এসইও তে ৬ টি লিংক বিল্ডিং এর ভুল এবং সমাধান

0
491

যদি আপনি চান সার্চ ইঞ্জিন গুলোতে আপনার সাইট এর জন্য ভালো রেঙ্ক করাতে তাহলে শুধু ব্যাকলিঙ্ক করলে হবে না অবশ্যই গুণগত মান ব্যাকলিঙ্ক করতে হবে। এসইও এর ব্যাকলিঙ্ক করার সময় অনেক মানুষ অজ্ঞাতসারে কিছু ভুল করে থাকে, যার দ্বারা সার্চ ইঞ্জিন গুলো থেকে রেঙ্ক হারায়। তাই আজকে আমি আপনাদের সঙ্গে ৬ টি এসইও ভুল নিয়া আলোচনা করব।

 

একটা খারাপ সাইট এর জন্য ব্যাকলিঙ্ক করা

কখনো ব্যাকলিঙ্ক করবেন না একটি খারাপ সাইট এর জন্য। খারাপ সাইট বলতে স্প্যাম সাইট, ডুপ্লিকেট কনটেন্ট সাইট, auto blogging, illegal সাইট, পর্ন ইত্যাদি সাইট। মনে রাখতে হবে, সার্চ ইঞ্জিন অবশ্যই ভালোবসবে না এই সকল সাইট সেইসাথে আপনি যদি খারাপ সাইট গুলোতে আপনার ভালো সাইট এর জন্য ব্যাকলিঙ্ক করেন তাহলে সার্চ ইঞ্জিন গুলো আপনাকেও প্লেনটি দিবে এবং অবশ্যই রেঙ্ক হারাবেন। তাই অবশ্যই সাইট এ রেঙ্ক করার জন্য এই সকল সাইট এ ব্যাকলিঙ্ক করা থেকে বিরত থাকতে হবে।

ব্যাকলিঙ্ক কেনা ও বিক্রয়

ব্যাকলিঙ্ক পাবার আশায়  কখনো লিংক কেনার চেষ্টা করবেন না। ব্যাকলিঙ্ক কিনার ফলে মাজে মাজে দেখা যায় সার্চ ইঞ্জিন গুলো তাদের ইনডেক্সিং থেকে সাইট বাতিল করে।  SEs শুধুমাত্র ন্যাচারাল লিংক ভালবাসেন। বিশেষভাবে সার্চ ইঞ্জিন গুগল ক্লিয়ার করে দিসেন যে কিনা এবং বেচা লিংক গুলো বিবেচনা করা হয় স্প্যাম হিসাবে  এবং অবশ্যই এই  ধরনের লিংক থেকে নিজের সাইটকে বিরত রাখতে হবে।
 
নো ফলো ব্যাকলিঙ্ক সার্চ ইঞ্জিন এ, সাইট রেঙ্ক করার জন্য কার্যকরী না। বিশেষভাবে গুগল এ রেঙ্ক করার ক্ষেত্রে কিন্তু যদি আপনি চান সার্চ ইঞ্জিন বিং ডট কম এ  রেঙ্ক করাতে তাহলে নো ফলো করতে পারেন। গুগল পরিষ্কার ভাবে উল্লেখ করছে গুগল অনেক সময় অবহেলা করে নো ফলো ট্যাগ। আপনি ব্যাক লিঙ্ক বিল্ডিং এর জন্য ডুফলো এর উপর বেশি কাজ করেন। নো ফলো করবেন কিন্তু ডুফলো উপর কাজ করতে হবে নো ফলোর থেকে বেশি। মনে রাখতে হবে শুধুমাত্র ডুফলো করলে স্পামিং হবে এতে করে আপনার সাইট এর রেঙ্ক হারাতে পারেন।

 

