যে সকল কারনে ফ্রি ফেসবুক ব্যবহারের বিপক্ষে অনেকেই

0
338

যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক একটি ফ্রি প্লাটফর্ম। যে কারণে ফেসবুক ব্যবহারের জন্য গ্রাহকদের কোন প্রকার অর্থ দিতে হয় না। ফেসবুকে ব্যবহার করে গ্রাহকরা বিভিন্ন উপাদান সম্পূর্ণ বিনামূল্যে শেয়ার করতে পারে। কিন্তু অনেক ইন্টারনেট সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠান ও ব্যক্তি যৌক্তিক কিছু কারণে ফেসবুকের এই নিয়মের বিরুদ্ধে। ঠিক কোন কারণে বা যুক্তিতে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান বা ব্যক্তি ফেসবুকের বিনামূল্যে ব্যবহারের নীতির বিরুদ্ধে, তা নিয়ে আমাদের সময়ের বিশেষ প্রতিবেদন।

১. ফেসবুকের সকল ধরণের অ্যাপস ও সফটওয়্যার পাওয়া যায় না। কেবলমাত্র সেই সকল অ্যাপসই ফেসবুকে ব্যবহার করা যায়, যা ফেসবুক কর্তৃপক্ষ ব্যবহারের অনুমতি দেয়। যা গ্রাহকদের অনেক সুবধিা থেকে বঞ্চিত করে। ফেসবুকের এই নীতি গ্রাহকদের একমুখী সংকীর্ণ করে তোলে বলে মনে করেন ইন্টারনেট বিশেষহজ্ঞরা। ফেসবুক যাতে নিজেদের নীতি থেকে সরে এসে গ্রাহকদের সকল ধরণের সার্ভিস ব্যবহার করতে দিতে পারে, তার জন্য এই বিরোধিতা।

২. ফেসবুক অনুমোদিত বিভিন্ন অ্যাপস, সার্ভিস ও ওয়েবসাইটে প্রবেশের ক্ষেত্রে ফেসবুকের সকল গ্রাহকই সমান গতি পেয়ে থাকেন। ফেসবুক ব্যবহারীদের কাছে এই সকল সার্ভিস, অ্যাপস ও ওয়েবসাইটগুলো সমান মূল্যের মনে হয়। কিন্তু বাস্তবে তা নয়। বিনামূল্যে ব্যবহার করার কারণে গ্রাহকরা এই সকল সার্ভিসের মূল্যও বোঝে না। আর এই কারণেই অনেকে বিনা অর্থে ওয়েবসাইট পরিভ্রমণের বিপক্ষে।

৩. ফেসবুকের নীতির সাথে মেলে না, এমন কোন সার্ভিস ফেসবুকে ব্যবহার করা যায় না। মূলত যে সব সার্ভিস ফেসবুক কর্তৃপক্ষ অনুমোদন করে, গ্রাহক কেবল তাই ব্যহার করতে পারেন। ফলে সার্ভিসের ব্যবহারের ক্ষেত্রে ফেসবুক একনায়কত্ব জারি করতে পারে। ফেসবুকের এই নীতির কারণে ফেসবুকে উচ্চ রেজুলেশন বিশিষ্ট ছবি আপলোড করা ও ভয়েস কল করা যায় না।

৪. ফেসবুক ব্যবহার করে কোন ধরণের আর্থিক লেনদেন অনিরাপদ। এছাড়া যাবতীয় অনলাইন শপিং, ক্রেডিট হস্তান্তর সংক্রান্ত বিষয়গুলো ফেসবুকে নিষিদ্ধ। কিন্তু ইন্টারনেট বিশেষজ্ঞরা ফেসবুকে এই সার্ভিসগুলো চালু করার পক্ষে। কিন্তু ফেসবুকের বিনা অর্থে ব্যবহারের নীতি এই পদক্ষেপকে বাধাগ্রস্থ করছে।

৫. বর্তমানে মোবাইল ফোন কোম্পানিগুলো উচ্চ প্রযুক্তির মোবাইল ফোন বাজারজাত করছে। যেগুলো ব্যবহার করে উচ্চ রেজুলেশন বিশিষ্ট ছবি তোলা যায়। এমনকি যে কোন ধরণের ডাটা, অর্থ হস্তান্তরও করা যায়। ভিডিও বা ভয়েস কলের সুবিধা তো আছেই। কিন্তু ফেসুবকের নীতির সাথে না মেলার কারণে ফেসবুক ব্যবহারকারীরা এই সকল সুবিধা ব্যবহার করতে পারেন না। কিন্তু আধুনিক বিশ্বের সাথে তাল মিলিয়ে চলার জন্য এই সকল প্রযুক্তি ব্যবহার করা আবশ্যক। ফলে এই সকল সুবিধা ব্যবহার করতে দেওয়ার জন্য ইন্টারনেট বিশেষজ্ঞরা ফেসবুকের বিনা মূল্যে ব্যবহারের নীতি পরিহারের পক্ষে।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here

four × one =