আইপ্যাডের বিকল্প হিসাবে ১১টি ট্যাবলেট রিভিউ

0
478

বিকল্প আইপ্যাডের বিকল্প হিসাবে ১১টি ট্যাবলেট রিভিউ

অ্যাপলের আইপ্যাড বাজারের অন্যতম জনপ্রিয় ট্যাবলেট। কিন্তু এর মূল্যটা যেমন অনেকের ধরাছোঁয়ার বাইরে তেমনি কমদামে এর বহু বিকল্পও রয়েছে বাজারে। এসব কিছু সস্তা অথচ উন্নতমানের ট্যাবলেট নিয়ে এক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে বিজনেস ইনসাইডার।

image আইপ্যাডের বিকল্প হিসাবে ১১টি ট্যাবলেট রিভিউ

১. বার্নেস অ্যান্ড নোবল নুক এইচডি
(মূল্য ১২৯ ডলার বা ১০,০১৬ টাকা)
বার্নেস অ্যান্ড নোবলের দুই ধরনের ট্যাবলেট রয়েছে। যা থেকে বেছে নিতে পারেন আপনার পছন্দনীয় ট্যাব। নুক এইচডি সবচেয়ে সস্তা। এতে ৭২০০পি এইচডি ডিসপ্লে ও গুগল প্লে স্টোর থেকে অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ পছন্দ করে নেওয়ার সুযোগ আছে।
 
২. বার্নেস অ্যান্ড নোবল নুক এইচডি+
(১৭৯ ডলার বা ১৩,৮৯৯ টাকা)
নুক এইচডি+ মডেলটিতে থাকছে ৯ ইঞ্চি এইচডি ডিসপ্লে। এতে থাকছে ১০৮০পি এইচডি ভিডিও দেখার সুযোগ। ফলে এটার ভিডিও দেখার মান উন্নত হবে। এ ছাড়া আপনি গুগল প্লে স্টোরের মাধ্যমে বহু ধরনের অ্যাপ ও গেমস ডাউনলোড করে ব্যবহার করতে পারবেন।

 

GoogleNexus7 আইপ্যাডের বিকল্প হিসাবে ১১টি ট্যাবলেট রিভিউ

৩. গুগল নেক্সাস ৭
(১৬জিবির মূল্য ২২৯ ডলার বা ১৭,৭৮২ টাকা, ৩২জিবির মূল্য ২৬৯ ডলার বা ২০,৮৮৮ টাকা)
কম দামের ট্যাবগুলোর মধ্যে সবচেয়ে ভালো অপশন হতে পারে গুগল নেক্সাস ৭। আসুসের সঙ্গে যৌথ উদ্যোগে নির্মিত এ সাত ইঞ্চি মনিটরযুক্ত ট্যাবলেটটিতে রয়েছে উচ্চ রেজুলিউশনের ডিসপ্লে। যদিও এ মডেলটির একটা গুরুত্বপূর্ণ সমস্যা হলো এর ব্যাটারি। এতে প্রায় ছয় ঘণ্টা চার্জ থাকে।

 

KindleFireHD আইপ্যাডের বিকল্প হিসাবে ১১টি ট্যাবলেট রিভিউ

৪. কিন্ডল ফায়ার এইচডি
(৮জিবি- ১৩৯ ডলার বা ১০,৭৯৩ টাকা, ১৬জিবি- ১৬৯ ডলার বা ১৩,১২২ টাকা)
দুই ধরনের কিন্ডল ফায়ার এইচডি ট্যাবলেট থেকে আপনার পছন্দেরটি বেছে নিতে পারেন। ৭ ইঞ্চি মডেলটিতে রয়েছে ১.৫ গিগাহার্জ প্রসেসর, ১০ ঘণ্টা ব্যাটারি লাইফ ও ডুয়াল স্টিরিও স্পিকার। তবে এতে কোনো সামনের ক্যামেরা নেই। এ ছাড়া ট্যাবলেটটির ৮.৯ ইঞ্চি ভার্সনে রয়েছে প্রায় একই ধরনের ফিচার। আর অতিরিক্ত হিসেবে আছে একটি এইচডি সামনের ক্যামেরা। এর ১৬ জিবি মডেলটির দাম ২৭০ ডলার ও ৩২জিবি মডেলটির দাম ৩০০ ডলার।

 

KindleFireHDX আইপ্যাডের বিকল্প হিসাবে ১১টি ট্যাবলেট রিভিউ

৫. কিন্ডল ফায়ার এইচডিএক্স
(১৬জিবি ২২৯ ডলার বা ১৭,৭৮১ টাকা, ৩২জিবি ২৬৯ ডলার বা ২০,৮৮৭ টাকা, ৬৪জিবি ৩০৯ ডলার বা ২৩,৯৯৪ টাকা)
 
