ফেসবুকের নতুন একটি ‘টুল’ যা মানুষের আত্মহত্যা ঠেকাবে

0
372

আত্মহত্যা প্রবণতা রুখতে ফেসবুক চালু করল নতুন ‘টুল’। এই নতুন টুলের মাধ্যমে ‘বন্ধু তালিকায়’ থাকা কেউ যদি আত্মহত্যা সম্পর্কিত তথ্য আপলোড করে তাহলে স্বয়ংক্রিয়ভাবে তার কাছে পৌঁছে যাবে আশাপ্রদ বার্তা।

ফেসবুকের একজন কৌশল প্রণেতা হলি হেদারিংটন বিবিসিকে জানিয়েছেন এমনটাই। তিনি বলেন, মাঝেমধ্যেই অামি ফেসবুকে আত্মহত্যা প্রবণ বন্ধুবান্ধবকে পর্যবেক্ষণ করি কিন্তু তার জন্যে কিছুই করতে পারি না। আগে অনেকবারই এমনটি হয়েছে যে, কেউ আত্মহত্যা করার মনোভাব নিয়ে ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়েছে কিন্তু তাকে বাঁচাতে সময়মত কিছুই করা সম্ভব হয়নি।

মানসিক স্বাস্থ্য নিয়ে কাজ করে এমন বেশকটি সংগঠনের সঙ্গে একত্রে ফেসবুক এমন একটি টুল চালু করল যা ফেসবুক ব্যবহারকারীদের আত্মহননে নিরুৎসাহিত করবে।

নতুন টুল ফেসবুকের নতুন একটি 'টুল' যা মানুষের আত্মহত্যা ঠেকাবে

কেউ যদি লক্ষ্য করে যে, বন্ধুতালিকায় কেউ আত্মহত্যাপ্রবণ স্ট্যাটাস পোস্ট করেছে তাহলে এই টুল ব্যবহার করে সেটিকে ‘ফ্ল্যাগ’ অর্থাৎ চিহ্নিত করতে পারবে। চিহ্নিত করার পর ফেসবুক থেকে কী করা যেতে পারে এমন বিকল্প ‘সাজেস্ট’ করবে।

যখন পোস্টটি ফ্ল্যাগড অর্থাৎ চিহ্নিত হয়ে যাবে যুক্তরাষ্ট্র, ডাবলিন ও ভারতের ফেসবুক কর্তৃপক্ষ সেটিকে পরীক্ষা করে দেখবে যে সেটি আশঙ্ককাজনক কিনা। কোনও কম্পিউটার প্রোগ্রাম বা যান্ত্রিক উপায়ে নয় বরং রক্তমাংসের মানুষই মূল্যায়ন করবে এই অবস্থা। মূল্যায়নের পর যদি ব্যবহারকারীর অবস্থা আশঙ্ককাজনক মনে হয় তাহলে ব্যবহারকারীর পরিবর্তে ফেসবুকে লগ ইন করার সঙ্গে সঙ্গে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ তার সঙ্গে যোগাযোগ করবে।

এই টুল আসলে কতখানি কার্যকর হবে সে বিষয়ে জানতে চাইলে ইউনিভার্সিটি অব ওয়াশিংটনের সোশ্যাল ওয়ার্ক -এর অ্যাসোসিয়েট প্রফেসর জেনিফার স্টাবার আশার বানীই শুনিয়েছেন প্রযুক্তি বিষয়ক পত্রিকা টেকটাইমসকে। তিনি বলেন, লোকে সারাক্ষণ ফেসবুকে বসে আছে। সুতরাং আত্মঘাতী ব্যক্তির সঙ্গে যোগাযোগের একটা একটা সুযোগ থেকেই যায়।

এই এই টুল শুধুমাত্র যুক্তরাষ্ট্রেই ব্যবহার করা যাবে। পৃথিবীর অন্যান্য অংশের লোকে কবে কীভাবে এই টুল ব্যবহারের সুযোগ পাবে তা এখনও নির্দিষ্ট করে জানায়নি ফেসবুক কর্তৃপক্ষ।

LEAVE A REPLY

16 + twenty =