 হাই পেজ রেঙ্ক সাইট হতে ব্যাকলিঙ্ক

হাই পেজ রেঙ্ক সাইট হতে ব্যাকলিঙ্ক পাওয়াটা আমরা অনেকই মাথায় রাখি না। হাই পেজ রানক সাইট হতে ব্যাকলিঙ্ক পাওয়া খুবই কার্যকারী সার্চ ইঞ্জিন গুলোতে রেঙ্ক করাবার জন্য। কিন্তু মনে রাখতে হবে হাই এবং লো পেজ রেঙ্ক হতে ব্যাকলিঙ্ক রাখতে হবে। যদি আপনি অত্যধিক হাই পেজ রেঙ্ক ওয়ালা সাইট থেকে ব্যাকলিঙ্ক নিলেন আর পেজ রেঙ্ক ০ ওয়ালা থেকে একটাও ব্যাকলিঙ্ক নেই। তাহলে স্বাবাবিকভাবে এই লিংক বিল্ডিং খাটি দেখায় না। একটা ভালো মানের কাজ হলো দুই সাইট থেকে ব্যাকলিঙ্ক নেত্তয়া অর্থাত হাই পেজ রেঙ্ক ওয়ালা সাইট এবং লো পেজ ওয়ালা সাইট।

নোট: ব্যাকলিঙ্ক পেজ রেঙ্ক হইতে ০ এবং ১ মূলত খুবই লো, পেজ রেঙ্ক ২ এবং ৩ কম বেশ গ্রহণযোগ্য, পেজ রেঙ্ক ৪ অথবা এর উপরে জাস্ট ফাইন।

 

অপ্রাসঙ্গিক সাইট হতে ব্যাকলিঙ্ক লত্তয়া

একটি অপ্রাসঙ্গিক সাইট এর নিচি অর্থাত আপনার সাইট এর বিষয়বস্তু থেকে অন্য বিষয়বস্তু হতে ব্যাকলিঙ্ক লত্তয়া থেকে বিরত থাকতে হবে। একটা কোয়ালিটি ব্যাকলিঙ্ক একই বিষয়বস্তু হতে লত্তয়াটা অনেক কার্যকারী হবে গুগল সার্চ ইঞ্জিন রেঙ্ক করাতে।তাই চেষ্টা করুন ব্যাকলিঙ্ক পেতে একই বিষয়বস্তুর সাইট হতে।

আপনার টার্গেট কীওয়ার্ড ছাড়া আংকর টেক্সট এ লিংক

আংকর টেক্সট একটি প্রধান ভূমিকা পালন করে সার্চ গুগল রাঙ্কিং এ। আপনার সাইট এর নাম অথবা আপনার নামের বদলে যদি আপনি আপনার টার্গেট করা কীওয়ার্ড ব্যবহার করতে পারেন আংকর টেক্সট হিসাবে তাহলে এটা খুবই উপকির্ত করবে আপনার সাইট এর সেই কীওয়ার্ড টা রেঙ্ক করাতে।

নোট: “ক্লিক করুন এখানে” বা “চেক করুন এটা” এই সব টাইপ এর আংকর টেক্সট এ কখনো ব্যবহার করবেন না।
যদিও হাই পেজ রেঙ্ক সাইট ওয়ালা থেকে ব্যাকলিঙ্ক পাওয়া সব সময়ের জন্য ভালো কিন্তু যদি আপনি আপনার টার্গেট কীওয়ার্ড বা প্রাসঙ্গিক কীওয়ার্ড দিয়া আংকর টেক্সট হিসাবে ব্যাকলিঙ্ক পেতে পারেন তাহলে এটা খুবই কার্যকারী হবে আপনার সাইট এর রেঙ্ক করার জন্য।

 

কিছু দিনের এর মধ্যে বিপুল পরিমান ব্যাকলিঙ্ক

অনেক সময় দেখা যায় সাইট এর ভিসিটর থেকে ব্যাকলিঙ্ক এর পরিমান বেশি খুবই কম সময়ের মধ্যে, এটা স্বাবাবিক ভাবেই স্পামিং বুঝা যাই। আমরা কখনো চেষ্টা করব না খুবই অল্প সময়ের মধ্যে ব্যাকলিঙ্ক নিতে এবং অল্প ভিসিটর যদিও থাকে। ভিসিটর অনুযায়ী ব্যাকলিঙ্ক নিব। এই ৭ নম্বর পয়েন্টটা সাইট এ করানর জন্য একটা সাইটকে গুগল তাদের ইনডেক্সিং থেকে বাদ দিতে পারে। মনে রাখতে হবে পাঁচ তোলা বিল্ডিং একদিনই উঠানো সম্ভব না । উঠাতে হলে টাইম এর প্রয়োজন।

LEAVE A REPLY

15 + one =