Kaspersky Internet Security for Android (Letest Version) + ৪ মাস জেনুইন লাইসেন্স কী

0
611

মোবাইল বাজারে এন্ড্রয়েড স্থান এখন কোথায় তা আর বলা লাগে না। সবাই এখন প্রযুক্তির ভিতর ডুবে আছে আর উধাহরন হিসাবে বলা যাই এন্ড্রয়েডের কথা। এইতো কিছু দিন আগের কথা এই এন্ড্রয়েডের জন্য আমাদের সবার পরিচিত মোবাইল কোম্পানি নোকিয়ার ইউনিট বিক্রি হয়ে গেল মাইক্রোসফট এর কাছে। এখন আপনাদের কাছে এন্ড্রয়েড অনেক জনপ্রিয় হয়েছে,এবং সাথে সাথে এর নতুনত্ব বেড়ে চলেছে। যেহেতু নতুনত্ব বাড়ছে সাথে বাড়ছে বিভিন্ন সমস্যা। এন্ড্রয়েডের সমস্যার ভিতর সব চেয়ে বড় সমস্যাএন্ড্রয়েড মোবাইল সিকিউরিটির। এই সমস্যা নিয়ে না লিখলেই না।

kaspersky-internet-security-apk-download-for-android-smartphones Kaspersky Internet Security for Android (Letest Version) + ৪ মাস জেনুইন লাইসেন্স কী

এবার সব থেকে প্রয়োজনীয় কিছু সিকিউরিটি সম্মন্ধে আপনাদের জানাবো।

১ আপনি আপানর এন্ড্রয়েড মোবাইলটি সুরক্ষিত রাখতে পারবেন পাসওয়ার্ডের মাধ্যমে এই সামান্য কাজটি আপনার মোবাইলকে অনেক সুরক্ষিত রাখতে পারে। আপনার সব ধরনের প্রয়োজনীয় অ্যাপস থেকে শুরু করে আপনি আর অনেক কিছু সুরক্ষিত রাখতে পারেন যেমন আপনার মিন্ট ব্যাংক অ্যাপস, জার্নাল অ্যাপস (dayone)আপনার নোট অ্যাপস (evernote) ইত্যাদি আপনি নিশ্চিন্তে রাখতে পারেন। ইমেল অ্যাপস যখন আপনার মোবাইলে ইন্সটাল করা থাকে তখন যে কেউ আপনার মোবাইলে প্রবেশ করে আপনার প্রয়োজনীয় তথ্য হাতিয়ে নিতে পারে। কিন্তু আপনার এই হোম স্ক্রিন পাসওয়ার্ড আপনার মোবাইলকে অনেক  সহজে রক্ষা করতে পারে।

২       এন্ড্রয়েড মোবাইলের দ্বিতীয় সিকিউরিটি যে বিষয় তা আছে তা হয়তো অনেকে জানেন না বা বুঝতে পারেন না যে কেও আপনার আই ক্লাউড বা আপনার জিমেইল একাউন্ট এ গিয়ে আপনার কত বড় ক্ষতি করতে পারে। যখন আপনি আপনার স্মার্ট ফোনে অনেক কষ্ট করে কিছু তৈরি করলেন এবং কেও আপনার মোবাইলে আই ক্লাউড বা জিমেইল ব্যাবহার করে আপনার সব তথ্য চুরি করে নিলো। আপনি এর জন্য আপনার মোবাইলের জিমেইল একাউন্টে ২ স্টেপ একটিভ করে নিতে পারেন এই কাজটি করলে কেউ যদি আপনার জিমেইল পাসওয়ার্ড জেনেও যায় তাহলে আপনার ভয়ের কিছু নেই। কারন আপনার মোবাইলের ২ স্টেপ একটিভ করা আছে। তাই কেও যদি আপনার জিমেইলে লগ ইন করে তাহলে আপনার মোবাইলে যে কোডটি আসবে সেটা ছাড়া কেউ আপনার একাউন্টে প্রবেশ করতে পারবে না।

৩       রুট করা থেকে বিরত থাকুন

আপনি হয়তো আপনার মোবাইল ফোনটি রুট করে অনেক মজা পাচ্ছেন। কারন রুট করার ফলে আপনি মুক্ত হতে পারেন। আপনার মনের মত অ্যাপস আপনি ইন্সটল করতে পারেন কিন্তু আপনি কি জানেন আপনার এই রুট করার ফলে আপনার ক্ষণিকের আনন্দ পরিনিত অতে পারে বিষাদে। কারন আপনার মোবাইল ফোনটি আপনি  যত দিন রুট না করবেন তত দিন আপনার মোবাইল সব ধরনের দূষিত অ্যাপস থেকে বিরত থাকবে এবং যখন আপনি রুট করবেন তখন আপনার মোবাইলে কোন ধরনের বাধা থাকবে না তাই সেখানে অ্যাপস এর সাথে ভাইরাস প্রবেশ করতেই পারে তো আপনি যত দূর পারেন আপনার মোবাইলটি রুট করা থেকে বিরত থাকুন।

