Android CyanogenMOD সম্পর্কে কিছু টিপস এবং সম্পূর্ণ গাইড

0
1147

এন্ড্রয়েড যারা ইউস করেন তারা অনেকেই CyanogenMOD, MIUI এরকমন অনেক Custom ROM ইন্সটল করেছেন। আমি আজ Cyanogenmod নিয়ে আলোচনা করব। এটি এমন একটি জিনিস যা আপনার ডিভাইস এর মূল Android কে রিপ্লেস করে ফেলে। এটিই বর্তমানে এন্ড্রয়েড এর সবচেয়ে জনপ্রিয় Custom ROM. বিভিন্ন প্রযুক্তি ব্লগে এবং ফোরামে অফিসিয়াল ROM ছাড়াও আরও অনেক অনেক Custom ROM পাওয়া যায়। এগুলো ইন্সটল করার মাধ্যমে আপনার ডিভাইস এর পুরো চেহারা পালটে ফেলা যায়। নতুন নতুন বিভিন্ন ফিচার উপভোগ করা যায় যেগুলো স্টক ROM এ নাই। অফিসিয়াল Cyanogenmod ইউস করা নিরাপদ। সেটের ক্ষতি হওয়ার সম্ভাবনা থাকেনা। Unofficial ROM ইউস করা ঠিক না কেননা এসবে বিভিন্ন বাগ কিংবা ক্ষতিকর ফাইল থেকে যেতে পারে যেগুলো আপনা হেন্ডসেট অকেজো করে দিতে পারে। কাজেই Custom ROM ইন্সটল করার আগে সতর্ক থাকা দরকার। CyanogenMOD এর সুবিধার কথা বলতে গেলে নতুন আরেকটা টিউন করা লাগবে! কাজেই নিজেরা ইন্সটল করেই বুঝে নিন কি কি সুবিধা আছে। তাছাড়া নেটে সার্চ করে দেখে নিতে পারেন কি কি সুবিধা পাবেন। কয়েকটা প্রধান সুবিধা হলঃ

১। থিম ইউস করা যায়। Symbian এর মত অনেক অনেক থিম পাওয়া যায় গুগল প্লে তে।
২। নতুন হাই পারফরমেন্স মিউজিক প্লেয়ার।
৩। Built In VPN সুবিধা।
৪। অনেকগুলো সুবিধা আছে যেগুলো পেতে কোন Third Party Software লাগবেনা।
৫। যেকোনো App SDcard এ ট্রান্সফার করা যায়।
৬। অসাধারন ইউজার ইন্টারফেস

এছাড়াও আরও অনেক অনেক সুবিধা আছে যেগুলো বলে শেষ করা যাবেনা। আমি Galaxy Ace S5830 ব্যাবহার করি যেটি ARMv6 এর সেট। এটি মূলত CyanogenMOD 7 version টা সাপোর্ট করে। এর উপরের ভার্সন ইন্সটল করলে সেট স্ল হয়ে যেতে পারে।
+ এবার দেখা যাক কিভাবে ইন্সটল করবেন। ইন্সটল করার আগে আপনার ডিভাইস অবশ্যই Root করা থাকতে হবে, Clockworkmod Recovery (CWM) ইন্সটল করা থাকতে হবে। ধাপগুলো প্রথমে দেখে জটিল মনে হলেও বুঝে ফেললে পরে সহজ মনে হবে।
ধাপ ১> CWM ইন্সটল করার জন্য গুগল প্লে থেকে ROM Manager সফটওয়্যারটি install করুন। এরপর ওই সফটওয়্যার ওপেন করে CWM flash করুন। CWM সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে http://forum.xda-developers.com/wiki/ClockworkMod_Recovery এখানে ভিজিট করুন। যারা Galaxy Ace ইউজ করেন তারা http://www.mediafire.com/?ht45cz9coomdcdc ফাইলটি ডাউনলোড করুন। এরপর ফাইলটি মেমোরি কার্ডে কপি করুন। কোন ফোল্ডার এর ভেতরে রাখবেন না। এরপর আপনার ফোন Recovery Mood এ বুট করুন। এজন্য HOME key+Power key একসাথে চাপুন। recovery mood a boot না হওয়া পর্যন্ত কী চেপে রাখুন। Recovery Menu থেকে ‘apply update from SDcard’ select করে OK চাপুন। মনে রাখবেন, recovery menu তে volume up/down key কাজ করে navigation key হিসেবে আর Home Button কাজ করে ‘OK’ বাটন হিসেবে। এরপর আপনার ডাউনলোড করা ফাইলটি সিলেক্ট করে OK করুন। কয়েক সেকেন্ড এর ভেতরে ইন্সটল হয়ে যাবে। এরপর reboot system now সিলেক্ট করুন।

