কম্পিউটারে হোয়াটসঅ্যাপের কিছু সীমাবদ্ধতা

1
390

মোবাইলে ফ্রি মেসেজিং, ছবি ও অন্যান্য ফাইল খুব সহজেই পাঠানোর সুবিধার জন্য বিশ্বে সবচেয়ে জনপ্রিয় মেসেজিং সেবা হোয়াটসঅ্যাপ। বর্তমানে প্রতি মাসে ৭০০ মিলিয়ন সক্রিয় ব্যবহারকারী রয়েছে এই মোবাইল অ্যাপটির। দীর্ঘ প্রতিক্ষার পর ডেস্কটপ, ল্যাপটপ ব্যবহারকারীদের জন্যও সম্প্রতি উন্মুক্ত করা হয়েছে হোয়াটসঅ্যাপ মেসেজিং সেবা।

হোয়াটসঅ্যাপের কিছু সীমাবদ্ধতা কম্পিউটারে হোয়াটসঅ্যাপের কিছু সীমাবদ্ধতা

তবে কম্পিউটারে হোয়াটসঅ্যাপের কিছু সীমাবদ্ধতা রয়েছে।

* আইফোন সমর্থন করবে না: ওয়েবের জন্য হোয়াটসঅ্যাপ মূলত তার সার্ভারের মাধ্যমে স্মার্টফোন এবং ব্রাউজার মধ্যে বার্তা সিঙ্ক করে। তবে অ্যাপলের প্ল্যাটফর্মের সীমাবদ্ধতার কারণে আপাতত আইফোন ব্যবহারকারীদের ক্ষেত্রে ডেস্কটপে হোয়াটসঅ্যাপ মেসেজিং সেবা সমর্থন করবে না।

* মোবাইল সবসময় চালু এবং ইন্টারনেট থাকতে হবে: মোবাইলের কিউআর কোডের ছবির মাধ্যমে কম্পিউটারের হোয়াটসঅ্যাপ চালু করার পর, কম্পিউটারের ক্রোম ব্রাউজার থেকে মোবাইল ব্যবহারকারীদের সঙ্গে মেসেজ আদান-প্রদান করা যাবে। কিন্তু এক্ষেত্রে একটি সমস্যা হচ্ছে, মোবাইলে ইন্টারনেটের ডাটা যদি শেষ হয়ে যায় তাহলে হোয়াটসঅ্যাপের ওয়েব ভারসনও অফ লাইনে চলে যাবে। ডেস্কটপে হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহারের ক্ষেত্রে মোবাইলেও সবসময় ইন্টারনেট অ্যাকটিভ থাকতে হবে।

* কেবলমাত্র গুগল ক্রোম ব্রাউজার সাপোর্ট করবে: হোয়াটসঅ্যাপের ওয়েব ইন্টারফেস কেবলমাত্র গুগল ক্রোম ব্রাউজারে ব্যবহার করা যাবে। মজিলা ফায়ারফক্স, ইন্টারনেট এক্সপ্লোরার কিংবা সাফারি ব্রাউজারে এ সুবিধা পাওয়া যাবে না। এ ব্যাপারে হোয়াটসঅ্যাপ কর্তৃপক্ষের বক্তব্য হচ্ছে, ক্রোম ব্রাউজারের পুশ প্রযুক্তি অনেক বেশি উন্নত।

* ব্লক করা যাবে না কোনো ব্যবহারকারীকে: কোনো হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহারকারীকে ব্লক করতে চাইলে, তা আগের মতোই মোবাইলের মাধ্যমে করা লাগবে।  কেননা ওয়েব ভারসনে ব্লক ফিচারটি নেই।

* গ্রুপ তৈরি করা বা বাদ দেওয়া যাবে না: ওয়েব ভারসনের মাধ্যমে সরাসরি কোনো গ্রুপ তৈরি করা বা কোনো গ্রুপ বাতিল করা যাবে না। এটি মোবাইল থেকেই করতে হবে। এ ছাড়া ওয়েব ভারসনের মাধ্যমে ব্রডকাস্ট মেসেজ পাঠানো যাবে না।

ল্যাপটপ ও ডেস্কটপ কম্পিউটারে যেভাবে চালু করা যাবে হোয়াটসঅ্যাপ:

প্রথমে কম্পিউটারে গুগল ক্রোম ব্রাউজার থেকে https://web.whatsapp.com ঠিকানায় যান। এবার আপনার অ্যান্ড্রয়েড বা উইন্ডোজ ফোনে গিয়ে হোয়াটসঅ্যাপ খুলুন। এক্ষেত্রে হোয়াটসঅ্যাপের লেটেস্ট ভারসনটি মোবাইলে থাকতে হবে। গুগল প্লে স্টোর বা উইন্ডোজ অ্যাপ স্টোর থেকে সহজেই লেটেস্ট ভারসনটি আপডেট করে নেয়া যাবে।

এবার হোয়াটসঅ্যাপ খুললেই পাওয়া যাবে নতুন একটি মেনু, যার নাম ‘হোয়াটস অ্যাপ ওয়েব’। এতে ক্লিক করলে মোবাইলের স্ক্রিনে একটি কিউআর কোড স্ক্যান অপশন চলে এসেছে। এটি কম্পিউটারে প্রবেশ করালেই চালু হয়ে যাবে ওয়েব হোয়াটস অ্যাপ।

1 মন্তব্য

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here

15 + five =