পুরোনো ইলেকট্রনিক পণ্যটি ফেলে দিন বা বিক্রি করে দিন যাই করুন না কেনো পাঁচটি কাজ অব্যশই করা উচিত

0
521

পুরোনো ইলেকট্রনিক পণ্যটি বিশেষ করে মোবাইল ফোন, কম্পিউটার ইত্যাদি আর ব্যবহার করতে চাইছেন না? জিনিসটি ফেলে দিন বা বিক্রি করে দিন বা কাউকে দিয়ে দিন, যাই করুন না কেনো পাঁচটি কাজ অব্যশই করা উচিত।

১. ব্যাকআপ ফাইলগুলো রেখে দিন
প্রথমেই এ কাজটি করা উচিত। এতে রাখা ছবি, ভিডিও এবং ফোন নম্বরগুলো কপি করে রাখুন। যদি ব্যাকব্লেজ বা কার্বোনাইটের মতো অটোমেটিক কম্পিউটার ব্যাকআপ সার্ভিস না থেকে থাকে, তাহলে ম্যানুয়ালি এগুলো কপি করে রাখুন।

২. ব্যাকআপ রেখে তথ্য মুছে ফেলুন
এর পরের কাজটি হলো এগুলো মুছে ফেলা। কারণ যার কাছেই যাক ফোনটা, এর ভিতরে আপনার ব্যক্তিগত তথ্য তার হাতে পড়াটা ঠিক হবে না। এগুলো ম্যানুয়ালি মুছে ফেলুন বা ফরম্যাট দিয়ে ফেলুন। বহু পুরোনো ফোন এবং কম্পিটার কেনার পর দেখা গেছে তাতে আগের ব্যবহারকারীর বহু গুরুত্বপূর্ণ তথ্য রয়েই গেছে।

৩. তথ্য মুছতে না পারলে তা নষ্ট করে ফেলুন
যদি পণ্যটি কাউকে না দেওয়ার বা বেঁচে দেওয়ার ইচ্ছে না থাকে, তবে এর তথ্য মুছে ফেলতে না পারলে তথ্যের অংশটি নষ্ট করে ফেলুন। যেমন- একজন তার ল্যাপটপটা বিক্রি করার পরিকল্পনা করেন। কিন্তু তথ্য মুছে ফেলার সময় ইলেকট্রিসিটি চলে গেলো। কি আর করা। তিনি স্ক্রু-ড্রাইভার দিয়ে ল্যাপটপটি খুলে হার্ডডিস্কটি খুলে রেখে দেন।

৪. সঠিক উপায়ে রিসাইকেল করুন
যদি ফেলে দিতে চান, তবে তা সঠিক উপায়ে রিসাইকেল করুন। সাধারণত আমাদের দেশে এগুলো ময়লা ফেলার স্থানে ফেলে দেওয়া হয়। কিন্তু যা করা উচিত তা হলো, যে প্রতিষ্ঠান থেকে নিয়েছেন তাদের রিসাইকেল অংশের সঙ্গে যোগাযোগ করে ব্যবস্থা নেওয়া।

৫. দানের ক্ষেত্রে রেকর্ড রাখুন
যদি কোনো স্কুলে বা অলাভজনক খাতে পণ্যটি দান করে দিতে চান, তবে সম্ভব হলে তা ওই স্কুলের একটি রিসিটের মাধ্যমে দান করে দিন। অর্থাৎ, যেখানে পণ্যটি দান হয়ে যাচ্ছে তার একটি রেকর্ড আপনি রেখে দিবেন।

একটি উত্তর ত্যাগ