ধাপ২> http://download.cyanogenmod.com এখান থেকে আপনার সেটের মডেল অনুযায়ী cyanogenmod এর Nightly অথবা Stable ভার্সন ডাউনলোড করে নিনি। টরেন্ট হিসেবেও ডাউনলোড করতে পারবেন। Device list এর নামগুলতে cursor রাখলে popup এ সেটের মডেল দেখাবে। Galaxy Ace কে developer দের ভাষায় cooper বলা হয়। অন্যান্য সেটের ক্ষেত্রেও নিজস্ব নাম রয়েছে। ডাউনলোড হওয়ার পর SDcard এ কপি করুন।
ধাপ ৩> http://www.mediafire.com/?pl68a6n2cadyy5c এই ফাইলটি ডাউনলোড করুন। এটি google apps: google play,gmail etc. Cyanogenmod এ Android Market, Gmail এগুলো থাকেনা। তাই এটি দিয়ে দিলাম। আমার Ace এ কাজ করেছে। আশা করি অন্যান্য মডেলেও কাজ করবে। না করলে নেটে সার্চ করে নির্দিষ্ট মডেলের জন্য Googleapps.zip পাবেন। ডাউনলোড করার পর এটিও SDcard এ কপি করুন।

ধাপ ৪ (শেষ ধাপ)> সেট অফ করুন। Home Button+Power Button চেপে recovery mood এ যান। wipe data/factory reset সিলেক্ট করুন। পরের পেজ আসলে কনফার্ম করুন। factory reset হয়ে গেলে Back Key চেপে মূল মেনুতে চলে আসুন। আগের মতই Volume up/down key দিয়ে উপর নিচে navigate করুন আর Home button দিয়ে OK করুন। এবার install zip from sdcard সিলেক্ট করুন। আপনার ডাউনলোড করা cyanogenmod.zip ফাইলটি সিলেক্ট করে OK করুন। ইন্সটল হতে ১-২ মিনিট সময় নেবে। একই নিয়মে এখন gapps.zip ফাইলটা ইন্সটল করুন। এখন reboot system now সিলেক্ট করুন। ব্যাস, হয়ে গেল cyanogenmod install. একই নিয়মে যেকোন custom ROM ইন্সটল করতে পারবেন। উপভোগ করতে থাকুন CyanogenMOD !!

+++ এতক্ষন তো Cyanogenmod এর গুণগান শুনলেন। এখন এর কয়েকটা অসুবিধা দেখেনঃ
১। Live Wallpaper ব্যাবহার কারা যায়না। (not all version) অবশ্য এর সমাধান আমার কাছে আছে।
২। FM Radio চালু করতে bluetooth অন থাকা লাগে।
৩। Android Market Built in থাকেনা। ( এর সমাধান তো উপরে পেয়েই গেলেন)
৪। সেটের Warranty Void হয়ে যায়। root করার পরেই অবশ্য warranty loss হয়।

+++অনেকেই cyanogenmod ইন্সটল করার পর আগের নরমাল Android এ ফিরে যেতে চান। এটা করতে হলে Odin Multi Downloader দিয়ে আপনার সেতে স্টক এন্ড্রয়েড ROM ইন্সটল করতে হবে। এই পদ্ধতি নিয়ে আরেকদিন টিউন করব খুব শিগগির। যারা অধিক আগ্রহী তারা নেটে সার্চ করেন অথবা XDA forum এ দেখেন, অনেক টিউটোরিয়াল পাবেন।

Live Wallpaper সমস্যার সমাধানঃ http://www.mediafire.com/?cn0dj82vbdfwcz2 এটি ডাউনলোড করুন। ডাউনলোড করা cyanogenmod এর zip ফাইলটি winrar অথবা যেকোনো zipmanager দ্বারা ওপেন করুন। system>app এই directory তে যান। এই directory তে live wallpaper picker.apk ফাইলটি ঢুকিয়ে দিন। এরপর winrar close করুন। এখন স্বাভাবিক নিয়মে cyanogenmod ইন্সটল করুন। live wallpaper ব্যাবহার করতে পারবেন।
+++ টিউনটি ভাললাগলে কমেন্ট এ বলুন, যেকোন সমস্যা হলে আমাকে মেইল/ফেসবুক মেসেজ করতে পারেন। আর আমি আপনাদের কাছে একটি হেল্প চাই। আমি আমার ল্যাপটপ এ virtual router দিয়ে ইন্টারনেট শেয়ার করে wifi হিসেবে smarphone এ ইন্টারনেট চালাই। কিন্তু google play ব্যাবহার করতে পারছি না। লোড হয়না। আর সবকিছু ব্যাবহার করা যায়। আমার Qubee Postpaid. এর সমাধান কারো কাছে থাকলে প্লিজ হেল্প করেন। ধন্যবাদ।

+++আপডেটঃ Symphony,Micromax,Walton সহ যেকোন China Android ফোন Root করতে http://www.unlockroot.com এই ওয়েবসাইটে গিয়ে UnlockRoot Pro Free সফটওয়্যারটা ডাউনলোড করুন। PC তে ইন্সটল করুন। এবার USB দিয়ে সেট কানেক্ট করে USB debugging চালু করুন। এরপর UnlockRoot Software টা run করুন। আপনার সেট অটো Detect হওয়ার পর Root স্টার্ট করুন। একটু পরেই Root Successful Message পাবেন।

একটি উত্তর ত্যাগ