উইন্ডোজের কিছু গোপন কৌশল

0
526

উইন্ডোজের প্রচলিত অনেক টিপস অথবা কি-বোর্ড শর্টকাট আছে, যেগুলো দিয়ে সহজে ও দ্রুত কাজ সারা যায়। এর বাইরেও কিছু গোপন কৌশল আছে, যেগুলো দিয়ে বাড়তি কিছু সুবিধা পাওয়া যাবে।

কিছু গোপন কৌশল উইন্ডোজের কিছু গোপন কৌশল
টাস্কবারে থাকা অ্যাপ্লিকেশন নির্বাচন: কি-বোর্ডের Windows Key + T চেপে চেপে টাস্কবারে থাকা অ্যাপ্লিকেশন বা প্রোগ্রামগুলো একে একে নির্বাচন করা যাবে, একই সঙ্গে খুলে রাখা অ্যাপ্লিকেশনগুলোর নমুনা বা প্রিভিউ দেখা যাবে।

টাস্কবারে থাকা অ্যাপ্লিকেশন চালু: টাস্কবারে পিন করে রাখা অ্যাপ্লিকেশন খুলতে চাইলে Windows Key চেপে ধরে অ্যাপ্লিকেশনগুলোর পর্যায়ক্রমিক অবস্থান বিচারে ১ থেকে ৯ পর্যন্ত সংখ্যা চাপলেই সেটি চালু হয়ে যাবে।

অ্যাপ্লিকেশন ব্যবস্থাপনা: চলমান একই অ্যাপ্লিকেশনের নতুন আরেকটি উইন্ডো খুলতে চাইলে Shift + Windows Key চেপে টাস্কবারে অ্যাপ্লিকেশনের অবস্থান অনুয়ায়ী ১ থেকে ৯ পর্যন্ত সংখ্যা চাপতে হবে। খুলে রাখা উভয় উইন্ডো অদল-বদল করে দেখতে চাইলে Ctrl + Windows Key চেপে সংখ্যাটি চাপতে হবে।

নির্দিষ্ট অবস্থানে কমান্ড প্রম্পট চালু: Shift কি চেপে ধরে কোনো নির্দিষ্ট ফোল্ডারে ডান ক্লিক করে এর অপশন থেকে সেই অবস্থানেই কমান্ড উইন্ডোতে ঢোকা যাবে। এটি উইন্ডোজ ৭ এবং ভিসতার ক্ষেত্রে প্রযোজ্য।

গোপন ‘সেন্ড টু’ মেনু: Shift বোতাম চেপে ধরে কোনো ফোল্ডারে ডান ক্লিক করে ‘সেন্ড টু’ মেনুতে কারসর নিলে সম্পূর্ণ নতুন কিছু অবস্থান (লোকেশন) দেখতে পাওয়া যাবে, যা দিয়ে সহজেই ফাইল পাঠানো যাবে জায়গামতো।

যেকোনো ফাইল কিংবা ওয়েবপেইজ খোলা: রান কমান্ড ব্যবহার করে যেকোনো ফাইল, অ্যাপ্লিকেশন বা ওয়েবসাইট খোলা যায় সহজেই। কি-বোর্ডের Windows Key + R বোতাম চেপে রান ডায়ালগ বক্সটি চালু করতে হবে। এখান থেকে অ্যাপ্লিকেশনের নাম বা ওয়েবসাইটের ঠিকানা লিখে এন্টার করলে সরাসরি সেটি খুলে যাবে।

জিপ ফোল্ডার বানানো: বেশ কটি ফাইল একসঙ্গে করে সহজে কোথাও পাঠাতে বা ওয়েবে আপলোড করতে চাইলে সেগুলোকে জিপ ফোল্ডার বানিয়ে বড় ফাইলকে অপেক্ষাকৃত ছোট করা যায়। এ জন্য সেই ফোল্ডারে ডান ক্লিক করে Send to অপশন মেনু থেকে Compressed (zipped) Folder অপশনটি নির্বাচন করতে হবে।

একটি উত্তর ত্যাগ