ফটোগ্রাফার নিয়ে আমজনতার ভুল ধারনা

0
292

ফটোগ্রাফার নিয়ে আমজনতার ভুল ধারনা:

১। ফটোগ্রাফার মানেই মাগনা:
এই ধারনা হবার মূল কারণ দেশে কাউয়ার চেয়ে কবি বেশি ছিল, এখন সব কবির মাথার চুলের চেয়ে বেশি ফটোগ্রাফার। অনেকেই ছবি তোলার সুযোগ পেলে হাত পাকানোর লোভে দৌড়ে আসে, সেটা খুবই ভালো। তবে এটা দেখে অনেকেই মনে করেন যে অভিজ্ঞ ফটোগ্রাফারও তাইলে মাগনা পাওয়া যায়। কষ্টার্জিত মেধা বা জ্ঞান বাদ দেই, যেই ব্যক্তি অনেক কষ্ট করে ক্যামেরা ও ইকুইপমেন্ট কিনেছেন, তার সমস্ত যন্ত্রপাতির ৫০ ভাগের এক ভাগ দাম উনি ভাড়া হিসেবে চার্জ করলে কতটা অযৌক্তিক? ২০টাকার আলু কিনে পাতি তে নিয়ে বসলে এক ঘণ্টায় ৫টাকা লাভ করা যদি পেশা হয়, তবে ২ লক্ষ টাকার যন্ত্রপাতি ব্যাবহার করে আপনার ছবি তুলতে কেন আপনি ১০০০০টাকা খরচ করতে চাইবেন না? বড়লোকের মাম্মিড্যাডি ফটোগ্রাফার না, প্রফেশনাল প্রতিটি ফটোগ্রাফার এর ইকুইপমেন্ট কিনার গল্পটা শুনে দেখুন, সেন্টু না খেয়ে পারবেন না।

২। ভালো ফটোগ্রাফার মানে ভালো ক্যামেরা:
কার লেন্স কোন সিরিজের, কার ক্যামেরায় বিরাট ব্যাটারি গ্রীপ, কার ক্যামেরার বডি কি, এসব দিয়ে কি আসে যায় যদি ক্যামেরার ভিউফাইন্ডারের পিছনের চোখটা হয় অন্ধ, আর চোখের পিছনের মগজটা হয় বলদের? ভালো গিয়ার অবশ্যই কাজের, একজন ফটোগ্রাফারের ক্ষমতা বাড়ায়, কিন্তু ভুলবেন না লিওনার্দো দা ভিঞ্চি কোন কালি দিয়ে ছবি এঁকেছিলেন ওইটাকে কেউ বেইল দেয়নি।

৩। ওয়েডিং ফটোগ্রাফি-তো আঁক্কাছ-কুদ্দুছ ও পারেঃ
অনেকেই ভেবে থাকেন ওয়েডিং ফটোগ্রাফি মানে সেজে-গুজে পোজ দিলেই ভালো ছবি উঠে যায়। আপনার ছবিগুলো সুন্দর চাইলে খালি আপনাদের খোমা সুন্দর হলেই হবেনা, ফটোগ্রাফারেরও এলেম থাকতে হয়। যদি এলিজাবেথ টেলর এর মত বারবার বিয়ে না করে একবার/দু’বার বিয়ে করার নিয়ত থাকে, তবে এই ৪টা দিনের চমৎকার স্মৃতি সারাজীবন ধরে রাখতে আলাদা বাজেট রাখুন। রোস্ট রেজালা একবার খেয়ে মানুষ চলে যাবে, ছবিগুলো আজীবন দেখবেন।

৪। কোপাছামছু ছবি? নিশ্চয়ই ফটোশপ:
চমৎকার একটি চোখ ধাঁধানো ছবি দেখলেই ভাববেন না ফটোশপে কেরামতি করা। একজন ভালো ফটোগ্রাফার সবসময়ই টার্গেট থাকে “ইন ক্যামেরা” ছবি তুলার। ডিজিটাল যুগ আসার আগেই হাজার হাজার ফটোগ্রাফি ট্রিক ব্যবহৃত হয়ে আসছে যুগ যুগ ধরে। আর এই ডিজিটাল যুগে মানুষ আরও মজার এক্সপেরিমেন্ট করছে, কারণ এক্সপেরিমেন্টের ফলাফল জানতে ডার্করুম যাওয়া লাগছেনা, এলসিডি’তেই দেখা যাচ্ছে।

৫। আরও সস্তা ফটোগ্রাফার আছে মার্কেটে:
অবশ্যই আছে। কম্পিটিশনের যুগে অনেক সস্তায় অনেক ভালো ছবি তুলে দেবে এমন মানুষ আছে। কিন্তু এটা ভুলবেন না, যে মানুষটা অনেকদিন ছবি তুলছে তার ভুল হবার সম্ভাবনা কম, আর সস্তার তিন অবস্থা। আপাতদৃষ্টিতে মনে হবে একই, গ্যাঞ্জামটা গভীরে।

collected

ফেসবুকে আমি

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here

five × one =