আগামী ৫০০০ বছরের মধ্যে মানুষ পরিণত হবে পেঁচায়!!!

0
399

ইন্টারনেট মানুষের ঘুম কেড়ে নিয়েছে। বিশেষ করে ফেসবুকের মতো সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমগুলো তরুণ সমাজকে ভয়ঙ্কর রকম নিশাচর করে তুলছে। এই প্রবণতা অব্যাহত থাকলে মানুষ একসময় পেঁচার মতো নিশাচর প্রাণীতে পরিণত হবে। শুধু তা-ই নয়, আক্ষরিক অর্থেই মানুষ পালক ও পাখা বিশিষ্ট পেঁচায় পরিণত হবে!

বিজ্ঞান সাময়িকী এভোলুশন টুডে তে প্রকাশিত এক গবেষণা প্রতিবেদনে এমনটা দাবি করেছেন বিজ্ঞানীরা।

আগামী ৫০০০ বছরের মধ্যে মানুষ পরিণত হবে পেঁচায়! আগামী ৫০০০ বছরের মধ্যে মানুষ পরিণত হবে পেঁচায়!!!

গবেষণা প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, নতুন প্রজন্মে মানুষের জীবনযাত্রায় রাত জাগার অভ্যাস যেভাবে বেড়েছে তাতে মানুষ নিশাচরে পরিণত হচ্ছে ক্রমশ। আগামী ৫০০০ বছরের মধ্যে মানুষ পরিণত হবে পেঁচায়!

গবেষণার প্রধান বিজ্ঞানী মার্ক ডারউইন বলেন, ‘আমাদের অভ্যাস ও প্রয়োজন যেভাবে বদেলেছে সেই তার প্রভাবেই ধীরে ধীরে এপ (বানর প্রজাতি) থেকে মানুষের বিবর্তন ঘটেছে। আর এখন সময় মানুষ থেকে নিশাচর প্রাণীতে বিবর্তনের। আমাদের মধ্যে যারা ইন্টারনেট, স্মার্টফোন, ল্যাপটপ ব্যবহার করেন তাদের বেশিরভাগেরই রাত ৩টা থেকে ৪টা নাগাদ ঘুমোতে যাওয়ার অভ্যাস। অর্থাৎ আমরা ধীরে ধীরে নিশাচর প্রাণীতে পরিণত হচ্ছি।’

মার্ক ডারউইন ও তার দল জানায়, যাদের ওপর সমীক্ষা চালানো হয়েছিল তারা অনেকেই স্বীকার করেছেন ঘুমোতে যাওয়ার আগের মুহূর্ত পর্যন্ত তারা ফোন ব্যবহার করেন।

গবেষণায় দেখা গেছে, আগামী ২০০ বছরের মধ্যে বিশ্বের জনসংখ্যার সিংহভাগের কাছে পৌঁছে যাবে উন্নততর প্রযুক্তি। যার ফলে দিনে কাজ করার ক্ষমতা ধীরে ধীরে হারাবে মানুষ। সারারাত স্বচ্ছন্দে ইন্টারনেট ব্যবহার করে কাটাবে তারা। আর ৩০০০ সালের মধ্যে মানুষের শরীরে হবে পালকের আবির্ভাব। তবে পেঁচার মতো চোখ মানুষের থাকবে না যার দ্বারা রাতেও দেখা যায়। তার কারণ আমরা সাধারণত রাতে মোবাইল বা ল্যাপটপের দিকে তাকাতেই অভ্যস্ত। ফলে রাতের অন্ধকারে দেখার কোনও ক্ষমতা তৈরি হবে না। তাই দ্বিতীয় শ্রেণীর পেঁচায় পরিণত হবে মানুষ। আর পেঁচা সমাজে মিলবে না সমান সম্মানও।

তবে এই বিষয়ে প্রথম শ্রেণীর পেঁচায় পরিণত হওয়ার উপায় বাতলে দিয়েছেন মার্ক। ফোন ঘাঁটাঘাঁটি না করে রাতে অলসভাবে বসে থাকার পরামর্শ দিয়েছেন তিনি। তার ধারণা এই পদ্ধতিতেই প্রথম শ্রেণীর পেঁচায় পরিণত হবে মানুষ!

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here