কম্পিউটার গেমস খেলার মাধ্যমে ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণ

0
418

কম্পিউটার গেমস টাইপ-২ ডায়াবেটিসে আক্রান্ত রোগীদের রক্তে চিনির মাত্রা নিয়ন্ত্রণে তুলনামূলকভাবে ভালো সহায়তা করে। তবে সব কম্পিউটার গেমস নয়, শরীর খেলানোর মতো গেমস। সাম্প্রতিক এক গবেষণার ফলাফলে এমন আভাস পাওয়া গেছে বলে একদল চিকিৎসাবিষয়ক গবেষকের দাবি। সম্প্রতি নিনটেনডো নামের একটি প্রতিষ্ঠান বাজারে নিয়ে এসেছে বিশেষ ধরনের কম্পিউটার গেমস।

বিবিসির খবরে জানানো হয়, পশ্চিম জার্মানির সেন্টার ফর ডায়াবেটিস অ্যান্ড হেলথের অধ্যাপক স্টিফেন মার্টিন ও তাঁর সহকর্মীরা গবেষণার মাধ্যমে আবিষ্কার করেছেন, ডায়াবেটিসে আক্রান্ত ব্যক্তিদের শারীরিকভাবে সচল রাখতে কম্পিউটার গেমস বিকল্প পথ হতে পারে। গবেষকদের মতে, নিয়মিত সক্রিয় কম্পিউটার গেমস খেলার মাধ্যমে টাইপ-২ ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে রাখা সম্ভব।

গবেষকেরা ২২০ জন ডায়াবেটিসে আক্রান্ত ব্যক্তির মধ্যে অর্ধেক রোগীকে তিন মাসের জন্য নিয়মিত আধা ঘণ্টা করে উই ফিট প্লাস নামের বিশেষভাবে তৈরি কম্পিউটার গেমস খেলতে দেন। শারীরিক সুস্থতা ধরে রাখার বেলায় এ গেমস সহায়ক বলে গবেষকদের দাবি। ফলাফলে দেখা যায়, অন্য ডায়াবেটিসের রোগীদের তুলনায় উই ফিট প্লাস ব্যবহারকারী ডায়াবেটিসের রোগীদের ওজনই শুধু কমেনি, রক্তে শর্করার মাত্রাও অনেক কমে গেছে।

গবেষণার বাকি অর্ধেক ডায়াবেটিসের রোগীদের উই খেলতে দিলে দেখা যায় তাঁরাও একই উপকার পেয়েছেন। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, শরীরচর্চা যেভাবেই করা হোক না কেন, তা স্বাস্থ্যের জন্য উপকারী। তবে কিছু শারীরিক কর্মকাণ্ড অন্যান্য কসরতের চেয়ে ভালো ফল বয়ে আনতে পারে। বিশেষ করে ডায়াবেটিসের রোগীদের জন্য সক্রিয় থাকা খুব জরুরি। এটি তাঁদের শরীরের ইনসুলিনের মাত্রাকে ঠিক রাখে এবং তাঁদের সুস্থ ও স্বাভাবিক ওজন ধরে রাখতে সাহায্য করে। তবে শুধু শরীরচর্চায় লাভ হবে না, এর পাশাপাশি পুষ্টিকর খাবার তালিকা অনুসরণ করলে ডায়াবেটিসের মাত্রা স্বাভাবিক থাকবে।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here

5 + six =