৪         যে কোন অ্যাপস ডাউনলোড করতে একটু সতর্ক থাকুন

এন্ড্রয়েড মোবাইল মানে নিত্য নতুন অ্যাপস ডাউনলোড করা আর মজা নেওয়া। কিন্তু আপনি একটু ও ভেবে দেখেছেন আপনার অ্যাপস টি ভাইরাস মুক্ত কি না। হ্যা অবশ্যয় আপনার মোবাইল অ্যাপস টি পরিক্ষা করবেন। এই তো কিছু দিন আগে গুগলে ৫০,০০০ অ্যাপস রিমুভ করেছে। কারন গুগলে এর অ্যাপস সব সময় ভাইরাস মুক্ত থাকে তাই তারা কোন সমস্যা হওয়ার আগে এই সব অ্যাপস গুলা রিমুভ করে থাকে। দেখা গেছে ২০১২ সালে  ৩২ মিলিয়ন এন্ড্রয়েড ডিভাইস অ্যাপস এর ভাইরাস দ্বারা আক্রান্ত হয়েছে। এগুলো আপেল এ ৯৫% আক্রান্ত হয়েছে। আপনি যদি অ্যাপেল পছন্দ না করেন। কিন্তু যদি এটা আপনার সাধের মোবাইলের সাথে হয় তবে কেমন হবে তাই অবশ্যয় অ্যাপস বা সফটওয়্যার ডাওনলোড করার সময় সতর্ক থাকবেন। এন্ড্রয়েড জন্য গুগলে প্লে স্টোর থেকে ডাউনলোড করলে ভাল হয়।

৫      আপনি যদি আপনার মোবাইলে কোন ব্যাংকের কাজ কারবার করে থাকেন তাহলে অবশ্যয় আপনার স্মার্ট         ফোনে একটি মাত্র ব্রাউজার ব্যাবহার করতে হবে। এসব কাজ কারবার করতে অবশ্যয় অফিশিয়াল অ্যাপস            ব্যাবহার করতে হবে। উধাহরন সরূপ ব্যাংক অফ আমিরিকা, ভানগার্ড, মিন্ট ইত্যাদি কোম্পানির তাদের              নিজেশ্য ব্রাউসজার থাকে।

৬   বর্তমানে হ্যাকাররা এই কাজটি খুব বেশি করে থাকে। মানে এরা ম্যাসেজের মাধ্যমে কিছু লোভনীয় অফার দেয়ে থাকে এবং তাঁর ভিতর ট্রোজান, স্পাইওয়্যার প্রভৃতি দিয়ে দেয়। এই ধরনের অফার থেকে দূরে থাকুন। ফিশিং এর উধাহরন সরূপ লটারি, কন্টেস্ট, ফ্রি ডাউনলোড ইত্যাদি।

এই ধরনের আর অনেক সমস্যা আছে যা আমাদের চিন্তার বাইরে নয়।

৭ ধরুন আপনার মোবাইল ফোন যদি অন্য কারো হাতে পরে যায় বা চুরি হয়ে যাই এবং ওই ব্যাবহার কারি যদি আপনার সব কনট্যাক্ট নাম্বার,ইমেইল নাম্বার জেনে যায় তবে কেমন হবে। নিশ্চয় ভাল হবে না। তাই এন্ড্ররয়েড এর জন্য একটি ভাল কাজ করেছে। যে প্রথম ব্যাবহারকারি তাঁর ডিভাইসটি বন্ধ করে দিতে পারবে। এই কাজটি মোট চার জন ব্যাবহাকারির তিন জন করতে পারবে। মোবাইল ডিভাইসের বড় সমস্যা হচ্ছে তথ্য হারিয়ে যাওয়া। দেখা গেছে প্রায় ৫৮% এন্ড্ররয়েড তাদের ফোনের তথ্য হারিয়ে যাওয়ার জন্য ভিত থাকে। অ্যাপেলের আইফোন ব্যাবহারকারিরা আইটিউন থেকে তাদের তথ্য সংগ্রহ করতে পারে। কিন্তু এন্ড্রয়েড ব্যাবহারকারিরা ডেক্সটপ সিঙ্ক করেও নিতে পারে না। কিন্তু একভাবে সকল ডাটা পাওয়া যেতে পারে তা হচ্ছে সকল ফাইলের ব্যাকআপ রাখা।

