ম্যাক্সিকোর পুলিশের ক্যামেরায় ধরা পড়ল ‘ভূত’….(ভিডিওসহ)

0
513

যদি কখনো ভূত দেখে থাকেন, তাহলে কি করবেন? ভয়টা কাটিয়ে ওঠার পরই মেক্সিকো পুলিশকে ফোন করতে পারেন। তবে মেক্সিকোর পুলিশ বিভাগে কোনো ‘ঘোস্টবাস্টার’ দল নেই। দেশটির লোকাল পুলিশই তাদের ক্যামেরায় ভূতের দর্শন পেয়েছ।

Advertisement

image_134146.espanola-police-department ম্যাক্সিকোর পুলিশের ক্যামেরায় ধরা পড়ল ‘ভূত’….(ভিডিওসহ)
গত ২০ সেপ্টেম্বর এসপানোলার পুলিশ ডিপার্টমেন্ট এর কর্মকর্তা কার্ল রোমিরো তাঁর অফিসে বসে সার্ভিলেন্স ক্যামেরায় নজরদারি করছিলেন। হঠাৎ করেই ক্যামেরায় অদ্ভুত কিছু ধরা পড়ে। দৃশ্যটি দেখে তিনি রীতিমতো ভয় পেয়ে যান। ক্যামেরায় দেখা যায়, একটি কুয়াশাচ্ছন্ন অবয়ব তাদের পুলিশ স্টেশনের পার্কিং লট থেকে নিরাপত্তাবেষ্টিত গেট দিয়ে প্রবেশ করছে। তিনি বলেন, প্রথমে আমি ভেবেছিলাম কোনো মাছি বা মথ জাতীয় কিছু উড়ছে। আবার পরক্ষণেই মনে হলো, কোনো মানুষের পায়ের মতো দেখতে। কোনোভাবেই পরিষ্কার করতে বুঝতে পারলেন না রোমিরো। তার গোয়েন্দা দৃষ্টিও ধোকা খেয়ে গেলো। তার ভ্রু জোড়া কুঞ্চিত হয়ে উঠলো। এর আগেও বহু পুলিশ কর্মকর্তা এ ধরনের কাহিনী নিজের চোখে দেখেছেন। কিন্তু এবার সরাসরি ক্যামেরায় ধরা পড়ল।
স্থানীয় সংবাদ সংস্থা কেওএটি জানায়, খবরটি ছড়ানো মাত্রই বেশ শোরগোল শুরু হলো। যারা ‘পোলটেরজিস্ট’ এর মতো ছবি দেখেছেন তাদের প্রশ্ন থেকেই একটি বিষয় বিবেচনায় আনলেন সবাই। তা হলো, পুলিশের যে স্টেশনে বসে রোমিরো ক্যামেরায় তদারকি করছিলেন তা নাকি প্রাচীন আমলের এক কবরখানার ওপর গড়ে উঠেছে। তবে এর আগে এমন প্রশ্ন উত্থাপিত হলে বলা হয়েছিল যে, ২০০৬ সাল থেকে চালু হওয়া এই পুলিশ স্টেশনটি কোনো কবরখানার ওপর গড়ে ওঠেনি।
কিন্তু এ ঘটনার পর ওই স্টেশনে দায়িত্বরত বহু পুলিশ তাদের ব্যক্তিগত অভিজ্ঞতার কথা বলতে থাকেন যা শুনলে গায়ের রক্ত হিম হয়ে আসবে। তারা অদ্ভুত দৃশ্য যেমন দেখেছেন, তেমনি শুনেছেন নানা ভয়ঙ্কর আওয়াজ। তারা সুস্থ মস্তিষ্কে এবং পরিষ্কার চোখে যা যা এতদিন দেখেছন, তার অন্য কোনো ব্যাখ্যা এত সহজে দেওয়া যাবে না।
হ্যালোয়েন মৌসুমের সময় পুলিশ স্টেশনে এমন ভূতুড়ে কাণ্ডে অনেকেই আর সেখানে ডিউটি দিতে চাচ্ছেন না। ওই দৃশ্যটি বালু বা ময়লা কিছু ওড়ার চিত্র কিনা তা বহুবার পরীক্ষা করে দেখা হয়েছে। এমন কিছু ছিল না।
সবচয়ে বড় বিপদে পড়েছেন রোমিরো নিজে। নিজের চোখে এ দৃশ্য দেখলে আর কি এখানে আসতে মন চায়? কারণ তিনি নিজেই বলেছেন, ‘আমি ভূত বিশ্বাস করি।’ সূত্র : ফক্স নিউজ

ভিডিওটি দেখতে

একটি উত্তর ত্যাগ