অ্যাডসেন্স সিপিসি বাড়ানোর সেরা উপায় : পর্ব – ১

0
455
অ্যাডসেন্স সিপিসি বাড়ানোর সেরা উপায় : পর্ব - ১

tusin

ভালবাসি প্রযুক্তি নিয়ে থাকতে।
মাঝে মাঝে ব্লগিং করি
www.tusin.wordpress.com এ। ফেইসবুকে আমি www.facebook.com/tusin.ahmed
অ্যাডসেন্স সিপিসি বাড়ানোর সেরা উপায় : পর্ব - ১

ব্লগারদের সবচেয়ে বড় আয়ের উৎস গুগল অ্যাডসেন্স। অনলাইন বিজ্ঞাপনের এ মাধ্যম থেকে আয় বাড়ানোর নানা কৌশল রয়েছে। এ ক্ষেত্রে মোক্ষম কৌশল হলো অ্যাডসেন্স অপটিমাইজেশন। এটি করার অনেক উপায় অছে, যার মধ্য প্রথমেই আসে হাই কস্ট পার ক্লিক (সিপিসি)। ভালো অ্যাডসেন্স ক্লক থ্রো রেট (সিটিআর) ছাড়াও ভালো আয় সম্ভব নয়। তবে এ দুটির মধ্যে সিপিসিকে বেশি গুরুত্ব দিলে লাভবান হওয়া যাবে।

অ্যাডসেন্স সিপিসি বাড়ানোর অনেক উপায়ের মধ্যে সেরা দশটি নিয়ে এ প্রতিবেদেন। অনেকেই এসব কৌশলকে কিলার হিসাবে উল্লেখ করেন। দুই পর্বের প্রতিবেদনের প্রথম পর্বে পাঁচটি বিষয় তুলে ধরা হয়েছে।

অ্যাডসেন্স সিপিসির গুরুত্ব

আপনি যদি আপনার অ্যাডসেন্সের আয় বাড়াতে চান তাহলে অবশ্যই আপনাকে সিটিআর এর তুলনায় ‘সিপিসি’কে বেশি গুরুত্ব দিতে হবে। আপনার ব্লগে প্রদর্শিত বিজ্ঞাপনে হাজারো ইম্প্রেশন থাকলেও একটি ভালো ‘সিপিসি’র ব্লগ সিটিআর থেকেও বেশি আয় এনে দেয়।

adsence tips-TechShohor অ্যাডসেন্স সিপিসি বাড়ানোর সেরা উপায় : পর্ব - ১

 

আরও পড়ুন:  ফটোগ্রাফারদের জন্য জনপ্রিয় ৫ ব্লগ

নিশ
একটি ব্লগ করার ক্ষেত্রে সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব দিয়ে হয় সঠিক নিশ বেছে নেওয়া। আপনি যে বিষয়ে ব্লগ লিখছেন তার উপরেই সিপিসি নির্ভর করে। একটি ভালো নিশ বেছে নেওয়া আপনাকে হাই সিপিসি এনে দিতে পারে। এখানে তেমনই কিছু নিশ উল্লেখ করা হলো। এগুলো হাই থেকে লো আকারে সাজানো হয়েছে।

• ডোমেইন : ইন্টারনেট ডোমেইন যেমন ইয়াহু, গো ড্যাডি নিয়ে ব্লগ সর্বোচ্চ সিপিসি দিয়ে থাকে।
• গ্যাজেট : অ্যাপলের মতো জনপ্রিয় টেক গ্যাজেট
• গুগল : গুগলের বিভিন্ন পণ্য
• মাইক্রোসফট : মাইক্রোসফট অফিস
• ব্যাংকি
• অটোমোবাইল
• হেলথ
• রিয়েল স্টেট
• হোম লোন
• জব (চাকরি)
• ডেটিং অ্যান্ড রোমান্স – এটি তুলনামূলকভাবে সবথেকে কম সিপিসি দিয়ে থাকে।

কনটেন্ট
নিশ নির্বাচনের পর যে বিষয়টি আসে সেটি হলো কনটেন্ট। আপনাকে এমনই কনটেন্ট লিখতে হবে যা পাঠকের মনের প্রশ্নের উত্তর দেয়। তাই কোনো আর্টিকেল নিয়ে লিখতে চাইলে তার আগে আপনাকে পাঠক ইন্টারনেটে কোন বিষয়টি বেশি খোঁজে (সার্চ করে) সেটি জানতে হবে ও তার সমাধান দিতে হবে।

মনে রাখতে হবে আপনাকে অবশ্যই পাঠকদের সাথে সরাসরি সংযুক্ত থাকতে হবে। পাঠক যাতে আপনার ব্লগে বার বার আসে তার জন্য আপনার নিশ অনুযায়ী কনটেন্ট সাজাতে হবে। ভালো কনটেন্ট অবশ্যই আপনাকে ভালো সিপিসি এনে দেবে। এছাড়া ভালো কনটেন্ট সার্চ ইঞ্জিনেও প্রাধান্য পায়। আপনার টার্গেটেড ট্রাফিক যুক্তরাষ্ট্র ও যুক্তরাজ্য ভিজিটর আনা হওয়া উচিত। যখন কিওয়ার্ড রিসার্চ করবেন তখন সম্ভাব্য সিপিসি কলাম ব্যবহার করবেন।