৮ আপনার এন্ড্রয়েড মোবাইল বেশির ভাগ আক্রান্ত হতে পারে ভাইরাস দ্বারা তাই আপনাকে অবশ্যয়  আপনার মোবাইলের সিকিউরিটি সফটওয়্যারটি আপডেড করে নিন। দেখা যায় আপনার কম্পিউটারে সুরক্ষার জন্য কত কিছুই না করেছেন কিন্তু আপনার মোবাইলের জন্য কোন দিন ভেবেছেন যে আপনার মোবাইল কি অবস্থায় আছে। তাই অবশ্যয় আপনাকে আপনার মোবাইলের সিকিউরিটি অ্যাপস টা আপডেড করে নিন।

৯ যখন আপনি ঘরে থাকবেন না তখন অবশ্যয় আপনার মোবাইলের ওয়্যারলেস এবং ব্লুটুথ অফ করে রাখবেন। বা আপনি যখন বাইরে যাবেন এবং আপনার ব্লুটূথের দরকার না থাকবে তখন ব্লুটুথ বন্ধ করে রাখবেন কারন আপনার ব্লুটূথ বা ওয়্যারলেস এর কানেকশন যদি কোন হ্যাকার পায় তাহলে আপনার মোবাইল টি হ্যাক করে আপনার প্রয়োজনীয় ডাঁটা চুরি করে থাকে। তাই সাবধান।

১০ বিশ্বব্যাপী স্মার্টফোন ইউজারের সংখ্যা দিন দিন বেড়েই চলেছে। আর বর্তমানে স্মার্টফোন ইন্ডাস্ট্রির শীর্ষে অবস্থান করছে স্যামসাঙ। সম্প্রতি কিছুদিন আগে দুবাই তে একটি স্যামসাঙ স্মার্টফোনের বিস্ফোরণ ঘটে। তবে এই বিস্ফোরণে স্মার্টফোন টি ছাড়া অন্য কিছু ক্ষতিগ্রস্ত হয়নি। তারপর সুইজারল্যান্ড এ একটি স্মার্ট ফোনে অগ্নিসংযোগ ঘটে এবং সর্বশেষ হংকং এ গ্যালাক্সি এস ৪ বিস্ফোরণে সম্পূর্ণ একটি এপার্টমেন্ট পুড়ে যায়। একবার ভাবুন, দিনভর আপনি আপনার স্মার্ট ফোন টি ব্যবহার করে থাকেন। সারাদিনে কখনো এটি আপনার হাতে, কখনো আপনার পকেটে থাকছে, আবার কল আসলে আপনি কানে লাগিয়ে কথাও বলছেন। আর বর্তমানে টিন এজারদের প্রায় সারাদিন কাটে স্মার্টফোন নিয়ে। যেখানে স্মার্টফোনের ব্যবহার এত বেশি সেখানে এরকম দুর্ঘটনা সত্যি আমাদের ভাবিয়ে তুলে। তাও আবার যেন তেন চাইনিজ স্মার্টফোনে বিস্ফোরণ ঘটলে একটা কথা ছিল, কিন্তু ঘটেছে বিশ্বের অন্যতম আধুনিক স্মার্টফোন স্যামসাঙ গালাক্সি এস ৪ এ। তাই ভাবনা টা আরও বেশি।

এন্ড্রয়েড এর জন্যে সেরা অ্যান্টিভাইরাস এবং সিকিউরিটি অ্যাপ হচ্ছে

1376976179 KIS%20A এন্ড্রয়েড মোবাইল সিকিউরিটি ও Kaspersky Internet Security for Android (Letest Version) Kaspersky Internet Security for Android (Letest Version) + ৪ মাস জেনুইন লাইসেন্স কী

Kaspersky Internet Security for Android

  • Anti-malware Protection – including Kaspersky’s latest Android antivirus technologies
  • Web Protection – against Internet-based attacks and phishing websites
  • Anti-Theft Protection – with remote access to special security features on your missing device
  • Privacy Protection – to control what others can see or access when they pick up your smartphone
  • Call & Text Filter – so your smartphone only receives the calls and texts you want to receive

unnamed 500x292 এন্ড্রয়েড মোবাইল সিকিউরিটি ও Kaspersky Internet Security for Android (Letest Version) Kaspersky Internet Security for Android (Letest Version) + ৪ মাস জেনুইন লাইসেন্স কী

Download_Link

Download From QR Code:

android security download এন্ড্রয়েড মোবাইল সিকিউরিটি ও Kaspersky Internet Security for Android (Letest Version) Kaspersky Internet Security for Android (Letest Version) + ৪ মাস জেনুইন লাইসেন্স কী

আপনার স্মার্ট ফোন থেকে কোড টি স্ক্যান করে সরাসরি Download পেজ এ চলে যান…

লাইসেন্স কী-

KJ45G-69Q45-ZRHTH-YFW8K

জয়েন করতে পারেনঃ জানালা ১০ এর সর্ববৃহৎ গ্রুপ

ক্লিক করুনঃ জানালা ১০ গ্রুপ

ধন্যবাদ সবাইকে।

একটি উত্তর ত্যাগ