ফরেক্স এ লট/ভলিউম, স্প্রেড, স্টপ লস, টেক প্রফিট

0
376

লট/ভলিউমঃ

লট ব্যাপারটি অনেক সহজ। কিন্তু আপনি যখন ইউনিটের হিসাবে যাবেন, তখন তা আপনার কাছে জটিল মনে হবে। তাই আমরা এখানে ইউনিটের হিসাবে যাব না বরং সহজ ভাবে বোঝানোর চেষ্টা করবো।ফরেক্স মার্কেটে আমরা প্রতি পিপস মুভমেন্টে লাভ করতে পারি। ভলিউমের মাধ্যমে আমরা নির্ধারণ করে দিবো যে প্রতি পিপস আমাদের অনুকূলে বা প্রতিকূলে গেলে আমাদের কি পরিমান লাভ বা লস হবে। সাধারণতঃ ১ স্ট্যান্ডার্ড লট ১ লক্ষ ইউনিট কারেন্সির সমান। অর্থাৎ ১ লট ইউরো সমান ১,০০,০০০ ইউনিট, প্রতি ইউনিটের মুল্য  ( 1 EUR/USD= 1.3100) হলে  , ১ লট ইউরো বা ১ লক্ষ ইউনিট ইউরো কিনতে লাগবে ১,৩১,০০০ ডলার। লটের মূল্য এত বেশি হবার কারণে ক্ষুদ্র ট্রেডারদের সুবিধার্থে মিনি লট  এবং মাইক্রো ট্রেড এর সুবিধা রয়েছে।

ফরেক্স এ লট/ভলিউম, স্প্রেড, স্টপ লস, টেক প্রফিট

সাধারনত বেশির ভাগ ব্রোকার ই স্ট্যান্ডার্ড লট ব্রোকারঃ

এখানে আমাদের ব্রোকার বিভিন্ন ভলিউম এ প্রতি পিপ পরিবর্তনে লাভ লোকসান দেখান হলঃ

ধরি, EUR/USD= 1.3150

তাহলে ১ স্ট্যান্ডার্ড লট সমান= ১,০০,০০০*১।৩১৫০= ১,৩১,১৫০ ডলার প্রয়োজন হবে।

তাহলে প্রতি পিপ পরিবর্তনে লাভ লোকসান হল= ০.০০০১*১,০০,০০০= ১০ ডলার।

যদি ভলিউম ০.১ হয় তাহলে ০.০০০১*১০,০০০= ১ বা ১০*০.১= ১ ডলার।

যদি ভলিউম ০.০১ হয় তাহলে ০.০০০১*১০০০= ০.১ বা ১০*০.০১= ০.১ডলার।

যদি ভলিউম ০.৫ হয় তাহলে ০.০০০১*৫০০০০= ৫ বা ১০*০.৫= ৫ ডলার।

আশা করি বুঝতে পেরেছেন।

স্প্রেড

আপনি ট্রেড শুরু করলেই দেখবেন আপনি কিছু লস এ ট্রেড শুরু করেছেন। ফরেক্স ব্রোকার একটি ট্রেড ওপেন করার জন্য এই কমিশন চার্জ করে থাকে। এই চার্জ কে বলে Spread। আরও ভাল ভাবে বুঝন। ধরুন আপনি EUR/USD তে ট্রেড শুরু করেছেন, যার বাজার মূল্য ১.৩২৬০। ব্রোকার ২ পিপ যোগ করলে আপনার রেট হবে ১.৩২৬২। এই জন্যই আপনার ট্রেড শুরু হওয়ার পর লস এ শুরু হবে।

বিট ভ্যালুঃ সেল বাটন বা বাই বাটনের উপরে দুটি সংখ্যা লেখা থাকে।এর প্রথম সংখ্যাটিকে বিট ভ্যালু ও দ্বিতীয় সংখ্যাটিকে আস্ক ভ্যালু বলা হয়।এই দুই ভ্যালুর বিয়োগ ফল কে স্প্রেড বলা হয়। স্প্রেড অর্থ, এখানে ট্রেড দিলে প্রত্যেক ভলিউমে ব্রোকার কত ডলার বা পিপ্স কমিশন নিবে সেই সংখ্যা।

