ইন্ডিয়ান ভিসার এপয়েন্টমেন্ট ডেট নেওয়ার A to Z দিক নির্দেশনা

0
424

আসসালামুওয়ালাইকুম।

অনেকদিন টেকটিউন্সে পোস্ট করা হয় না। পড়াশুনার চাপের কারনে তেমন টিউন করা হয়ে উঠে না। তবে আজ আমি আপনাদের মাঝে অনেকের প্রয়োজন, এমন একটা পোস্ট নিয়ে হাজির হয়েছি। আমরা অনেকেই ইন্ডিয়ান ভিসার কাজ করি অথবা করতে চাই। কিন্তু সঠিক দিকনির্দেশনার অভাবে অনেকেই এই কাজটি করতে পারি না। আবার অনেকে আগে ডেট পেত কিন্তু এখন আর ডেট পাচ্ছেন না। অনেকে আবার ডেট পেলেও পেমেন্ট না পেয়ে প্রতারিত হচ্ছেন।ভারতীয় হাই কমিশনের সার্ভারের এই দুরবস্তার মধ্যেও আপনি কিভাবে ডেট পেতে পারেন তার কিছু টিউটোরিয়াল নিয়ে আমি হাজির হয়েছি । আশাকরি, আমার এই পোস্ট হতে কিছুটা হলেও আপনারা উপকৃত হবেন। আমার পোস্টে যদি কোন ভুলত্রুটি থেকে থাকে , তার জন্য আমি আগে থেকেই ক্ষমা চেয়ে নিচ্ছি।

ইন্ডিয়ান ভিসার এপয়েন্টমেন্ট ডেট নেওয়ার A to Z দিক নির্দেশনা

কিছু কথাঃ বর্তমানে ইন্ডিয়ান ভিসার এপয়েন্টমেন্ট ডেট পাওয়াটা আগের থেকে অনেক কঠিন হয়ে গিয়েছে। সাধারন মানুষের পক্ষে এত ঝামেলা করে ডেট নেওয়াটা অনেক দুরুহ বেপার। তাই তারা এক্সপার্টের নিকট কাজ দিয়ে থাকে, এই কাজের বিনিময়ে ওয়ার্কারেরা কিছু পেমেন্ট পেয়ে থাকে। আসলে এই ডেট নেওয়ার বিষয়টাকে ঘিরে এক বিশাল বানিজ্য তৈরি হয়েছে। তবে যারা কাজ করেন তাদের কোন মতেই দোষ দেওয়াটা উচিত নয়। ইন্ডিয়ান এম্বাসি যদি ইচ্ছে করে তাদের সার্ভার ডাউন না করে রাখত, তাহলে এইরকম বানিজ্যের সৃষ্টি হতে পারত না। তাছাড়া এইকাজে একেবারেই যে, পরিশ্রম নেই, তা তো নয়। আমরা যারা এই বিষয়ে কাজ করি তারা ভালোমতই জানি কত কষ্ট করে ডেট পেতে হয়। আর যদি এপয়েন্টমেন্ট ডেট নেওয়ার জন্য ওয়ার্কারেরা কাজ না করত তাহলে সাধারন মানুষের কাছে ইন্ডিয়াতে যাওয়াটা আরও দুরুহ হয়ে পরত। আমি ইন্ডিয়ান এম্বাসির এই সিস্টেমকে ঘৃণা করি এবং যাতে সবাই ডেট পায় সেই জন্য প্রার্থনা করি। আশাকরি অতি শীঘ্রই ইন্ডিয়ান এম্বাসি এর সার্ভার ঠিক হয়ে যাবে।

ইন্ডিয়ান ভিসার এপয়েন্টমেন্ট ডেট নেওয়ার A to Z দিক নির্দেশনা

ইন্ডিয়ান ভিসার ডেট পেতে হলে আমাদের কিছু সিস্টেমের প্রয়োজন রয়েছে। তো চলুন দেখে নেই কি কি দরকার আমাদের…

