স্মার্টফোনের জন্য নিয়ে নিন জানা অজানা নানা ধরনের মেসেঞ্জার

0
518

স্মার্টফোনের জন্যও রয়েছে নানা ধরনের মেসেঞ্জার। এখন প্রায় মোবাইল ফোন সংযোগের সঙ্গেই ইন্টারনেট সুবিধা পাওয়া যায়। তাই আপনার স্মার্টফোন সারাক্ষণই ইন্টারনেটে যুক্ত থাকতে পারে।ফলে আপনি সব সময় থাকতে পারবেন মেসেঞ্জারে।প্রতিটি স্মার্টফোনের জন্য রয়েছে হাজারো অ্যাপ্লিকেশন (অ্যাপস)।যেগুলো পাওয়া যাবে অনলাইন স্টোরে। যেখান থেকে সহজে মেসেঞ্জারটি নামিয়ে নিতে পারবেন।

স্মার্টফোনের জন্য নিয়ে নিন জানা অজানা নানা ধরনের মেসেঞ্জার

জি-টক
গুগলের বিনা মূল্যে ই-মেইল সেবা জিমেইলের জন্য রয়েছে জি-টক মেসেঞ্জার। জিমেইল ব্যবহারকারীরা কম্পিউটারে এ মেসেঞ্জারের মাধ্যমে তাৎক্ষণিক বার্তা আদান-প্রদান করতে পারেন। গুগলের তৈরি স্মার্টফোনের মুক্ত অপারেটিং সিস্টেম অ্যান্ড্রয়েডে জি-টক দেওয়াই থাকে (বিল্ট-ইন)। এ ছাড়া জি-টক ব্যবহার করা যায় ব্ল্যাকবেরি, লিনাক্স, ওয়েবওএস, সিমবিয়ান, অ্যাপলের আইওএস, উইন্ডোজ, গুগল ক্রোম অপারেটিং সিস্টেমে। জি-টকের মাধ্যমে শুধু চ্যাট নয়, কথাও বলা যাবে। তবে বর্তমানে কথা বলার এ সুবিধা শুধু যুক্তরাষ্ট্রের জন্য রয়েছে। তবে এটি যে সব সময়ই আপনাকে অনলাইনে দেখাবে সেটি নয়। ইচ্ছা করলে আপনি অফলাইন কিংবা ইনভিসিবল থাকতে পারেন। অনেক কাজে ব্যস্ত থাকলে দিতে পারেন ব্যস্ততার চিহ্ন। যা আপনার সঙ্গে চ্যাট তালিকায় থাকা সবাই দেখতে পাবে। এ ছাড়া চ্যাট সুবিধাটা দারুণ।

ইয়াহু মেসেঞ্জার
ইয়াহুর ব্যবহারকারীদের জন্য রয়েছে ইয়াহু মেসেঞ্জার। ইয়াহু মেসেঞ্জারে যুক্ত থাকা ব্যবহারকারীদের সঙ্গে খুব সহজেই তাই চ্যাট করা যাবে নিজের প্রিয় স্মার্টফোনের মাধ্যমে। ইয়াহু মেসেঞ্জার মাইক্রোসফট উইন্ডোজ, ম্যাক ওসএস এক্স, অ্যান্ড্রয়েড, সিমবিয়ান, অ্যাপলের আইওএস, লিনাক্সসহ জনপ্রিয় মুঠোফোনের বিভিন্ন অপারেটিং সিস্টেম সমর্থন করে। চ্যাটের পাশাপাশি ইয়াহু মেসেঞ্জারে রয়েছে সর্বোচ্চ দুই গিগাবাইট পর্যন্ত ফাইল আদান-প্রদানের সুবিধা। এ ছাড়া এতে যুক্ত হয়েছে ওয়েবক্যাম সুবিধা, যার ফলে ব্যবহারকারীরা নিজেদের মধ্যে চ্যাট করার সময় একে অপরকে দেখতেও পারবেন। ইয়াহুর জনপ্রিয় একটি সুবিধা হচ্ছে চ্যাট রুম যাতে ইচ্ছেমতো নিজেদের মধ্যেও চ্যাট করা সম্ভব। এ ছাড়া অতি সম্প্রতি সামাজিক যোগাযোগের জনপ্রিয় ওয়েবসাইট ফেসবুকের বন্ধুরাও যাতে ইয়াহু মেসেঞ্জারে যুক্ত হতে পারেন, সে সুবিধাও যুক্ত হয়েছে।

