ফ্রীলেন্সিং প্রতিযোগিতার বাজারে যারা নিজেকে একটি ভিন্নভাবে উপস্থাপন চান তারা অবশ্যই কিছু টিপস নিয়ে নিন

0
399

কর্মক্ষেত্রে প্রতিটি জায়গাতেই প্রতিযোগিতার সীমা নেই। যে কাজেই করতে ইচ্ছুক হোন না কেনও আপনাকে সবার সাথে প্রতিযোগিতা করে ঠিকে থাকতে হবে। তবে সবার মাঝে টিকে থাকাটা অনেক কঠিন এবং সেটি সবার দ্বারা সম্ভবও হয়না। কারণ, প্রতিযোগিতার বাজারে যারা নিজেকে একটি ভিন্নভাবে উপস্থাপন করতে পারে কেবল তারাই সফলতার সাথে টিকে থাকে। এখন কথা হচ্ছে কিভাবে আপনি নিজেকে, নিজের সেবাকে অন্য সকলের থেকে ভিন্নভাবে আপনার ক্লায়েন্টের সামনে উপস্থাপন করবেন? তবে, কিছু পথ অনুসরণ করুণ…

ক্লায়েন্টের কথায় প্রাধান্য দেওয়া: কোন সেবা নিয়ে ব্যবসায় করতে হলে আপনার ক্লায়েন্টই  হচ্ছে সফলতার মূল এবং একমাত্র চাবিকাঠি। কারণ, তারাই আপনার সেবা ব্যবহার করবে এবং গুণগান গাইবে। আপনি যা জানেন তাই একজন ক্লায়েন্টকে সেবা হিসাবে দিয়ে থাকেন, তা কাজ হোক কিংবা পরামর্শ হোক। এখন ভাবার বিষয়, আপনি কি আসলেই ক্লায়েন্টের সন্তুষ্ট করতে পারছেন আপনার সেবার মান দ্বারা? যদি কিছুই বুঝতে না পারেন তবে ক্লায়েন্টদের আপনার সেবা সম্পর্কে বলার সুযোগ করে দিন। আপনি তাদের কথা শুনুন, ভালমন্দ যে যাই বলুক না কেনও শুধু শুনে যাবেন। এসব নিয়ে সাথে সাথে ক্লায়েন্টের সাথে কোন রিএ্যাক্ট করতে যেয়ে ভুল করবেন না। ফ্রিল্যান্স কাজের ক্ষেত্রেই এই কথাটিই মেনে চলতে হবে।

অন্য ফ্রিল্যান্সারদের কাছ থেকে শিক্ষণীয়: যেখানে আপনার সেবা দিচ্ছেন সেখানকার অন্যরা কিভাবে কাজ করছে সেটির দিকে নজর রাখতে হবে। অন্য ফ্রিল্যান্সাররা নিজেদেরকে কিভাবে ফুটিয়ে তুলছেন, কি ধরণের কাজ করছেন, কেমন প্রাইস নিচ্ছেন এগুলোর দিকে খেয়াল রাখুন। তাদের কর্মকাণ্ডগুলো পর্যালোচনা করুন।

পরিবেশের দিকে নজর দিন: আপনি যে স্থানে কাজ করেছেন সেখানের পরিবেশকে কোলাহল মুক্ত করুন। আপনি যখন ক্লায়েন্টের সঙ্গে স্কাইপের মাধ্যমে কথা বলবেন তখন কোলাহল থাকলে ক্লায়েন্ট সেটি পছন্দ করবে না।

স্মার্টলি উপস্থাপন করুন: কোন সেবা কত দ্রুত বিক্রি হবে তা অনেকটাই নির্ভর করে আপনি কিভাবে আপনার সেবাকে উপস্থাপন করবেন। ক্লায়েন্টদের সামনে আপনার পণ্য সম্পর্কে জ্ঞান থেকে সর্বোচ্চ নিয়ে বুঝান। যে কয়েকটা পণ্য নিয়ে ব্যবসায় করবেন সেগুলো সম্পর্কে যথাযথ জ্ঞান অর্জন করুন।