অ্যামাজনের অন্যতম সেরা ট্যাবলেট এটি। এতে ২জিবি র‌্যাম, ওয়াইফাই বা সেলুলার কানেকশনের অপশন রয়েছে। এ ছাড়া ১.২ গিগাহার্জ প্রসেসর রয়েছে এতে। আপনি এটি কিনলে অ্যামাজনের ভিডিও লাইব্রেরি ব্যবহারের সুযোগ পাবেন। যেখানে রয়েছে হাজার হাজার মুভি ও টিভি শো। এ ছাড়া মেডে নামে একটি ফিচার রয়েছে এতে। যার মাধ্যমে অ্যামাজন কাস্টমার সার্ভিসের প্রতিনিধির সঙ্গে ভিডিও চ্যাট করে আপনার ডিভাইসের কোনো সমস্যার সমাধান করতে পারবেন।

 

LG-G-Pad আইপ্যাডের বিকল্প হিসাবে ১১টি ট্যাবলেট রিভিউ

৬. এলজি জি প্যাড ৮.৩

(২২৯ ডলার বা ১৭৭৮২ টাকা)
এলজির আট ইঞ্চি ট্যাবলেটটি গুগলের অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেমে চলে। এ মডেলটি অনেকটা নেক্সাস ৭ এর মতো। তবে স্ক্রিনের সাইজ সামান্য বড় হওয়ায় এর আকর্ষণ কিছুটা বেশি।
 
৭. এইচপি স্লেট ৭ এক্সট্রিম
(১৯৯ ডলার বা ১৫,৪৫২ টাকা)
আপনার যদি একটি বেসিক অ্যান্ড্রয়েড ট্যাবলেট নেওয়ার ইচ্ছা থাকে তাহলে এ ট্যাবলেটটি দেখতে পারেন। সাত ইঞ্চি মনিটরের ট্যাবলেটটিতে রয়েছে সামনের দিকে মুখ করা স্পিকার, যা নিশ্চিত করে সহজেই অডিও শোনার সুবিধা। এ ছাড়া এতে রয়েছে থ্রিডি গেইমিংয়ের উপযোগী প্রসেসর।
 
৮. ভ্যারাইজন এলিপসিস ৭ (২৫০ ডলার)
(২৫০ ডলার বা ১৯,৪১৩ টাকা)
আইপ্যাডের বিক্রেতা এ প্রতিষ্ঠানটি গত বছর নিজস্ব ট্যাবলেট আনে। অ্যান্ড্রয়েডচালিত সাত ইঞ্চি এইচডি স্ক্রিন, এলটিই কানেকশন, ৮গিগাবাইট তথ্য সংরক্ষণ ও একটি সামনের ক্যামেরা রয়েছে এতে।
 
৯. ডেল ভেনু ৮ প্রো
(২৪৯ ডলার বা ১৯,৩৩৪ টাকা)
এটি উইন্ডোজ অপারেটিং সিস্টেমচালিত একটি সুলভ মূল্যের ট্যাবলেট। এতে ৮.১ ইঞ্চি স্ক্রিন, উজ্জ্বল এইচডি গ্রাফিক্স ও ৩২জিবি তথ্য সংরক্ষণের সুবিধা রয়েছে। এতে বিনামূল্যে অরিজিনাল মাইক্রোসফট অফিস সফটওয়্যার থাকছে।
 
১০. ইভিজিএ টেগরা নোট ৭
(১৮৯ ডলার বা ১৪,৬৭৫ টাকা)
অ্যান্ড্রয়েড ৪.২ অপারেটিং সিস্টেমচালিত এ ডিভাইসটিতে রয়েছে ১৬জিবি র‌্যাম। এ ছাড়া এর মাধ্যমে ১০ ঘণ্টা ভিডিও দেখা সম্ভব। এর ক্যামেরাটি খুব একটা উন্নত নয়। তবে গেইমারদের জন্য এ ট্যাবলেটটি ভালো। এ ছাড়া এতে রয়েছে অপশনাল স্টাইলাস।
 
১১. হিসেন্স সেরো ৭ প্রো
(১৩০ ডলার বা ১০,০৯৫ টাকা)
কম মূল্যের অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেমের এ ট্যাবলেটটিকে রাখতে পারেন আপনার পছন্দের তালিকায়। এতে থাকছে অ্যান্ড্রয়েড ৪.২ অপারেটিং সিস্টেম, সামনে ও পেছনের ক্যামেরা ও ক্রিস্টাল ক্লিয়ার এইচডি ডিসপ্লে। এর ব্যাটারির মাধ্যমে একটানা সাত ঘণ্টা ভিডিও দেখা সম্ভব।

LEAVE A REPLY

nineteen − two =