আপনার ব্লগ থেকে ভিজিটর হারানোর প্রধান ৩টি কারণ ও তার সমাধান। হয়তো এর কারণেই আপনার ব্লগটি আলোর মুখ দেখছে না।

0
378

আস্সালামুয়ালাইকুম, আশা করি সকলেই ভালো আছেন । কথা না বাড়িয়ে সরাসরি কাজে চলে আসি। আজকের পোস্টটি ব্লগিং টিপস নিয়ে। আশা করি টিপসগুলো সবার কাজে লাগবে।

Reasons Of Losing Blog Visitors আপনার ব্লগ থেকে ভিজিটর হারানোর প্রধান ৩টি কারণ ও তার সমাধান। হয়তো এর কারণেই আপনার ব্লগটি আলোর মুখ দেখছে না।

আজকের পোস্টে আমি তুলে ধরতে যাচ্ছি সে সকল ত্রুটি যার কারনে আপনার ব্লগে ভিজিটর বার বার ফিরে আসতে চায় না, সেসকল ত্রুটি যা আপনার ব্লগকে কখনো আলোর মুখ দেখতে দেবে না। আমি নিচে কিছু ত্রুটি উল্লেখ করলাম, হয়তো এগুলোর কারণেই আপনার ব্লগটি এখন প্রায় অচল অবস্থায় আছে।

১।খারাপ ডিজাইনঃ এটি অনেক ক্ষেত্রেই ভিজিটর না পাওয়ার মূল কারণ হয়ে দাড়ায়। আপনি যদি আপনার ব্লগটিকে জনপ্রিয় করে তুলতে চান তবে আপনাকে শুরুতেই একটি ভালো ডিজাইনের টেম্পলেট বেছে নিতে হবে। ব্লগারের ডিফল্ট থিম ব্যাবহার করার চেয়ে একটি সুন্দর দেখে ফ্রী টেম্পলেট ব্যাবহার করাই ভালো। গুগলে আপনি এরকম থিম অনেক খুঁজে পাবেন।

তবে সকল ব্লগের জন্য একি টাইপের টেম্পলেট ব্যাবহার করবেন না। যদি আপনার ব্লগ টেকনোলজি বিষয়ক হয় তবে একরকম, যদি বিজনেস বিষয়ক হয় তাহলে আরেক রকম ও যদি ফ্যাশন বিষয়ক হয় তাহলে ভিন্ন রকম টেম্পলেট ব্যাবহার করুন। এককথায় খুবি সুন্দর টেম্পলেট লাগিয়ে আপনার ব্লগটিকে সাজিয়ে তুলুন।

যদি আপনি কনফিউজ্ড‌ হন যে, আপনার টেম্পলেটটি সুন্দর হয়েছে কিনা তখন আপনি আপনার বন্ধুদের কাছ থেকে মতামত নিতে পারেন। তবে শুধুমাত্র ক্লোজ ফ্রেন্ডদের কাছ থেকেই মতামত নেয়া ভালো, যারা আপনার ভালো চায়। ব্লগের ডিজাইন ভালো হলে একজন ভিজিটর আপনার ব্লগটিকে আবার ভিজিট করতে কিছুটা হলেও উৎসাহিত হবে।

২।হ-জ-ব-র-ল উইথ গ্যাঁজেট্সঃ  প্রথম প্রথম অধিকাংশ ব্লগাররা এই ভুলটি করে থাকে। শুরুর দিকে কিছু মজার গ্যাঁজেট্স বা উইজেট্‌স দেখে সেগুলো তাদের ব্লগে প্রয়োগ করে। যেমনঃ আইপি লোকেটর, ইউটিউব ডাউনলোডার, ইন্টারন্যাশনাল টাইম ক্লক ইত্যাদি ইত্যাদি। কিন্তু এগুলো পেজের লোডিঙ টাইম বাড়িয়ে দেয়, আর একটি জরিপ থেকে জানা গেছে বেশিরভাগ লোক সেসকল সাইট দ্বিতীয়বার ভিজিট করতে চায় না যেগুলো লোড হতে সাত সেকেন্ডের বেশী সময় নেয়।