পেজ র‍্যাংক
গুগল পেজ র‍্যাংক নতুন কোনো বিষয় নয়। পেজ র‍্যাংক হচ্ছে লিংক বিশ্লেষণ অ্যালগরিদম, যা গুগলের সহ-প্রতিষ্ঠাতা ল্যারি পেজের নামানুসারে রাখা হয়েছে। এটি ইন্টারনেট র্সাচ ইঞ্জিন গুগল ব্যবহার করে। পেজ র‍্যাংক একটি সংখ্যা যার মাধ্যমে বোঝা যায় যে হাইপারলিংক সেট করা ডকুমেন্ট, যেমন world wide web। একটি পেজ ইন্টারনেটে কত গুরুত্বর্পূণ তা পেজ র‍্যাংক দ্বারা নির্ধারণ করে গুগল। যখন একটি পেজ অন্য একটি পেজের সঙ্গে যুক্ত হয়, এটি অন্য পেজ দ্বারা সর্মথন দেয়া বোঝায়। যত বেশি সমর্থন সেই পেজ তত বেশি গুরুত্বর্পূণ গুগলের কাছে। ওই পেজটি নিজের সাইটের সঙ্গে অর্থাৎ বিভিন্ন পোস্টের সঙ্গে কতটা লিংক জেনারেট করছে সেটিও বিবেচ্য বিষয়। গুগল যে সাইটের যত লিংক ইন্টারনেটের বিভিন্ন সাইটে পাবে তাকে তত বেশি গুরুত্ব দেবে। গুগল ১ থেকে ১০ এর মধ্যে পেজ র‍্যাংক নির্ধারণ করে। ৪ এর উপরে পেজ র‍্যাংক করার চেষ্টা করুন। আপনার যদি পিআর ৫ অথবা ৬ হয় তাহলে গুগল আপনাকে হাই সিপিসির বিজ্ঞাপন দেবে। যা স্বাভাবিকের তুলনায় ৪ থেকে ৫ গুন বৃদ্ধি পাব।

অ্যাড রিভিউ সেন্টার
গুগল অ্যাডসেন্সে আপনি অ্যাড রিভিউ সেন্টার নামে একটি অপশন পাবেন। এখান থেকে আপনি দেখে নিতে পারেন কোন ক্যাটাগরির বিজ্ঞাপন থেকে আপনার কি পরিমান আয় আসছে। এখানে বিজ্ঞাপনের বিভিন্ন ক্যাটাগরি দেখাবে যা আপনার ওয়েবসাইটে প্রদর্শন করে। আপনি যদি দেখেন, কোনো ক্যাটাগরি থেকে আপনার কম আয় হচ্ছে তাহলে সেটি ব্লক করে দিতে পারেন।

ad_review-center-TechShohor অ্যাডসেন্স সিপিসি বাড়ানোর সেরা উপায় : পর্ব - ১

তবে ব্লক করার ক্ষেত্রে আপনার নিশ অথবা কনটেন্ট পরিপন্থী ক্যাটাগরিই ব্লক করবেন। যেমন আপনি ব্লগটি যদি টেকনোলজি নিয়ে হয়ে থাকে তাহলে ডেটিং, পলিটিক্স, রিলেজিয়ন ইত্যাদি অ্যাড ক্যাটাগরি ব্লক করতে পারেন। এর মাধ্যমে অবশ্যই আপনার সিপিসি ও অ্যাডসেন্স আয় বাড়বে।

কম্পিটিটিভ অ্যাড ফিল্টার
অ্যাড রিভিউ সেন্টারের মতোই গুগল অ্যাডসেন্স কম্পিটিটিভ অ্যাড ফিল্টার নামক একটি ফিচার রয়েছে। সেখানে আপনি একটি নির্দিষ্ট বিষয় অথবা সাধারণ যেকোনো বিজ্ঞাপন ব্লক করতে পারবেন। কোনো বিজ্ঞাপন আপনার কাছে আপনার প্রতিদ্বন্দি মনে হলে সেটি এই ফিচারের মাধ্যমে ব্লক করা যাবে। এক্ষেত্রে আপনি কোনো ডোমেইন অথবা ডোমেইন নেমের একটি নির্দিষ্ট পেজ ব্লক করতে পারবেন। এভাবে নির্দিষ্ট বিজ্ঞাপন দেখিয়ে আপনি আপনার সিপিসি বাড়াতে পারেন।

পূর্বে প্রকাশিত হয়েছে টেকশহর ডট কমে

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here

one × two =