হোয়াটসঅ্যাপ
হোয়াটসঅ্যাপ ম্যাসেঞ্জার (ডব্লিউএএম) স্মার্টফোনের জন্য জনপ্রিয় একটি মেসেঞ্জার। বিভিন্ন অপারেটিং সিস্টেমের স্মার্টফোনে এ মেসেঞ্জার ব্যবহার করা যায়। শুধু চ্যাটই নয়, এ মেসেঞ্জারের মাধ্যমে ছবি আদান-প্রদান, ভিডিও ও অডিও মিডিয়া বার্তাও আদান-প্রদান করা যায়। মেসেঞ্জারটি অ্যাপলের আইওএস, ব্ল্যাকবেরি, অ্যান্ড্রয়েড, সিমবিয়ান এবং উইন্ডোজ ফোনে ব্যবহার করা যায়। হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহারকারীর ফোনে থাকা ফোন নম্বর তালিকা থেকে নম্বর সিংক্রোনাইজ করে নেয় ফলে আলাদা করে আইডি যোগ করার প্রয়োজন হয় না। স্মার্টফোনে বিনা মূল্যে ব্যবহার উপযোগী মেসেঞ্জারটিতে ব্যক্তিগত হালানাগাদ, বর্তমান স্থান যেখান থেকে চ্যাট করছেন ব্যবহারকারী, গ্রুপ তৈরি, গ্রুপের জন্য আলাদা আইকন তৈরি করা যায়।

মিবো
একই সঙ্গে একাধিক চ্যাট সুবিধা প্রদানকারী প্রতিষ্ঠান মিবো। কম্পিউটারের পাশাপাশি স্মার্টফোনের জন্য রয়েছে মিবো মেসেঞ্জার। এসএমএসের মতোই এতে চ্যাট করা যায়। একটি মাত্র অ্যাকাউন্ট দিয়েই গুগল টক, ইয়াহু মেসেঞ্জার, লাইভ মেসেঞ্জার, মাইস্পেস, আইসিকিউ, ফেসবুকসহ জনপ্রিয় প্রায় সবই চ্যাট সুবিধা ব্যবহার করা যায় এর মাধ্যমে। মেসেঞ্জারটি স্মার্টফোনের অপারেটিং সিস্টেম অ্যান্ড্রয়েড, ব্ল্যাকবেরি, আইওএসসহ জনপ্রিয় অনেকগুলো অপারেটিং সিস্টেমে চলে। এ ছাড়া এতে চ্যাটের সব তথ্য জমা থাকে যা পরবর্তী সময়ে কম্পিউটারে মিবোতে প্রবেশ করলে পাওয়া যাবে। বিনা মূল্যে মেসেঞ্জারটি সহজে ব্যবহার করা যায় এবং এর মাধ্যমে রিয়েল টাইম চ্যাট সুবিধা পাওয়া যাবে দারুণভাবে।

ট্রিলিয়ান
স্মার্টফোনে ব্যবহারের জন্য আরেকটি মেসেঞ্জার হচ্ছে ট্রিলিয়ান। অ্যান্ড্রয়েড, ব্ল্যাকবেরি, আইওএস চালিত স্মার্টফোনে মেসেঞ্জারটি ব্যবহার করা যাবে। ট্রিলিয়ানে সব ধরনের কন্ট্যাক্টগুলো সিনক্রোনাইজ করে নেয় যা ডেস্কটপ আর স্মার্টফোনে একই ভাবে দেখা যায়। ট্রিলিয়ান ক্যামেরাফোনে ছবি তুলে বার্তা পাঠানো, নোটিফিকেশন বার অ্যালার্ট, ট্যাব চ্যাট সুবিধা, ল্যান্ডস্কেপ সুবিধা ব্যবহার করে চ্যাট করা যায়। এতে লাইভ মেসেঞ্জার, ইয়াহু মেসেঞ্জার, ফেসবুক চ্যাট, এআইএম, আইসিকিউ, গুগল টক ব্যবহার করা যায়। অ্যাপলের আইওএস এবং ব্ল্যাকবেরির জন্য মেসেঞ্জারটি কিনতে খরচ পড়বে ৪.৯৯ ডলার। তবে অ্যান্ড্রয়েডের জন্য পরীক্ষামূলক সংস্করণ বিনামূল্যে পাওয়া যাবে।

নিমবাজ
কম্পিউটারের পাশাপাশি মোবাইলের জন্য জনপ্রিয় আরেকটি মেসেঞ্জার হচ্ছে নিমবাজ। তাৎক্ষনিক চ্যাট করার পাশাপাশি এ মেসেঞ্জারের মাধ্যমে কথা বলা যায়। এ মেসেঞ্জারে জি-টক, ফেসবুক, ইয়াহু, উইন্ডোজ লাইভ, টুইটার ব্যবহার করা যায়। প্রতিটি আইডির ক্ষেত্রে আলাদা আইকনও দেখা যায় যার মাধ্যমে কোন ব্যবহারকারী কোনটি ব্যবহার করছেন তা জানা যায়। ইন্টারনেটে মাধ্যমে বিনামূল্যে কথা বলার সুবিধার পাশাপাশি নিমবাজের মাধ্যমে ভিডিও কল, ফাইল আদান-প্রদানও করা যায়। মেসেঞ্জারটি অ্যান্ড্রয়েড, আইওএস, সিমবিয়ান, উইন্ডোজ, ম্যাক ওএসে ব্যবহার করা যায়।

