নকল অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপস থেকে সাবধান!

0
363

অ্যান্ড্রয়েড ওএসের ডিভাইস এখন জনপ্রিয় ও প্রয়োজনীয়। কম্পিউটার নিরাপত্তা প্রতিষ্ঠান বিটডিফেন্ডার এক গবেষণায় জানায়, গুগল প্লেসহ অ্যান্ড্রয়েডের অন্য অ্যাপস স্টোরগুলো সয়লাব নকল অ্যাপসে। বেশিরভাগ ক্ষেত্রে বিনামূল্যের এ অ্যাপসগুলো ব্যবহারকারীদের তথ্য হাতিয়ে নেয়ার কাজে ব্যবহার হচ্ছে। নকল অ্যাপগুলো খানিকক্ষণ পরপরই বিজ্ঞাপন দেখাতে থাকে। ফলে অ্যাপসের কার্যকারিতা অনেকাংশে কমে যায়। এছাড়া গোপনীয়তা নষ্ট হবার আশঙ্কা তো থাকেই।

Advertisement

নকল অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপস থেকে সাবধান!অ্যাপ কিনে ব্যবহারের প্রবণতা এখনও তৈরি না হওয়ায় পেইড অ্যাপসের নকল বিনামূল্যের অ্যাপসগুলো গ্রাহকের হাতে হাতে পেঁৗছে যাচ্ছে। আর সেগুলোর সূত্র ধরে হ্যাকাররাও হাতিয়ে নিচ্ছে অনেক তথ্য। মূল সমস্যাটা থেকে যায় বিজ্ঞাপন নিয়ে। নকলবাজরা আয় করার জন্য বিজ্ঞাপনের ওপরই নির্ভর করে। এজন্য ফোন কিংবা ট্যাবলেটে থাকা বিভিন্ন নাম ও নম্বর জোগাড় করে নেয় কৌশলে। আবার অনেক ক্ষেত্রে এসব অ্যাপের সঙ্গে গোপনে যোগ করা থাকে ম্যালওয়্যার আক্রান্ত বিভিন্ন ওয়েবসাইট। ব্যবহারকারীরা তাদের অজান্তেই এসব ম্যালওয়্যারের শিকার হতে পারেন।

বিটডিফেন্ডার গুগল প্লেতে নকল অ্যাপ খুঁজে পেয়েছেন, যা মোট অ্যাপের ১ শতাংশেরও বেশি। নামের ভিন্নতার কারণে এগুলোকে চিহ্নিত করা কঠিন। অনেক বৈধ অ্যাপের মতো নকলগুলোর ব্যবহারকারীর নাম, ঠিকানা, যোগাযোগের নম্বরসহ অনেক তথ্যই চেয়ে থাকে। বৈধ ভেবে ব্যবহারকারী এগুলো দিয়ে দেন।

নকল অ্যাপ থেকে বাঁচার আরেকটি উপায়

অ্যাপ নির্মাতার নামটি পরীক্ষা করে দেখার পরামর্শ দিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা। দেখা যায়, অধিকাংশ নকল অ্যাপই ফেসবুক কিংবা ইন্সটাগ্রামে পোস্ট করার অনুরোধ করে। কিন্তু কখনোই নিজেদের অ্যাপ লাইক করে কোম্পানির ওয়েবসাইট দেখার অনুরোধ জানায় না।

বিভিন্ন সাইটে অ্যাপ সম্পর্কিত রিভিউ পড়া। যদি কোনো অ্যাপে বলা থাকে যে, আসল অ্যাপের চেয়ে দ্বিগুণ গতিসম্পন্ন, তাহলে সেটিকে এড়িয়ে যাওয়াই মঙ্গল। এ অ্যাপগুলোর অন্যান্য ব্যবহারকারীর মন্তব্য পড়া যেতে পারে। অনেক ক্ষেত্রে অবশ্য অনেক স্প্যাম রিভিউ থাকে এগুলোয়, যা অ্যান্ড্রয়েডের জন্য আরেকটি সমস্যা।

জনপ্রিয় অ্যাপগুলোর আইকন, নাম ও ছবি খুঁটিয়ে দেখা। লক্ষ্য করলে বোঝা যাবে, নকল অ্যাপটিতে ব্যবহার করা হয়েছে প্রতিবিম্বিত ছবি কিংবা ছবির পেছনে একটুখানি ছায়া রয়েছে। আবার ‘মেসেজেস’ শব্দের বদলে হয়তো সেখানে লেখা আছে ‘মেসেজিং’। যারা তেমন কিছু লক্ষ্য না করেই এগুলো ইন্সটল করেন, তারাই সাধারণত এসব নকল অ্যাপের খপ্পরে পড়েন।

একটি উত্তর ত্যাগ