কাজের মান উন্নয়নে কাজ করুন: এই কাজটি করতে আপনাকে প্রতিনিয়তই কিছু না কিছু খরচ করতেই হবে। ধরুন আপনি একটি ছোট টিম নিয়ে আপনার ব্যবসায় পরিচালনা করেন। টিমের কর্মীরা প্রতিনিয়তই আপনার ব্যবসায়ের উন্নয়নের জন্য কাজ করে যায়। আপনি কি তাদের ব্যাপারে একবার ভেবে দেখেছেন তারা ব্যবসায়ের জন্য যা করছে প্রতিদিন তার ফল স্বরূপ মাস শেষের বেতন ছাড়া তাদেরকে আর কি কি অতিরিক্ত সেবা দিচ্ছেন? যদি না দিয়ে থাকেন তবে দিতে শুরু করুন। তাদের সাথে বন্ধু ভাবাপন্ন পরিবেশে কাজ করুন। মনে রাখা ভাল যাদের দিয়ে সেবা পরিবেশন করবেন তাদেরকে খুশি রাখতে পারলে আপনার ক্লায়েন্টরাও হাসিখুশি এবং সন্তুষ্ট থেকে আপনার সেবা ক্রয় করতে উদ্বুদ্ধ হবে।

পরিহার করতে হবে কপি এবং পেস্ট: অনেকেই কাজের ক্ষেত্রে কপি পেস্ট করে তাদের ক্লায়েন্টদের কাজ বুঝিয়ে দেয়। এভাবে কপি পেস্ট করে আপনি ২/১দিন ক্লায়েন্টদের বুঝিয়ে যেতে পারলেও দীর্ঘ সময়ের জন্য করতে গিয়ে নিজের ফাঁদে নিজেই ফেঁসে যাবেন। কারণ, আরেকজনের করা কোন কাজ আপনি সামান্য এডিট করে ২/৩ টা কাজে চালিয়ে দিতে পারলেও একবার না একবার ধরা পড়ে যাবেনই। তখন মার্কেটপ্লেস ক্লায়েন্ট রিপোর্ট করতে পারবে। একদম নতুনদের এই প্রবণতা বেশি থাকে। আর এভাবে নিজেদের কাজের রেপুটেশন নষ্ট করে ফেলে।

কাজের পূর্ণ পরিকল্পনা করে নামতে হবে: একটি ভাল মানের পরিকল্পনা যেকোনো কাজ দ্রুত সম্পন্ন করতে সহায়তা করে। তাই প্রোজেক্ট শুরু করবার আগেই প্রোজেক্টের জন্য প্রয়োজনীয় সকল ফাইল সংগ্রহ করেই কাজে মনোনিবেশ করবেন।

কংগ্রাচুলেশনস, আপনি প্রোজেক্টটি জিতে গেছেন: একটি প্রোজেক্ট জয়লাভ করতে হলে বেশি না সামান্য কিছু ডিরেকশন মেনে চলতে হয়। ডিরেকশনগুলো খুব বেশি কঠিন কিছু না। সংক্ষেপে আরেকবার, প্রোজেক্ট ভাল করে পড়ুন এবং বুঝুন আসলেই ক্লায়েন্ট কি চাইছেন। এবার আপনার দক্ষতা এবং সময় অনুযায়ী মূল্য নির্ধারণ করুণ। প্রোজেক্ট পুরোটুকু না বুঝলে কোন প্রকার প্রাইস সেট না করে আপনার প্রশ্ন সহ ব্ল্যাংক প্রপোজাল সাবমিট করুণ। রিপ্লাই পেলে এবার চূড়ান্ত মূল্য সেট করে প্রপোজাল সাবমিট করুণ। অবশ্যই প্রপোজাল স্মার্ট ভাবে উপস্থাপন করতে হবে যাতে ক্লায়েন্ট আপনার কোয়ালিফিকেশন সম্পর্কে প্রপোজাল দেখেই অনুমান করতে পারেন। এরপর অপেক্ষা করুণ, কংগ্রাচুলেশনস, আপনি প্রোজেক্টটি জিতে গেছেন!

কোয়ালিটি, কোয়ালিটি এবং কোয়ালিটি:  একটি কাজের সর্বোচ্চ কোয়ালিটি বলতে আসলেই কি বুঝায় সেটা বুঝতে পারাটা অনেক সময় সাপেক্ষ। নিজেকে সবসময় আপডেট রাখতে হবে এবং কোয়ালিটি কাজ করার চেষ্টা করতে হবে।

একটি উত্তর ত্যাগ