ঈশ্বর এক বানোয়াট গল্প

0
474

বিখ্যাত ব্রিটিশ বিজ্ঞানী স্টিফেন হকিং আবারও বলেছেন, ঈশ্বর বলে কিছু নেই। নিজেকে ‘নাস্তিক’ বলেও উল্লেখ করেছেন তিনি। আ ব্রিফ হিস্টোরি অব টাইমের লেখক বলেছেন, ‘যখন আমরা সেভাবে বিজ্ঞান বুঝতাম না, তখন এটা বিশ্বাস করাই স্বাভাবিক ছিল যে, পৃথিবী সৃষ্টি করেছেন ঈশ্বর। কিন্তু (মহাবিশ্বের সৃষ্টি রহস্যের বিষয়ে) বিজ্ঞান এখন জোরদার ব্যাখা দিতে সক্ষম।’

ঈশ্বর এক বানোয়াট গল্প ঈশ্বর এক বানোয়াট গল্পহকিং বলেন, ‘ঈশ্বর থাকলে আমরা তার মনকে পড়ার চেষ্টা করতাম। তার মনকে পড়তে পারা মানে সবকিছু জেনে যাওয়া। আসলে কিন্তু ঈশ্বর বলে কিছু নেই। আর আমি একজন নাস্তিক।’

স্প্যানিশ দৈনিক এল মানডোকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে এ সব কথা বলেছেন তাত্ত্বিক এই পদার্থবিজ্ঞানী। স্টারমাস ফেস্টিভালে অংশ নিতে হকিং এখন স্পেনের ক্যানারি দ্বীপপুঞ্জে অবস্থান করছেন।

প্রসঙ্গত, ১৯৮৮ সালে প্রকাশিত হয় আ ব্রিফ হিস্টোরি অব টাইম। সেখানে ‘ঈশ্বরের মন’ নিয়ে কথা বলেন হকিং। ওই বইতে তিনি লেখেন, ‘ঈশ্বরের মনকে জানা উচিত’ বিজ্ঞানীদের।

‘ঈশ্বর নেই’- এমন কথা কিন্তু হকিং আগেও বলেছেন, কয়েকবার।

২০১১ সালে দ্য গার্ডিয়ানকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে হকিং বলেছিলেন, ‘ঈশ্বর এক বানোয়াট গল্প। স্বর্গ বা পরলোকে আমি বিশ্বাস করি না।’

এরও আগে ২০০৭ সালে বিবিসিকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে হকিং বলেছিলেন, ‘বিজ্ঞানের নিয়মনীতিই বিশ্ব-ব্রহ্মাণ্ডকে নিয়ন্ত্রণ করে বলে আমি বিশ্বাস করি। হতে পারে ঈশ্বরই এ সব নিয়ম বেঁধে দিয়েছেন। কিন্তু নিয়মগুলো ভাঙার জন্য ঈশ্বর কখনও ঝামেলা পাকান না।’

একটি উত্তর ত্যাগ