পাকিস্তানে চিরকালের জন্য নিষিদ্ধ ইউটিউব

0
276

ইউটিউবকে চিরকালের জন্য ব্লক করার সিদ্ধান্ত নিল পাকিস্তান। গত শনিবার এ বিষয়ে পাকিস্তানের তথ্য ও সম্প্রচারক মন্ত্রণালয় এবং বিশেষজ্ঞদের দীর্ঘ বৈঠক হয়। কিন্তু তাতেও ইউটিউবে কোনো ফিল্টার লাগিয়ে পাকিস্তানে চালু রাখা গেল না।

চিরকালের জন্য নিষিদ্ধ ইউটিউব পাকিস্তানে চিরকালের জন্য নিষিদ্ধ ইউটিউব

যদিও সিদ্ধান্তটা ঠিক হঠাৎ হয়নি। ২০১২-র সেপ্টেম্বর থেকেই পাকিস্তানে ইউটিউব ব্যানড ছিল। কারণ ইউটিউবে ‘ইনোসেন্স অফ মুসলিমস’ নামে একটি তথ্যচিত্র মুক্তি পায়, যা নিয়ে পাকিস্তানে যথেষ্ট গণ্ডগোল হয়। সে সময় পাক সরকার সিদ্ধান্ত নেয়, যত দিন ইউটিউবে ফিল্টার লাগানোর ব্যবস্থা না হচ্ছে তত দিন পর্যন্ত ইউটিউব বন্ধই থাকবে। অনেকের মনে প্রশ্ন উঠতে পারে ফিল্টার কি? ফিল্টার হচ্ছে এমন একটি টুল, যা দিয়ে কোনো বিশেষ বিশেষ কনটেন্ট ব্লক করা সম্ভব।

শনিবার এ নিয়েই বৈঠক হয়। কিন্তু তাতে কোনো পথই বার করা যায়নি। পাকিস্তানের তথ্যপ্রযুক্তি ও সম্প্রচার মন্ত্রী আনুষা রহমান জানান, ‘এ নিয়ে বহুবার বৈঠক করা হয়েছে, কিন্তু পরিস্থিতি পাল্টায়নি। ফলে এ সিদ্ধান্ত নিতে হচ্ছে।’

সরকারের এক উচ্চপদস্থ অফিসার এ প্রসঙ্গে জানান, সরকার এ মুহূর্তে কোনো ঝুঁকি নিতে চাইছে না। তিনি আরও জানিয়েছেন, এখানে ধর্মের নামে খুব সাধারণ কারণেও দাঙ্গা লেগে যায়। ফলে কনটেন্ট ফিল্টার করা যায়নি বলেই ব্যান করা ছাড়া গতি নেই।

তবে পাকিস্তানে বাক্ স্বাধীনতা নিয়ে যারা আন্দোলন করছেন, তারা ব্যাপারটিকে নাগরিক অধিকার হনন হিসাবেই দেখছেন। এই প্রথম নয়। ২০১০ সালে এভাবেই প্রায় সপ্তাহ দু’য়েকের জন্য ফেসবুকও ব্যান করা হয়।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here

four × 3 =