বিজাইভ
স্মার্টফোনের জন্য নানা ধরনের জনপ্রিয় মেসেঞ্জার রয়েছে। এর মধ্যে আরেকটি হচ্ছে বিজাইভ। দেখতে দারুন এবং প্রয়োজন অনুযায়ী সাজিয়ে নেওয়া যায় এমন সুবিধা যুক্ত বিজাইভে চ্যাট বক্স থেকে সরাসরি যেমন ই-মেইল করা যায় তেমনি ফোনও করা যায়। বিজাইভ অ্যান্ড্রয়েড, ব্ল্যাকবেরি, আইওএস চালিত স্মার্টফোন সমর্থন করে। এর মাধ্যমে এআইএম, মোবাইল মি, উইন্ডোজ লাইভ ম্যাসেঞ্জার, ইয়াহু, মাইস্পেস চ্যাট, ফেসবুক, গুগল টক ব্যবহার করা যায়। গ্লোবাল পজিশনিং সিস্টেম (জিপিএস) ব্যবহারের মাধ্যমে বিজাইভের মাধ্যমে ফাইল আদান-প্রদান করা যাবে দ্রুততার সাথে।

ব্ল্যাকবেরি মেসেঞ্জার
শুধু ব্ল্যাকবেরি স্মার্টফোনের জন্য জনপ্রিয় একটি মেসেঞ্জার হচ্ছে ব্ল্যাকবেরি মেসেঞ্জার (বিবিএম)। বিবিএম শুধু বার্তা আদান-প্রদানই নয় ইচ্ছে মতো বড় আকারের বার্তা পাঠানো, বার্তা পৌঁছানোর নিশ্চিতকরন, ছবি কিংবা ভিডিও বিভিন্ন কন্ট্যাক্টের সঙ্গে যুক্ত করা যায়। এছাড়া বিভিন্ন প্রয়োজনীয় কন্ট্যাক্ট নিয়ে তৈরি করা যায় গ্রুপ যাদের মধ্যে আলাদা ভাবে চ্যাট করা যায়। শুধু ব্ল্যাকবেরির জন্য হলেও বিবিএমের আদলের অ্যাপস অ্যান্ড্রয়েড এবং আইওএসের জন্য পাওয়া যায়।

ই-বাডি
স্মার্টফোনে ব্যবহার উপযোগী আরেকটি জনপ্রিয় মেসেঞ্জার হচ্ছে ই-বাডি। উইন্ডোজ লাইভ মেসেঞ্জার থেকে শুরু করে ই-বাডিতে ইয়াহু, এআইএম, আইসিকিউ, গুগল টক, মাইস্পেস, ফেসবুক চ্যাট করা যায়। নানা ধরনের সহজ চ্যাট সুবিধা ই-বাডি অ্যাপলের আইওএস, অ্যান্ড্রয়েড, সিমবিয়ান, উইন্ডোজ অপারেটিং সিস্টেম চালিত স্মার্টফোনে ব্যবহার করা যায়। স্মার্টফোনের নানা ধরনের মেসেঞ্জারের মধ্যে ই-বাডিও দারুন জনপ্রিয়। এতেও প্রতিটি আলাদা আইডির জন্য নির্দিষ্ট আইকন দেখা যায় যার মাধ্যমে কে কোন আইডিতে আছেন তা বোঝা যায়।

আইএম প্লাস
ইনস্ট্যান্ট মেসেজিং প্লাস (আইএম প্লাস) উইন্ডোজে চলা ফোনের জন্য জনপ্রিয় আরেকটি মেসেঞ্জার। এর মাধ্যমে টুইটার, স্কাইপ চ্যাট, ফেসবুক, গুগল টক, ইয়াহু, এমএসএন মেসেঞ্জার, আইচ্যাট, আইসিকিউ, মাইস্পেস ব্যবহার করা যায়। এছাড়া এর মাধ্যমে চ্যাটের পাশাপাশি বিনামূল্যে ছবি পাঠানো যায়। করা যায় মাল্টিমিডিয়া মেসেঞ্জিং সার্ভিস (এমএমএস) এবং এসএমএস। উইন্ডোজে চলা স্মার্টফোনের জন্য এটি বিনামূল্যে পাওয়া যায় তবে অ্যাপলের আইটিউনস অ্যাপ স্টোর, গুগলের অ্যান্ড্রয়েড মার্কেট গুগল প্লে, মাইক্রোসফটের এইচপি অ্যাপসে কেনার জন্য কিছু খরচ লাগবে। করা যায় গ্রুপ চ্যাট এবং আইএম পুস ব্যবস্থা চালু রেখে ব্যাটারির চার্জ বাঁচানো যায়। টুইটারের সকল পোস্ট, সরাসরি বার্তা, পোস্টের রিপ্লাই ইত্যাদিও করা যায় খুব সহজে আইএম প্লাসের মাধ্যমে।

 

একটি উত্তর ত্যাগ