হোয়াটসঅ্যাপ এখন থেকে ডেস্কটপ বা ল্যাপটপে

0
436

এই মুহূর্তে বিশ্বজুড়ে প্রায় ৬০ কোটি লোক মোবাইলভিত্তিক যোগাযোগের অ্যাপ্লিকেশন হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহার করছেন। এই বিপুল সংখ্যক ব্যবহারকারীর কথা মাথায় রেখে হোয়াটসঅ্যাপ কর্তৃপক্ষ এটিকে ডেস্কটপ বা ল্যাপটপ কম্পিউটারে ব্যবহার উপযোগী করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

এখন থেকে মোবাইল তো বটেই একদম আক্ষরিক অর্থেই দু’হাত খুলে ‘চ্যাট’ করা যাবে কম্পিউটারের চওড়া কি-বোর্ড দিয়েই।

হোয়াটসঅ্যাপ এখন থেকে ডেস্কটপ বা ল্যাপটপেবুধবার হোয়াটসঅ্যাপ কর্তৃপক্ষ কম্পিউটার ব্রাউজার দিয়ে হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহার করার সেবা চালু করেছে। কম্পিউটারে এ সেবা শুধুমাত্র গুগল ক্রোম ব্রাউজারেই চালু হয়েছে এবং সুবিধা নিতে পারবেন অ্যাপল ছাড়া অ্যান্ড্রয়েড, ব্ল্যাকবেরি, উইন্ডোজ ও নকিয়া এস৬০সহ বাকি সব স্মার্টফোন ব্যবহারকারী। অ্যাপল কেন এ সুবিধার আওতায় নেই সে বিষয়ে অবশ্য ‘সীমাবদ্ধতার’ কথা পরিস্কার করে বলেনি হোয়াটসঅ্যাপ কর্তৃপক্ষ।

কম্পিউটারে হোয়াটসঅ্যাপ চালু রাখতে গুগল ক্রোম এবং হোয়াটসঅ্যাপ এর সর্বশেষ ভার্সনটা নামিয়ে নিতে হবে। এ ক্ষেত্রে স্মার্টফোনের নিজস্ব স্টোর থেকে হোয়াটসঅ্যাপ এর ওয়েবসাইট থেকে সর্বশেষ আপডেটটা ফোনে ইন্সটল করে নিতে হবে এবং গুগল ক্রোমের সাইট থেকে ব্রাউজার আপডেট করে নিতে হবে। ক্রোমের ক্ষেত্রে ৩৬ এর পর যেকোনও আপডেট হলেই চলবে।

ক্রোমের হালনাগাদ ব্রাউজার থেকে প্রথমে এই লিংকে https://web.whatsapp.com গেলে দেখতে পাবেন একটি কুইক রেসপন্স কোড বা কিউআর কোড। এটি আপনার ফোন থেকে স্ক্যান করলেই ব্রাউজারে চালু হয়ে যাবে হোয়াটসঅ্যাপ।

হোয়াটসঅ্যাপ কাজ করে মোবাইল ফোন নম্বরের ভিত্তিতে। তাই কম্পিউটারে সংযোগ চালু রাখতে হোয়াটসঅ্যাপ সচল রাখতে হবে মোবাইলেও। সেক্ষেত্রে মোবাইল ফোন সংযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে গেলে কম্পিউটার কোন কাজে আসবে না। সে কারণেই যুগপদভাবে সব বার্তাই মোবাইল এবং ব্রাউজারের পর্দায় প্রদর্শিত হবে।

একটি উত্তর ত্যাগ