ফেসবুকে ছদ্মনামে পোস্ট করার অ্যাপ্লিকেশন

0
454

ফেসবুক একটি নতুন অ্যাপ্লিকেশন প্রকাশ করেছে যেটি ব্যবহার করে ব্যবহারকারীরা ছদ্মনাম ব্যবহার করে কোনো কিছু শেয়ার করতে পারবেন।

বৃহস্পতিবার ‘রুম’ নামে স্বতন্ত্র এই মোবাইল অ্যাপ্লিকেশনটির উন্মোচন করা হয়।

অ্যাপ্লিকেশনটি ব্যবহার করে ব্যবহারকারীরা তাদের আসল নাম ব্যবহার না করে ফেসবুকে একে অন্যের সাথে যোগাযোগ করতে পারবে। অ্যাপ্লিকেশনটির উদ্দেশ্য হচ্ছে মানুষ যেন দ্বিধাহীনভবে স্পর্শকাতর বিষয়ে আলোচনা করতে পারে।

রুম তৈরি করা হয়েছে বিভিন্ন ধরনের ছবি এবং পোস্টের সমন্বয়ে। এর ব্যবহারকারীরা যেকোনো একটি বিষয় নির্বাচিত করার পর অন্যদেরকে এতে যোগদানের জন্য আমন্ত্রণ জানাতে পারবেন এবং এসব কিছুই ছদ্মনামে পোস্ট করতে পারবেন। রুমের রং, আইকন এবং কভার ফটোও পরিবর্তন করা যাবে ব্যবহারকারীর ইচ্ছানুযায়ী।

অ্যাপ্লিকেশনটির ব্যাপারে মূল ভূমিকা পালনকারী ফেসবুকের পণ্য ব্যবস্থাপক জোশ মিলার বলেন, ‘অনেক পরিস্থিতি বিবেচনা করেই অ্যাপ্লিকেশনটি তৈরি করা হয়েছে। কিছু পরিস্থিতিতে হয়ত আপনি চান না মানুষ আপনাকে জানুক আপনি কে। আমরা ব্যবহারকারীকে নমনীয়তা দিতে চাই।’

ভবিষ্যতে রুমের অ্যান্ড্রয়েড ও ডেস্কটপ সংস্করণ প্রকাশ করা হবে বলে তিনি জানান।

অ্যাপ্লিকেশনটি ফেসবুকের জন্য একটি উল্লেখযোগ্য পরিবর্তন। ২০০৪ সালে যখন ফেসবুকের যাত্রা শুরু হয় তখন ব্যবহারকারীকে সাইন আপ করার সময় তাদের আসল নাম আবশ্যিকভাবে নিবন্ধন করতে হত। বর্তমানে ফেসবুকের গ্রাহক সংখ্যা ১০০ কোটিরও বেশি।

প্রধান পণ্য কর্মকর্তা ক্রিস কক্স বলেন, কোম্পানি খুব শিগগিরই এই নীতি বাস্তবায়ন করবে। ব্যবহারকারীদের নিরাপদ রাখতেই এই উদ্যোগ যাতে তারা আরো বেশি খোলামন নিয়ে তাদের ব্যক্তিগত তথ্য আদান-প্রদান করতে পারে।

তিনি বলেন, ‘প্রথমত, এটি ফেসবুকের একটি বিশেষ অংশ যা ফেসবুককে অন্যান্য ইন্টারনেট সেবার মান থেকে পৃথক করবে যেখানে ছদ্মনাম, নামহীনতা কিংবা নির্বিচার নাম সামাজিক আদর্শ।’

‘দ্বিতীয়ত,প্রতিদিন সারা বিশ্বের লাখ লাখ মানুষকে বাস্তব ক্ষতি থেকে রক্ষা করার এটি একটি প্রাথমিক প্রক্রিয়া।’

নতুন এই অ্যাপ্লিকেশনটিকে দ্রুত জনপ্রিয়তা অর্জন করা নতুন সামাজিক নেটওয়ার্ক ‘ইলো’র একটি প্রতিক্রিয়া হিসেবে মনে করা হচ্ছে।

‘ইলো’ ব্যবহারকারীরা যে কোনো নাম ব্যবহার করে অন্যদেরকে আমন্ত্রণ জানাতে পারে।

ইলো তার প্রতিদ্বন্দ্বী অন্যান্য সামাজিক নেটওয়ার্ক থেকে নিজেকে পৃথক হিসেবে দাবি করেছে। তারা অঙ্গীকার করেছে গ্রাহকদেরকে ‘ব্যক্তি’ হিসাবে মূল্যায়ন করার এবং গ্রাহকদের ব্যক্তিগত তথ্যকে বিজ্ঞাপণদাতা হিসাবে তৃতীয় কোনো পক্ষের কাছে বিক্রি না করার।

ইলোর ম্যানিফেস্টোতে তার প্রতিদ্বন্দ্বী সম্পর্কে বলা হয়েছে, ‘আপনার করা প্রতিটি পোস্ট, আপনার তৈরি করা প্রতিটি বন্ধু এবং আপনার অনুসরণ করা প্রতিটি লিঙ্ককে নথিভুক্ত করে উপাত্ত হিসেবে রূপান্তরিত করা হয়। বিজ্ঞাপনদাতারা আপনার তথ্য ক্রয় করে, যাতে তারা আপনাকে বিজ্ঞাপন হিসেবে দেখাতে পারে। আপনাকে পণ্য হিসেবে বেচা-কেনা করা হচ্ছে।’

বিজ্ঞাপন মুক্ত সাইটি দাবি করেছে যে, তারা ব্যবহারকারীদের কাছ থেকে সাইন আপ করতে চেয়ে প্রতি ঘন্টায় ৪০,০০০ অনুরোধ পাচ্ছে।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here

three + thirteen =