ফেসবুকে বেশি বেশি বন্ধু বানাতে চান? নিয়ে নিন দারুন টিপস

0
945

ফেসবুকে ইচ্ছে করলেই বেশি বেশি বন্ধু বানানো যায় না।  আপনি ইচ্ছেমত ফ্রেন্ড রিকোয়েস্ট পাঠাতে পারবেন না। এটা বেশি বেশি করলে মঝেমধ্যেই লক্ষ্য করবেন আপনার ফ্রেন্ড রিকোয়েস্ট ফেসবুক ব্লক করে দিচ্ছে দুই দিনের জন্য, পাঁচ দিনের জন্য বা তারও বেশি। সাধারণত অপরিচিত কাউকে ফ্রেন্ড রিকোয়েস্ট পাঠানোটা ফেসবুকের অপব্যবহারের মধ্যে পড়ে। অপব্যবহার বন্ধ করার জন্যই ফেসবুক মাঝেমধ্যে এই কাজটি করে থাকে; এমনকি অনেক সময় পরিচিত কাউকেও ফ্রেন্ড রিকোয়েস্ট পাঠাতে দেয়া হয় না। তখন ব্যবহারকারীরা সমস্যায় পড়ে যায়।

ফেসবুকে ফেসবুকে বেশি বেশি বন্ধু বানাতে চান? নিয়ে নিন দারুন টিপস

প্রোগ্রাম আবেগ বোঝে না, যুক্তি বোঝে:

কারও কাছে ফ্রেন্ড রিকোয়েস্ট পাঠাতে চান? এখন ফেসবুক কীভাবে বুঝবে আপনি তার পরিচিত কি-না। এর জন্য ফেসবুক যে বিষয়গুলো যাচাই করে, তা হলো আপনার সঙ্গে তার মিউচুয়াল ফ্রেন্ড কতজন (যারা দুজনেরই বন্ধু), আপনি আর তিনি একই স্কুল-কলেজ বা বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ছেন কি-না, আপনি ও তিনি একই প্রতিষ্ঠানে চাকরি করেন কি-না, আপনার ও তার নেটওয়ার্ক একই কি-না, আপনি ও তিনি একই এলাকায় বাস করেন কি-না বা আপনার ও তার বাসা একই এলাকায় কি-না। এসব নানা বিষয় যাচাই করে ফেসবুক বুঝতে পারে, আপনি তার পরিচিত কি-না। তাছাড়া আপনি যাদের কাছে ফ্রেন্ড রিকোয়েস্ট পাঠিয়েছেন, তারা সবাই কি আপনাকে গ্রহণ করেছেন, নাকি বেশিরভাগই আপনাকে গ্রহণ করেননি। এগুলো যাচাই করে ফেসবুক বুঝতে পারে আপনি ফেসবুকে মিসইউজ করছেন কি-না। অপব্যবহার করলে প্রথমে দুই দিন, তারপর পাঁচ দিন আপনার ফ্রেন্ড রিকোয়েস্ট ব্লক করে আপনাকে সতর্ক করে। আপনি এরপরও সতর্ক না হলে ১৫ দিন, তারপর এক মাস, এরপর দুই মাস। তার পরও আপনি সতর্ক না হলে পরে ফেসবুক অ্যাকাউন্টই ডিজেবল (বন্ধ) করে দেয়। অনেক সময় ফেসবুক আপনার অ্যাকাউন্টটি ব্লক করে রাখে। তখন জাতীয় পরিচয়পত্রের ফটোকপি ফেসবুক কর্তৃপক্ষের কাছে পাঠালে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ আবার আপনার অ্যাকাউন্টটি সক্রিয় করে দেবে। কিছুদিন পরপর http://apps.facebook.com/friendrequests ঠিকানা থেকে আপনার পেন্ডিং ফ্রেন্ড রিকোয়েস্ট বের করে তাদের রিমুভ করে দিতে পারেন, যারা আপনাকে অ্যাকসেপ্ট করেন না।

একটি উত্তর ত্যাগ