আস্ক ভ্যালুঃ দ্বিতীয় সংখ্যাটি আস্ক ভ্যালু।

 

GBP/USD= ১.৩৮৪১ এর অর্থ দাড়ায় ১ গ্রেট ব্রিটেন পাউন্ড সমান ১.৩৮৪১ ইউনাইটেড স্টেট ডলার । এখানে প্রথমটি বেস এবং শেষের টি কোট কারেন্সি বলা হয়।

GBP এর অর্থ গ্রেট ব্রিটেন পাউন্ড। প্রথম দুটি অক্ষর দেশের নাম ও পরের অক্ষর মুদ্রার নাম নির্দেশ করে। ট্রেড দেয়ার সময় বাই/সেল এর উপর দুইটি অক্ষর লেখা থাকে। এর সংখ্যা যথাক্রমে-

  Bid Value/Ask Value.

     Ask Value – Bid Value=Spread.

এই স্প্রেড বা কমিশন বিভিন্ন ব্রোকার হাউজে বা বিভিন্ন মুদ্রা ভেদে ভিন্ন ভিন্ন হয়ে থাকে। ইউরো ইউএসডি তে এই স্প্রেড কম বলে এতেই ট্রেড দেয়া আমাদের জন্য মঙ্গলজনক। যেমন আরমাডা মার্কেটস এ এই এভারেজ স্প্রেড হল মাত্র .২৭ পিপ।

ফরেক্স মার্কেট এ ট্রেড করতে গেলে আমাদের বিভিন্ন পেয়ার এর মধ্য কো-রিলেশন বুঝতে হবে। যেমন যদি আমরা ইউরো ইউএসডি তে বাই দেই তাহলে যে পেয়ার এ ইউরো বেজ কারেন্সি সেরকম অন্য কোন পেয়ার এ ইউরো সেল দিলে একটাতে লাভ কিন্তু একটাতে লস হবে। সুতারং বাই সেল এর সময় বেজ কারেন্সি এবং কোট কারেন্সির মধ্য তফাৎ বুঝতে হবে।

Sell: সেল ট্রেড দিতে চাইলে এখানে সেল বাটনে ক্লিক করুন।

Buy: বাই ট্রেড দিতে চাইলে এখানে বাই বাটনে ক্লিক করুন।

(এখানে উল্লেখ করা প্রয়োজন যে, ফরেক্স ট্রেডিং-এ বাই এবং সেল উভয়কেই বাই বলা হয় এবং ক্লোজ কে আল্টিমেট সেল বলা হয়)

স্টপ লস

আপনি কত পিপ্স লস হয়ে গেলে ট্রেড ক্লোজ করতে চান তা যদি আগে থেকে নির্ধারণ করে দিতে চান তবে এখানে আগে থেকে অর্ডার দিয়ে রাখতে পারেন।না চাইলে এখানে কিছু লেখার  দরকার নেই। ধরুন, আপনি EUR/USD তে ট্রেড শুরু করেছিলেন। এখন বাজার মূল্য লস এ আছে। আপনি ঐ ট্রেড টি কত দামে বন্ধ হবে তা ঠিক করে দিতে পারবেন। ধরুন, আপনি ট্রেড শুরু করার সময় অনুপাত ছিল ১.৩২৬০। আপনি ধারনা করলেন ২০ পিপস এর বেশি কমে গেলে এই পেয়ারের দাম কমে যাবে, আর তাই লস এড়াতে মূল্য ঠিক করে দিতে পারেন।

টেক প্রফিট

আপনি কত পিপ্স লাভ হয়ে গেলে ট্রেড ক্লোজ করতে চান তা যদি আগে থেকে নির্ধারণ করে দিতে চান তবে এখানে আগে থেকে অর্ডার দিয়ে রাখতে পারেন।না চাইলে এখানে কিছু লেখার দরকার নেই। অনেক টা স্টপ লস এর মতই। তবে এটা স্টপ লস এর বিপরীত। আপনি ইচ্ছা করলে লাভে থাকা ট্রেড টা কত দামে বন্ধ করে দিতে চান তা ঠিক করে দিতে পারবেন।

ফরেক্স নিয়ে সমস্ত কিছু পাবেন আমাদের ফরেক্স ব্লগে

একটি উত্তর ত্যাগ