গ্রাফিকস প্রতিযোগীতাতে জেতার কিছু টিপস

0
392

আমি কি পারব কখনও?

শুরুতে একই ভয় আমারও ছিল। কিন্তু প্রশিক্ষণের একটি ধাপ দিয়ে যেতে যেতে সব কিছুই আমি সম্ভব করেছি। আমিতো উপরে প্রশিক্ষণের ধাপগুলো কিছু এখানে শেয়ার করলামই। তাহলে যুদ্ধে নামবেননা কেন। যুদ্ধে না নেমেই কিভাবে বুঝবেন, আপনি পারবেন কিনা। আমে বেশিরভাগদেরই দেখেছি, যারা খুব হতাশ। কিন্তু খোজ নিয়ে দেখা যায়, তারা এখনও ভয়ের কারনে ফিল্ডেই নামেনি। ফিল্ডে না নেমেই হতাশ। ফিল্ডে না নেমেই কিভাবে বুঝবেন আপনার দ্বারা সম্ভব নাকি অসম্ভব।

আবার অনেকে ফিল্ডে নেমে ৩-৪ টা কম্পিটিশনে অংশগ্রহণ করেই হতাশ হয়ে যায়। কিংবা অনেকেই প্রশিক্ষণ নেওয়ার মত ধৈয্য রাখেনা।  আপনি একটি চাকুরী করে মাসে ৩০,০০০ টাকার বেতনে চাকুরী করবেন, সেই লক্ষ্যকে সামনে রেখে যদি ২৫ বছর সাধনা করতে পারেন। আর আউটসোর্সিংয়ের ক্ষেত্রে পরিশ্রম করতে এত অনীহা কেন।অথচ এখানে আয় করবেন, মাসে ৪০,০০০ টাকা – ৫০,০০০ টাকা। আউটসোর্সিংয়ের ক্যারিয়ার গড়তে মাত্র ৪মাসের সঠিক সাধনাই আপনাকে সফলতার পথে নিয়ে যাবে।

এইটুকু পরিশ্রমের জন্য প্রস্তুত না থাকলে আউটসোর্সিং আপনার জন্য না। একটি বিষয় বলে রাখি ১বছরের অভিজ্ঞতার পরও এখনও প্রতি মাসে আমাকে ১০টি প্রতিযোগীতাতে অংশগ্রহণ করতে হয় এবং প্রত্যেক প্রতিযোগীতাতে আমাকে ৮-১২টি করে লোগো সাবমিট করতে হয় এবং এর জন্য প্রতিদিন ব্যয় করছি গড়ে ৩-৪ ঘন্টা। এরপরই আমি প্রতি মাসে ২-৩ টি জিততে পারি। ৫০,০০০টাকার জন্য এটুকু পরিশ্রম করাকে আমার কাছে অস্বাভাবিক মনে হয়নি।

গ্রাফিকস প্রতিযোগীতাতে জেতার কিছু টিপসঃ

যেই টিপসগুলো দিব, সেগুলোর কিছু প্রশিক্ষন নিতে গিয়ে শিখেছি, কিছু আমি কাজ করতে গিয়ে বুঝেছি।

১। বায়ারের কাজের বিস্তারিত ভালভাবে পড়ুন কয়েকবার।তার প্রয়োজনগুলো ভালভাবে বুঝুন আগে।

২। অন্যদের ডিজাইনগুলো এবং সেই ডিজাইনের উপর বায়ারের ফিডব্যাকগুলো দেখুন ভালভাবে।

৩। যেই ডিজাইনগুলো বাতিল হয়ে গেছে, সেগুলোকেও দেখুন। তাহলে বুঝতে পারবেন, বায়ারের জন্য কোন টাইপ ডিজাইনগুলো করে সময় নষ্ট করে কোনই লাভ হবেনা।

৪। প্রতিযোগীতার নিচের কমেন্টগুলোও ভালভাবে লক্ষ্য রাখুন। আপনার জন্য অনেক কাজে লাগবে সেগুলো।

৫। লোগো সাবমিট করার সময় প্রেজেন্টেশন অনেক স্মার্ট করুন। সুন্দর প্রেজেন্টেশন যেমন একটি খারাপ ডিজাইনকেও আকর্ষণীয় করে তোলে, তেমনি এর বিপরীতটাও ঘটে।খারাপ প্রেজেন্টেশন কিংবা প্রেজেন্টেশন ছাড়া সুন্দর লোগো সাবমিট করলেও সেটি বায়ারের পছন্দ হবেনা।

৬। কারো ডিজাইন কপি করবেননা। এটি বেআইনি। সেই প্রতিযোগীতা থেকে আপনি বাতিল হয়ে যেতে পারেন।

৭। বায়ার আপনাকে পাবলিক মেসেজ দিলে কিংবা আপনার ডিজাইনের উপর কোন মেসেজ দিলে সেটির উত্তর সাথে সাথে দেওয়ার চেষ্টা করুন।

৮। প্রতিযোগীতাগুলো সাধারণত ৭দিন ধরে চলে। একদম শুরুর দিন থেকেই প্রতিযোগীতাতে ডিজাইন সাবমিট শুরু করতে হবে। তাহলে বায়ারের ফিডব্যাকগুলো বুঝতে সুবিধা হবে। বায়ারের কাছেও পরিচিত হতে পারবেন।

আশা করি উপরের এই ৮টি টিপসই আপনাকে জিততে সহযোগিতা করবে। আমিতো শুধু এগুলোই অনুসরণ করি।

 

একটি উত্তর ত্যাগ