ইন্ডিয়ান ভিসার এপয়েন্টমেন্ট ডেট নেওয়ার A to Z দিক নির্দেশনা

১। পার্সোনাল কম্পিউটার (PC) : আপনি যদি ইন্ডিয়ান ভিসার কাজ করতে চান তাহলে প্রথমেই আপনার একটা পার্সোনাল কম্পিউটার অথবা পিসি এর প্রয়োজন ( মোবাইল দিয়ে কতটুকু করা যায় সেই বিষয়ে আমি আবগত নই :P )

 

 

ইন্ডিয়ান ভিসার এপয়েন্টমেন্ট ডেট নেওয়ার A to Z দিক নির্দেশনা2. হাই স্পিড ইন্টারনেটঃ ইন্ডিয়ার ভিসার সাইট, কাজের সময় প্রচুর বিজি থাকে । এই বিজি সার্ভারের মধ্যেই আপনাকে কাজ করতে হবে। বস ( সার্ভার) বিজি থাকতে -থাকতে যখনই ফ্রী হয়ে আপনার দিকে দয়া …… করবে তখনই যদি আপনি নীরবতা পালন করেন ( নেট স্পীড কম হলে) তাহলে আপনার কপালে আর ডেট জুটবে না। এজন্য আপনাকে হাই স্পীড নেট ব্যবহার করতে হবে । আপনি ভালো স্পীড এর জন্য কিউবি , বাংলালায়ন ব্যবহার করতে পারেন। এছাড়া গ্রামীনফোন থ্রিজি , রবি থ্রিজি , এয়ারটেল থ্রিজি , বাংলালিঙ্ক থ্রিজি এর ভিতরে আপনার এলাকায় যে আই এস পি এর ইন্টারনেট ভালো সেটি ব্যবহার করতে পারেন। আপনি হাই স্পীড ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেট কানেকশনও ব্যবহার করতে পারেন।

 

ইন্ডিয়ান ভিসার এপয়েন্টমেন্ট ডেট নেওয়ার A to Z দিক নির্দেশনা৩. লাইট উইন্ডোজ: আপনার সব কিছুই আছে কিন্তু আপনার উইন্ডোজ এতই স্লো যে, উইন্ডোজ ঠিকমত রেসপন্স করতে পারল না , তাহলে সব জলে যাবে।

 

 

ইন্ডিয়ান ভিসার এপয়েন্টমেন্ট ডেট নেওয়ার A to Z দিক নির্দেশনা

৪. নিরবিচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ প্রবাহঃ  যাই থাকুক না কেন সময়কালে কারেন্ট গেলে কোন কাজ হবে না :P ।

 

 

 

উপরোক্ত সবকিছুই যদি আপনার থাকে তাহলে আপনি পরবর্তি ধাপের জন্য প্রস্তুত।

ইন্ডিয়ান ভিসার কাজ করতে হলে আপনাকে ব্রাউজার  এবং এডঅন ইন্সটল করতে হবে। তো চলুন দেখা যাক কোন ব্রাউজার এবং এডঅন আমাদের প্রয়োজন।

ইন্ডিয়ান ভিসার এপয়েন্টমেন্ট ডেট নেওয়ার A to Z দিক নির্দেশনা১। মজিলা ফায়ারফক্স ব্রাউজারঃ অনেকে গুগল ক্রোম অথবা অপেরা মিনি দিয়েও কাজ করে থাকে , কিন্তু আমার টিউটোরিয়ালে মজিলা ফায়ারফক্স ব্যবহার করা হয়েছে। আপনি এই কাজের জন্য ফায়ারফক্সের সর্বশেষ ভার্শনের ব্রাউজার ব্যবহার করবেন। এখান থেকে মজিলা ফায়ার ফক্সের সর্বশেষ ভার্শনের ব্রাউজার ডাউনলোড করতে পারেন।

 

 

