মাউস অথবা কীবোর্ড প্রয়োজন নেই এমন কম্পিউটার আসছে

0
301

এইচপির স্প্রাউট পিসিট্যাব ও স্মার্টফোনের নকশায় যেভাবে নিত্যনতুন পরিবর্তন আসছে, ডেস্কটপ পিসির নকশা সে বিবেচনায় এখনো যেন আদিকালেই রয়ে গেছে। কিন্তু হিউলেট প্যাকার্ড (এইচপি) সম্প্রতি পিসির নকশায় পরিবর্তন আনার চেষ্টা করছে।

সম্প্রতি প্রচলিত মাউস বা কিবোর্ডের মাধ্যমে কম্পিউটার নিয়ন্ত্রণ ব্যবস্থার পরিবর্তে একটি কম্পিউটারে টাচ ম্যাট ও বিল্ট ইন থ্রিডি ক্যামেরা যুক্ত করেছে এইচপি। এইচপির এই প্রকল্পের কম্পিউটারের নাম স্প্রাউট; যা ম্যাটের ওপর গ্রাফিকস তৈরি করে ব্যবহারকারীকে কম্পিউটার নিয়ন্ত্রণের সুবিধা দেয়। এ ছাড়া এই কম্পিউটারটি থ্রিডি প্রিন্টার ফাইল তৈরি করতে পারে, যা স্ক্রিনে নিয়ে সম্পাদনা করার সুযোগও থাকে। অর্থাৎ এই কম্পিউটার থ্রিডি প্রিন্টিংয়ে ব্যবহার করা যায়। যুক্তরাষ্ট্রে এই পিসিটি এক হাজার ৯০০ মার্কিন ডলার দামে বিক্রি করছে এইচপি।

অথবা কীবোর্ড প্রয়োজন নেই মাউস অথবা কীবোর্ড প্রয়োজন নেই এমন কম্পিউটার আসছে

বাজার বিশ্লেষকেরা বলছেন, এইচপি এমন সময়ে নতুন ধরনের পিসি বাজারে এনেছে, যখন তাদের ক্রান্তিলগ্ন চলছে। এক সময়ে পিসির বাজারে শীর্ষে ছিল এইচপি। কিন্তু ২০১২ সালে এইচপিকে টপকে পিসির বাজারে শীর্ষস্থানে চলে গেছে চীনের লেনোভো। বাজারে পিসির বিক্রি কমে গেলেও নতুন ধরনের পিসি এনে বাজারে শীর্ষস্থানে ফিরে যাওয়ার চেষ্টা করছে এইচপি।

এই পরিকল্পনা বাস্তবায়নে এইচপি প্রতিষ্ঠানটি দুটি ভাগে বিভক্ত হয়ে যাচ্ছে। এর একটি ভাগে থাকবে পিসি ও প্রিন্টার ব্যবসা ও আরেকটি অংশে থাকবে এইচপির অন্যান্য হার্ডওয়্যার, সফটওয়্যার ও সার্ভিস। বাজার গবেষণাপ্রতিষ্ঠান গার্টনারের তথ্য অনুযায়ী, বর্তমানে পিসির বাজারে ১৯.৪ শতাংশ লেনোভোর দখলে আর ১৮.৮ শতাংশ এইচপির দখলে। এই দুটি প্রতিষ্ঠান পিসি নির্মাতা হিসেবে এক ও দুই নম্বরে অবস্থান করছে।

এইচপির স্প্রাউট পিসি প্রযুক্তি বিশ্লেষকেরা পছন্দ করলেও বাজারে এর সফলতা নিয়ে তাদের সংশয় রয়েছে। বিশ্লেষক মিকাকো কিতাগাওয়া বলেন, ‘এটা দারুণ একটা পণ্য আর আমার স্প্রাউটের ধারণা পছন্দ হয়েছে। কিন্তু প্রশ্ন হচ্ছে, এটা কী মূলধারার পণ্য হবে? অবশ্যই না। এটা শুধু দামি পণ্যই নয়, সাধারণ ব্যবহারকারীরা এর ব্যবহার কতটা আয়ত্ত করতে পারবেন, সেটাও দেখার বিষয়।

এ পণ্যটি সবার জন্য নয়। ‘বাজার বিশ্লেষকেরা বলছেন, বাজারে যতই স্প্রাউট না চলুক, এটি কিন্তু সাধারণ পিসির পাশাপাশি এইচপির উদ্ভাবনী শক্তির পরিচয় দেয়—যা এইচপির ব্র্যান্ডটির মূল্য আরও বাড়িয়ে দেবে।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here

12 − 8 =