্যামেরাতেই যত সম্ভব ঠিক করে নেওয়া উচিত। হ্যাঁ, অনেকেই মনে করেন যে ফটোশপ/লাইটরুম এ ঠিক করে নেওয়া যাবে, কিন্তু এমনটা মনে করা ঠিক নয়, অনেক সময় এটাই ছবি নষ্টের কারণ হয়ে দাড়াতে পারে। আর একটা ছবিতে সাদা-কালো থাকবেই, সাধারণত সাদার দিকেই মানুষের চোখ বেশী যাবে। তাই সাদা-কালোর ব্যালান্স এবং লেভেল ঠিক রাখা উচিত।

ভুল ৬ঃ HDR এ বাড়াবাড়ি

নতুন ফটোগ্রাফাররা বেশী কালারফুল ছবি চান দেখে এক সময় তাদের পরিচয় ঘটে HDR ছবির সাথে। এখানে ইচ্ছা মত রংচং করে খালি বললেই হয় যে HDR, তাতে আর কেউ মাইন্ড করে না; এমনই একটা ধারণা নতুনদের। কিন্তু HDR এও অতিরিক্ত বাড়াবাড়ির বিষয় আছে। রং বাড়াতে বাড়াতে এবং কাজ করতে করতে এমন একটা পর্যায়ে অনেকেই পৌছে যায় যে সেটা আর খারাপ ছবি হিসাবে বলা যায় না, বলা যায় জঘন্য ছবি। আমিও প্রথম প্রথম শুরু করেছিলাম।

একটি উত্তর ত্যাগ