বিশ্ব আইটি সেক্টর এগিয়ে যাওয়া কিন্তু আমরা হাঁটছি কোন পথে?

0
393

 

১। আমাদের পার্শ্ববর্তী দেশ ইন্ডিয়া আইটি সেক্টরে এখন এক কোটি লোক কাজ করে । সেখানে আইটি ইন্ডাস্ট্রির রেভিনিউ দিনদিন বাড়ছেই তো কমছেনা। ১৯৯৪-৯৫ সালে মোট উৎপাদন রেভিনিউছিল ৬ হাজার কোটি রুপি। ৯৮-৯৯ সালে ২৫ হাজার কোটি রুপি। এভাবে গিয়ে ২০০২-২০০৩ এ হয়েছে ৮০ হাজার কোটি রুপি।  যা ২০০৯-২০ এ গিয়ে হয়েছে ৪১৫ হাজার কোটি এবং এখন হয়েছে ৭০০০ কোটি রুপি। যা বর্তমানে ১২০০০ বড় গার্মেন্ট গ্রুপের রেভিনিউর সমান।  এরি মধ্যে ঘোষণা দিয়েছে ২০২০ সালে তাঁদের টার্গেট ৩০০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার এর উপরে।

বিশাল বিশাল বিল্ডিং সফটওয়ার টেকনোলোজি পার্কে হাজার হাজার নারী-পুরুষ রাত-দিন শিফটিং করে কাজ করছে। ভালো স্যালারী পাচ্ছে, যার মাধ্যমে তাঁদের পরিবারকেও টেনে নিয়ে যাচ্ছে।

ITindustryinindia 600x270 পুরনো টিউন এডিটর বিশ্ব আইটি সেক্টর এগিয়ে যাওয়া কিন্তু আমরা হাঁটছি কোন পথে?

২। ইন্ডিয়া খুব দ্রুপ গটিতে এগিয়ে যাচ্ছে। আর আমরা এখনও কোন পথে হাটছি? এখনও একজন বাংলাদেশীর তৈরি করা ওয়ার্ডপ্রেস থিমে এক লক্ষ হিট পড়লেই জাতীয় পত্রিকায় নিউজ হয়। বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব সফটওয়্যার অ্যান্ড ইনফরমেশন সার্ভিসেস (বেসিস) কয়েক হাজার লোককে আইটি ট্রেনিং এবং পুরষ্কার বিতরন দেওয়ায় হলো অর্জন। এই ট্রেনিং প্রাপ্তদের কতজন চাকরি পেয়েছে বা কতজন দক্ষ প্রোগ্রামার তৈরি করতে পেরেছে তা কেউই খোঁজ খবর রাখেনা। বর্তমানে সরকারী পর্যায়ে হাজার কোটি টাকা খরচ করে বিভিন্ন জেলা-উপজেলায় হাজার হাজার লোককে নাম মাত্র ফ্রিল্যান্স ট্রেনিং দিচ্ছে। ফ্রিল্যান্স কি এতই সোজা, যে সপ্তাখানেক ট্রেনিং দিয়েই সবাই হাজার হাজার ডলার আয় করবে?

৩। ২৫ হাজার ওয়েবসাইট নিয়ে জাতীয় তথ্য বাতায়ন তৈরি করা হয়েছে। কোন উপজেলায় তথ্য বাতায়ন যদি ঐ উপজেলার ভোক্তাদের জমি সহ চাষীয় খাদ্য দ্রব্য বেচা-কেনা, টেন্ডার প্রসেসিং, লোকাল চাকরির তথ্য না থাকে, তাহলে এই তথ্য বাতায়ন দিয়ে কি হবে? এই স্ট্যাটিক তথ্য কাজে লাগবে শুধু গুটিকয়েক বিসিএস বা চাকরী পরীক্ষার্থীদেরঅতচ বলা হয় এটি আমাদের নাকি বিশাল অর্জন।

৪। আইটি ইন্ডস্ট্রি এগিয়ে যাওয়ার জন্য সবচেয়ে দরকার সস্তা এবং দ্রুত গতির ইন্টার্নেট। বর্তমানে বিটিসিএল ১এমবিপিএস গতি ব্যন্ডুইথের দাম ৮০ হাজার থেকে কয়েক ধাপে কমাতে কমাতে এখন মাত্র ৪৮০০ টাকা। এটিই সরকারের বড় অর্জন। কয়েক ধাপে ব্যন্ডুইথের দাম অনেক কমালেও গ্রাহক পর্যায়ে এখনো সেই উচ্চমূল্য রয়ে গেছে। এখন ১গিবি শেয়ার ডাটা কিনতে হয় ৩৪৫ টাকায়।

