২৮৮০ সালের ১৬ মার্চ পৃথিবী ধ্বংস হয়ে যেতে পারে

0
446

২৮৮০ সালের ১৬ মার্চ ২৮৮০ সালের ১৬ মার্চ পৃথিবী ধ্বংস হয়ে যেতে পারেপৃথিবী ধ্বংস হয়ে যেতে পারে ২৮৮০ সালের ১৬ মার্চ। বিশাল আকৃতির একটি গ্রহাণু পৃথিবীর দিকে ধেয়ে আসছে তীব্র গতিতে। এটিই ঘটাতে পারে প্রাণিকুলের বিনাশ। এই আশঙ্কার কথা বলছেন জ্যোতির্বিজ্ঞানীরা।

১৯৫০ ডিএ নামের গ্রহাণুটির হাত থেকে রক্ষা পাওয়ার কোনো কৌশল আপাতত বিজ্ঞানীদের জানা নেই। তবে আশার কথা হলো, গ্রহাণুটি পৃথিবীকে আঘাত করার আগেই খণ্ড বিখণ্ড হয়ে যেতে পারে। আর গ্রহাণুটি অক্ষত থেকে ধেয়ে এলেও পৃথিবীকে আঘাত করার আশঙ্কা ৩শ’ ভাগের এক ভাগ মাত্র। তবু ধরিত্রীর জন্য দুঃসংবাদ। শেষ পর্যন্ত গ্রহাণুটি যদি আঘাতই হানে তাহলে কিন্তু রক্ষা নেই। বর্তমান গতিতে এটি পৃথিবীতে আঘাত থানবে ২৮৮০ সালের ১৬ মার্চ। আর ওই দিনটাই হবে পৃথিবীর শেষ দিন।

যুক্তরাষ্ট্রের ইউনিভার্সিটি অব টেনেসির গবেষকরা গ্রহাণুটি আবিষ্কার করেন। এর ব্যাস প্রায় এক হাজার মিটার। ধেয়ে আসছে প্রতি সেকেন্ডে ১৫ কিলোমিটার গতিতে। ৪৪ হাজার ৮০০ মেগাটন টিএনটি ব্যবহারে যে ধ্বংসযজ্ঞ ঘটানো সম্ভব সে রকমটা ঘটতে পারে গ্রহাণুটি পৃথিবীতে আছড়ে পড়লে।

ধারণা করা হয়, ৬ কোটি ৬০ লাখ বছর আগে একটি বড় গ্রহাণু মেক্সিকোতে আছড়ে পড়েছিল। যার কারণে পৃথিবী থেকে ডাইনোসর পুরোপুরি বিলুপ্ত আর বৃক্ষরাজি ধ্বংস হয়েছিল।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here

2 + 8 =