ফায়ারফক্সের ১০টী শেরা অ্যাড অন

0
550

০১. কাস্টোমাইজ গুগল :

আমরা সবাই প্রতিদিন নানা কাজে গুগলের সাহায্য নেই। তথ্য খোঁজার কাজে, ছবি খোঁজার কাজে, কোনো কিছু জানার জন্য কিংবা নির্দিষ্ট কোনো সাইটের ঠিকানা ভুলে গেলে সে সাইটের ঠিকানা পাওয়ার জন্যও আমরা গুগলে গিয়ে থাকি। এছাড়াও গুগলের অন্যান্য সেবাও আমরা অহরহ ব্যবহার করে থাকি, যেমন জি-মেইল বা গুগল ডক্স। তবে গুগলের সব সাইটেই দেখতে পাবেন অসংখ্য বিজ্ঞাপনের বাহার। এসব বিজ্ঞাপন সরিয়ে ফেলতে চাইলে কাস্টোমাইজ গুগল অ্যাড-অনটি ইনস্টল করতে পারেন। এছাড়াও সার্চ ফলাফল পাতায় বাড়তি অনেক লিঙ্ক যোগ করতেও এই অ্যাড-অনটি কাজে আসবে। ডাউনলোড লিঙ্ক : addons.mozilla.org/en-US /firefox/addon/customizegoogle/

০২. ডাউনলোড দেম অল :

ইন্টারনেট ব্যবহার করে গান, ছবি, সফটওয়্যার, ডকুমেন্ট ইত্যাদি বিভিন্ন সাইট থেকে ডাউনলোড করে থাকি। ফায়ারফক্সের নিজস্ব ডাউনলোড ম্যানেজার ছোটখাটো ডাউনলোডের কাজ করতে পারলেও অ্যাডভান্স ডাউনলোডের কাজে এটি তেমন একটা সুবিধার নয়। এটি ডাউনলোড এক্সেলারেশনের মাধ্যমে স্পিড বাড়াতে পারে না কিংবা ডাউনলোড ফাইলটি রিজিউম করার উপযোগী কি না তাও বলতে পারে না। এ জন্য ব্রাউজারভিত্তিক শ্রেষ্ঠ ডাউনলোড ম্যানেজার হচ্ছে ডাউনলোড দেম অল। ডাউনলোড লিঙ্ক : https://addons.mozilla.org/en-US/firefox/addon/downthemall/

০৩. ফ্ল্যাশব্লক :

কিছু কিছু সাইটে প্রবেশ করলেই বিভিন্ন অ্যানিমেশন বা ভিডিও চলতে শুরু করে, যা অনেক ব্যান্ডউইডথ খরচ করে। বাংলাদেশে অনেকেই সীমিত ব্যান্ডউইডথের ইন্টারনেট ব্যবহার করেন। তাই তাদের জন্য এটা বেশ বিরক্তির কারণ হতে পারে। কেননা ফ্ল্যাশ ফাইল লোড হতে বেশ সময় লাগে এবং অনেক ব্যান্ডউইডথও খরচ হয়। এসব ফ্ল্যাশের ঝামেলা থেকে বাঁচতে ফ্ল্যাশব্লক অ্যাড-অনটি সাহায্য করবে। এটি ইনস্টল ও অ্যাক্টিভেট থাকলে সাইটে থাকা সব ফ্ল্যাশ কনটেন্ট ব্লক হবে এবং ব্যান্ডউইডথ বাঁচাতে পারবেন বেশি। এছাড়াও সব ধরনের বিজ্ঞাপন ব্লক করতে রয়েছে অ্যাড ব্লক প্লাস। ডাউনলোড লিঙ্ক : https://addons.mozilla.org/en-US/firefox/addon/flashblock/

০৪. ইউআরএল ফিক্সচার :

জরুরি কাজের সময় দ্রুত টাইপ করতে গিয়ে অনেক সময় ইউআরএল বা সাইটের ঠিকানা লিখতে ভুল হয়। ভুল এড়াতে ইউআরএল ফিক্সচার বেশ কাজের একটি অ্যাড-অন। তবে এটি শুধু সাইটের প্রথম অংশ বা প্রটোকল (এইচটিটিপি বা এইচটিটিপিএস), টিএলডি বা টপ-লেভেল ডোমেইন (ডট কম, ডট নেট, ডট অর্গ, ডট এডু ইত্যাদি) এবং কান্ট্রি কোড টিএলডি (ডট কম, ডট বিডি) এই তিনটি ভুল ঠিক করে তবে মূল ঠিকানার অংশে ভুল করলে ইউআরএল ফিক্সচার কিছু করতে পারবে না। ডাউনলোড লিঙ্ক : https://addons.mozilla.org/en-US/firefox/addon/url-fixer/

০৫. ইন্টারনেট এক্সপ্লোরার ট্যাব ২ :

কিছু কিছু পুরনো সাইট রয়েছে যেগুলো ইন্টারনেট এক্সপ্লোরার ছাড়া ভালো দেখা যায় না। বাংলাদেশেরই কিছু পত্রিকার সাইট রয়েছে যেগুলো ফন্ট ডাউনলোড ছাড়া দেখতে হলে ইন্টারনেট এক্সপ্লোরারের বিকল্প নেই। এটি ফায়ারফক্সের মাঝেই ইন্টারনেট এক্সপ্লোরারের মতো করে একটি ট্যাব খুলবে যেখানে পুরো ইন্টারনেট এক্সপ্লোরারের অভিজ্ঞতাই পাবেন। ডাউনলোড লিঙ্ক : https://addons.mozilla.org/en-US/ firefox/addon/ie-tab-2-ff-36/

