অনাকাঙ্খিত এসএমএস ও কল থেকে মুক্তি – উদ্যোগ নিয়েছে বিটিআরসি

0
371

মোবাইল গ্রাহকদের স্বার্থে এবার নীতিমালা করার উদ্যোগ নিয়েছে বিটিআরসি। এই নীতিমালা হলে বিভিন্ন অপারেটর অফারসহ এসএমএস ও ফোন কল করতে পারবে না। গ্রাহকরাও এসব অনাকাঙ্খিত এসএমএস ও কল থেকে মুক্তি পাবেন। এসব এসএমএস ও ফোন কল করে গ্রাহকদের সঙ্গে প্রতারণা করা হচ্ছে। তাদের পাঠানো অফার এসএমএস কার্যকর করতে গিয়ে গ্রাহকরা টাকাই দিয়ে যাচ্ছেন- অথচ অফারের কোন সুবিধাই পাচ্ছেন না।

দেশে ১৬ কোটি মানুষের মধ্যে ১২ কোটি মানুষ মোবাইল ফোন ব্যবহার করছেন। বিভিন্ন কোম্পানি মোবাইল অপারেটরদের টাকা দিয়ে তাদের বিজ্ঞাপনও প্রচার করছে। সময়-অসময়ে ব্যাংকিং, ইন্স্যুরেন্স, আবাসন শিল্প, শিক্ষা, স্বাস্থ্য, নিত্যব্যবহার্য সামগ্রী, অটোমোবাইল, ভ্রমণ বিষয়ে ফোন কল বা এসএমএস পাঠানো হচ্ছে। এসব এসএমএস গ্রাহকদের বিরক্তির কারণ। মোবাইল রিংটন ডাউনলোড করার ২২২২, ৪৮৪৮, আরও কিছু নম্বর থেকে ফোন করা হয়। এসব কল ধরলেই ফোন কলের মতোই টাকা কেটে নিচ্ছে অপারেটররা।

গ্রাহকদের এসব থেকে মুক্তি দিতে ‘কোন বিরক্তি না’ এই নামে বিটিআরসি নীতিমালা করতে যাচ্ছে। টেলিমার্কেটিং কোম্পানির বিজ্ঞাপন বা প্রমোশনাল এসএমএস বা অনাকাঙ্খিত ফোন কল থেকে মোবাইল ফোন গ্রাহকরা রক্ষা পাবে। এসএমএসের মাধ্যমে রেজিস্ট্রেশন করে গ্রাহকরা এ সেবা পাবেন। একটি ‘শর্ট কোড’ দিয়ে এই সেবা সুবিধা পাওয়া যাবে। এ ধরনের এসএমএস বা ফোন কল পুরোপুরি ব্লক না করেও বিভিন্ন বিভাগ অনুযায়ী ব্লক করে দেয়ার সুযোগ রাখা হবে নীতিমালায়। এ জন্য গ্রাহকদের কোন ফি দিতে হবে না। সেবা নেয়ার পর ২৪ ঘণ্টার মধ্যে তা কার্যকর করার বিধানও রাখা হচ্ছে নীতিমালায়।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here