৫। বাংলাদেশের ফ্রীল্যান্সাররা বর্তমানে হাজার কোটি ডলার দেশে নিয়ে আসছে কিন্তু এই বিশাল ফ্রীল্যান্সাররা সবসময় অবহেলায়। ফ্রীল্যান্সাররা যা আয় করছে সেখান থেকে সিংহভাগ চলে যাচ্ছে উচ্চগতি সম্পন্ন ব্যন্ডুইথের পেছনে। দেশের বাইরে অর্থ লেনদেনের সবচেয়ে সহজ, নিরাপদ হলো “পেপল”। এই পেপল এখনো অধরাই রয়ে গেছে। অনেকে বিভিন্ন ব্যংকের মাধ্যমে অর্থ দেশে নিয়ে আসছে। সেখানেও রয়েছে নানা রকমের হইরানি এবং ট্রানজেকশন চার্জ । যদিও ইনফরমেশন টেকনলোজি থেকে ইনকাম ২০২১ সাল পর্যন্ত ট্যাক্স ফ্রী এটাও উল্লেখ আছে।

৬। সরকারী অফিস আইটিতে কেমন উন্নয়ন হয়েছে তা সবাই জানে। যেখানে এখন অনলাইনের দ্রুতগতির যুগ, যে জায়গায় আমাদের সরকারী ব্যাংকগুলোতে চেক নিয়ে গেলে এখনো জিহ্বা থেলে আঙ্গুল ভিজিয়ে বড় বড় লগ বই উল্টায়। বর্তমানে বিশাল বেকার আইটি ইঞ্জিনিয়ারদের মেধা, তারুন্য নষ্ট না করে এই সরকারী অফিসে কাজে লাগাতে কারোর মাথা ব্যাথা নেই। এমনও শুনেছি সরকারী অফিস বা স্কুল-কলেজ গুলোতে নাকি কোন কম্পিউটারের অপারেটিং সিস্টেম নষ্ট হলেও বাজেট না আসা পর্যন্ত ঐভাবেই মাসের পর মাস পড়ে থাকে। কম্পিউটারের কতো ডিভাইস ধুলার মধ্যে পরে থাকতে থাকতে এক সময় আর ব্যবহার যোগ্য থাকেনা। বাজেট আসবে , এরপর থার্ডপার্টি আরেক কোম্পানির মাধ্যমে বিশাল টাকা খরচ করে ঠিক করবে। অতচ এই কাজটি কয়েকজন ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার দ্বাড়ায় করা যেতো। সরকারী  খরচও কম হতো, আরেকদিকে ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারেরও কর্মস্থান হতো। হায়রে আমাদের আইটি সিস্টেম !!!!!!!!!!!!

ইন্ডিয়ার চন্দ্র বাবু নাইডুর মতো যোগ্য নেতৃত্বের কারনে ইন্ডিয়ার আইটি ইন্ডাস্ট্রি এই পর্যায়ে পৌছেছে। বাংলাদেশে আমার মতো আইটি ইঙজিনিয়ারদের এমূহুর্তে  ইন্ডিয়ার চন্দ্র বাবু নাইডুর মতো যোগ্য নেতৃত্বের খুব প্রয়োজন হয়ে পড়েছে। না হলে ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার স্বপ্ন স্বপ্নেই থেক যাবে। বর্তমানে ডিজিটাল বাংলাদেশ বলা হলেও অন্য বিশ্বের সাথে তুলনা করলে ডিজিটাল বলতে কিছুই হইনি।

বিদ্রঃ আমার লেখার কিছু তথ্য ভারতের চেন্নাই থেকে জিয়া হাসান স্যারের দখিনা ম্যাগাজিনের প্রকাশিত লেখা “একজন চন্দ্র বাবু নাইডু, আমাদের আইটি সেক্টরের তোবারকের জিলাপি খাওয়া” থেকে লেখা।

আমার প্রিয় ব্লগঃ Bangla Blog

আরো পড়তে পারেনঃ

http://www.ibef.org/industry/information-technology-india.aspx

http://gadgets.ndtv.com/laptops/news/indian-it-industry-targets-300-billion-revenue-by-2020-338318

http://ict4dblog.wordpress.com/2010/01/05/indian-it-sector-statistics-1980-2009-time-series-data/

http://www.nasscom.in/indian-itbpo-sector-revenue-estimated-cross-usd-100-billion-mark

http://www.bdmonitor.net/newsdetail/detail/200/90498

LEAVE A REPLY

four + two =