০৬. ফায়ারশট :

ওয়েবসাইটের নির্দিষ্ট কোনো অংশ বা পুরো পৃষ্ঠার স্ক্রিনশট নেয়ার ক্ষেত্রে ফায়ারশট বেশ জনপ্রিয় একটি অ্যাড-অন। এটি ব্যবহার করে স্ক্রিনশট নেয়া ছাড়া এর নিজস্ব ইমেজ এডিটর দিয়ে ছবি এডিটের কাজও করতে পারবেন। যাদের প্রায়ই বিভিন্ন সাইটের স্ক্রিনশট নিতে হয়, তাদের জন্য ফায়ারশট বেশ সহায়ক ভূমিকা পালন করতে পারে। ডাউনলোড লিঙ্ক : https://addons.mozilla.org/en-US/firefox/addon/fireshot/

০৭. কালারজিলা :

ওয়েব ২.০-এর বিপ্লবের পর ইন্টারনেটে চালু হয়েছে অসংখ্য নতুন নতুন ডিজাইন ও ধারণার ওয়েবসাইট। এসব সাইটের কোনো কোনোটিতে রয়েছে দৃষ্টিনন্দন ডিজাইন ও আকর্ষণীয় রঙের বাহার। এর মধ্যে কোনো রঙ যদি আপনার পছন্দ হয়ে যায়, তাহলে কালারজিলা ব্যবহার করে সেই রঙের সঠিক কালার রিডিং জানতে পারবেন, যা ব্যবহার করে ওয়েব বা গ্রাফিক্স ডিজাইনের কাজে ব্যবহার করতে পারবেন। ডাউনলোড লিঙ্ক : https://addons.mozilla.org/en-US/firefox/addon/colorzilla/

০৮. ফায়ারবাগ :

ওয়েব ডেভেলপার এবং ডেভেলপিং শিখতে আগ্রহীদের জন্য জনপ্রিয় একটি অ্যাড-অন ফায়ারবাগ। ফায়ারবাগের মাধ্যমে যেকোনো কমপ্লেক্স সাইটের যেকোনো অংশের সোর্স কোড আলাদা আলাদাভাবে দেখা যায়। ফায়ারবাগ ইনস্পেক্টর দিয়ে সাইটের যেকোনো স্থানে কার্সর রেখে সেখানের সোর্স কোড, এইচটিএমএল ও সিএসএস কোড দেখতে পাবেন। ওয়েব ডেভেলপিংয়ে আগ্রহ থাকলে ফায়ারবাগ কমপিউটারে থাকা দরকার। ডাউনলোড লিঙ্ক : https://addons.mozilla.org/en-US/ firefox/addon/firebug/

০৯. লাস্টপাস :

সোস্যাল নেটওয়ার্কিং, ই-মেইল, বুকমার্কিং, অফিস বা শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের সাইট ইত্যাদি ক্ষেত্রে একাধিক ওয়েব অ্যাকাউন্ট প্রায় সবারই থাকে। আর তাদের জন্যই পাসওয়ার্ড ভুলে যাওয়া ঠেকাতে লাস্টপাস। লাস্টপাস বিশ্বের অন্যতম জনপ্রিয় পাসওয়ার্ড ম্যানেজার যা দিয়ে সব অ্যাকাউন্টের পাসওয়ার্ড সংরক্ষণ করতে পারবেন একটি মাস্টার পাসওয়ার্ড দিয়ে। আপনার প্রতিটি পাসওয়ার্ড এনক্রিপ্টেড অবস্থায় লাস্টপাসের সার্ভারে জমা থাকবে। আপনি স্বয়ংক্রিয়ভাবে বা মাস্টার পাসওয়ার্ড প্রতিবার ব্যবহার করে অ্যাকাউন্টসমূহে লগইন করতে পারবেন। যাদের প্রায়ই একাধিক অ্যাকাউন্টে লগইনের ঝক্কি পোহাতে হয়, তাদের জন্য অনন্য সমাধান লাস্টপাস, যা ফায়ারফক্সে অ্যাড-অন হিসেবে ডাউনলোড করে ব্যবহার করা যায়। ডাউনলোড লিঙ্ক : https://addons.mozilla.org/en-US/ firefox/addon/lastpass-password-manager/

১০. লাজারাস ফরম রিকভারি :

যারা ব্লগিং করেন, বিভিন্ন সাইটে মন্তব্য করেন বা ডাটা এন্ট্রির কাজ করেন, তাদের প্রায়ই একই ফরম বারবার পূরণ করতে হয়। এছাড়াও বিদ্যুৎ চলে যাওয়ার কারণে প্রায়ই হয়তো পুরো লেখা নতুন করে লিখতে হয় যদি না তা সেভ করা থাকে। লাজারাস হচ্ছে এমন এক ফায়ারফক্স অ্যাড-অন, যা ব্রাউজারে যেকোনো ফরমে বা টেক্সট বক্সে টাইপ করা প্রতিটি অক্ষর সেভ করে রাখবে। এতে বিদ্যুৎ চলে যাক বা সিস্টেম ক্র্যাশ করুক, প্রতিটি টাইপ করা অক্ষর সেভ থাকবে লাজারাসে। বাড়তি সুবিধা হিসেবে প্রতিবার ফরম রিকভার করার জন্য পাসওয়ার্ড সেট করে দিতে পারেন। এছাড়াও ডাটাবেজ কতদিন পরপর মুছা হবে তাও নির্ধারণ করার সুবিধা রয়েছে। ডাউনলোড লিঙ্ক : https://addons.mozilla.org/en-US /firefox/addon/lazarus-form-recovery/

একটি উত্তর ত্যাগ