ইন্ডিয়ান ভিসার এপয়েন্টমেন্ট ডেট নেওয়ার A to Z দিক নির্দেশনা২। ফায়ারফক্স এডঅনঃ ফায়ারফক্সে আপনাকে কিছু এডন ইন্সটল করতে হবে। আমরা নিচ থেকে এডঅন গুলি ইন্সটল করতে পারি।

 

 

 

*Reload Every

*Toggle Javascript

*Phoenix Editor

*MultiFox

*Fill Form

*iMacros for Firefox

এবার আসি কিভাবে আমরা এই বিজি সার্ভারের মধ্য থেকেও ডেট পেতে পারি। প্রথমে দেখাব কিভাবে BGDD ফাইল হতে ডেট নিতে হয়, যদিও অনেকে Temporary File দিয়ে ডেট নিয়ে থাকে তবুও নতুনরা প্রথমে এই সিস্টেমটা শিখে নিতে পারেন। নিচের টিউটোরিয়ালে কিভাবে BGDD ফাইল হতে ডেট নিতে হয় তার বেসিক দেখানো হয়েছে।

আপনি যদি BGDD ফাইল দিয়ে কাজ করতে চান তাহলে আপনাকে চারটি ইনফরমেশন দেওয়া হবে।

১. ইন্ডিয়ান মিশন নেম

২. আপ্লিকেশন আইডি

৩. ডেট অফ বার্থ

৪. পাসপোর্ট নাম্বার

চলুন দেখা যাক কিভাবে BGDD ফাইল হতে ডেট নেওয়া যায়।

একই ফর্ম যাতে বারবার পূরন করতে না হয় তার জন্য আপনারা এই টিউটোরিয়ালটি দেখতে পারেন।

আপনি টেম্পরারি ফাইল থেকেও এপয়েন্টমেন্ট ডেট পেতে পারেন। অনেকেই টেম্পরারি ফাইল ব্যবহার করে ইন্ডিয়ান ভিসার ডেট নিয়ে থাকে। আপনি যদি টেম্পরারি ফাইল দিয়ে কাজ করেন তাহলে আপনাকে একটা টেম্পরারি ফাইল নাম্বার দেওয়া হবে। অনেক সময় বলা হয়ে থাকে টেম্পের ভিতরে যেন কোন চেঞ্জ না হয়। আবার আপনি একটা টেম্প থেকে অনেকগুলো টেম্প তৈরি করে যদি কাজ করেন তাহলে কাজ উঠার সম্ভাবনা আরো অনেকগুন বেড়ে যায়।

চলুন দেখে নেওয়া যাক কিভাবে একটা টেম্প থেকে সহজেই অনেকগুলো টেম্প তৈরি করা যায়।

এবার আসি মূল টিউটোরিয়ালে। অনেকেই শুনে থাকবেন যে টেম্পরারি ফাইল হতে ডেট পাওয়া যায় । কিন্তু সার্ভারের যে অবস্থা থাকে তাতে অনেকেই ফাইল সাজাতে ব্যর্থ হন। আবার অনেকেই এই সিস্টেম  জানেনই না। এই টিউটোরিয়ালে কিভাবে টেম্পরারি ফাইল হতে ডেট নেওয়া যায় তার A to Z দেওয়া রয়েছে।

এই পোস্টে যে কোডটি ব্যবহার করা হয়েছে সেটি পাবেন এইখানে

আশাকরি আমার পোস্টটি আপনাদের কাজে আসবে। এই পোস্ট থেকে কেও , সামান্য উপকার পেলেও , আমার পোস্ট করা সার্থক । আর কোন রকমের সমস্যা হলে নিচে কমেন্ট করতে ভূলবেন না।

এইরকম নতুন এবং আপডেট টিউটোরিয়াল পেতে এইখানে ভিজিট করতে পারেন ।

আপনাদের কারো যদি ফাইলের দরকার হয় তাহলে আপনারা এই নাম্বারে   01703-33 00 75   যোগাযোগ করতে পারেন অথবা  এইখানে দেখতে পারেন।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here

1 × 2 =