সুতরাং, কখনই অপ্রয়োজনে এগুলো ব্যাবহার করবেন না  যদি নরমাল ভিজিটরকে রেগুলার ভিজিটরে পরিণত করতে চান।

৩।অ্যাড সঙ্ক্রান্ত যত ভুলঃ 

৩.১ অনেকেই ব্লগ খুলতে না খুলতেই অ্যাড সেট করে বসে থাকে, যখন কিনা তার উচিৎ তার ব্লগটিকে প্রোমোট করা। এটি একেবারেই করবেন না। এতে আপনি অনেকের চোখেই খারাপ হয়ে যাবেন।

৩.২  অনেক সময় অতিরিক্ত অ্যাড আপনার ব্লগকে ডুবাতে পারে। লোকে মনে করবে আপনি শুধুমাত্র টাকার জন্য সাইট চালাচ্ছেন, তবে এটি কোন বড় সমস্যা হবে না যদি আপনি আপনি আপনার ব্লগের পোস্টগুলো সুন্দরমতো সাজিয়ে,গুছিয়ে,ফুটিয়ে তুলতে পারেন। কিন্তু বেশি অ্যাড ব্যাবহার না করাটাই শ্রেয়, কেননা এটি আপনার সাইটের লোডিঙ টাইম বাড়িয়ে দিবে।

৩.৩ এটিও একটি কমন ভুল, অ্যাড প্লেসমেন্ট ঠিক না রাখা। আপনি যদি কোন পরিকল্পনা ছাড়াই আপনার ব্লগে অ্যাড বসিয়ে যান তাহলে আপনার ব্লগের সৌন্দর্য নষ্ট হবে। এজন্য পরিকল্পনা করে অ্যাড প্লেস করবেন।

আপনি ব্লগের বিভিন্ন জায়গায় অ্যাড দিতে পারেন, যেমন ব্লগের উপর ডানে বা বামে, ব্লগের সর্বনিম্নে ডান বা বাম কোনায়, পোস্টের দুটি প্যাড়ার মাঝখানে।

৩.৪ এছাড়া কিছু টাইপের অ্যাড দেয়া থেকে বিরত থাকা ভালো, যেমনঃ পপ-আপ অ্যাড, পপ-ইন অ্যাড, ফ্ল্যাশ অ্যাড ইত্যাদি। এর কারণ হল এসবের কারনে ভিজিটর বিরক্ত হয় ও তাদের ইন্টারনেট ডেটা ওয়েস্ট করে করtতে বাধ্য করে। এতে করে ভিজিটরের সংখ্যা কমে যায়।

৪। কপি বা অনুবাদ করে ব্লগ চালানোর ট্রাই করাঃ এটি খুবি সিম্পল, আপনাকে নিজের ব্লগ চালাতে হলে নিজেকে পোস্ট তৈরি করতে হবে। কখনো কারো লেখা কপি করবেন না বা ঘুরিয়ে লিখবেন না, এমনকি ইংরেজি কোন সাইটের অনুবাদ করে নিজের বলে চালিয়ে দেয়ার চেষ্টা করবেন না।

মনে রাখবেন, চুরি বিদ্যা মহা বিদ্যা যদি না পর ধরা, কিন্তু এটিও সত্যি যে, চোরের দশদিন, সাধুর একদিন। তাই কখনো এধরনের কাজ করবেন না, তবে ধারনা নিয়ে নিজের ভাষায় লিখতে পারেন। একটি কথাকে অনেকভাবে লেখা যায়,  আপনার পোস্টটি লিখতে হবে নিজের মেধা খাটিয়ে। চেষ্টা করতে থাকুন, অবশ্যই পারবেন ভালো পোস্ট লিখতে।

চাইলে এরকম আরও অনেক কিছু লেখা যাবে, কিন্তু আজকে এপর্যন্তই রাখলাম। ভালো লাগলে প্লিজ শেয়ার করবেন,

আমার ছোট একটি ব্লগ রয়েছে, চাইলে ভিজিট করে আসতে পারেন। Www.TechTrackNews.Blogspot.Com

 

একটি উত্তর ত্যাগ