মোবাইল গেম ডেভলপ করে আয় ও ভবিষ্যৎ

0
1464

মবাইল গেম ডেভলপ করে আয় ও ভবিষ্যৎ —————— সবাই কে আমার সালাম এবং ঈদ মুবারক

আজকে আমি লিখার চেষ্টা করব গেম তৈরি এবং এর ভবিষ্যৎ নিয়ে

ভবিষ্যৎ বলার আগে কিছুটা অতীতে ফিরে যাই,১৯৬২ এর মাঝে কোন এক সময় প্রথম ইলেক্ট্রনিক বা কম্পিউটার গেম তৈরির এ যাত্রা সুরু হয় এম-আই-টি এর হাত ধরে। এর মাঝে আরো বিশাল ইতিহাস আছে যা লিখতে গেলে আমি এবং আমরা বোরিং হয়ে জাব

pdp1 মোবাইল গেম ডেভলপ করে আয় ও ভবিষ্যৎ

যাই থাক প্রথম দিকে সাধারণ মানুষের হাতে গেমিং এর যাত্রা সুরু হয় বিভিন্ন টু-ডি গেম কনসোল এর মাধ্যমে তবে বর্তমানে আমারা আমাদের পকেট ডিভাইসেও উচ্চ মানের থ্রি-ডি গেম উপভোগ করি

আজকাল এন্ড্রোয়েড বা এপেল পকেট ডিভাইস গুলো তে যে সব গেম খেলি তার বেশিরভাগই ফ্রি তে ডাউনলোড করা যায় এবং এ সকল গেম গুলার মান ও খুব ভাল

যেমন ঃ টেম্পল রান সাবওয়ে সারফার ক্যন্ডি ক্র্যস সাগা ফ্রুট নিনজা ডুডল ড্যস ডুডল জাম্প আরো অনেক,

তবে আপনার মনে প্রশ্ন আস্তে পারে যারা ফ্রি তে গেম দিচ্ছে তাদের লাভ টা কোন জায়গায় ? আরে ভাই লাভ আছে টেম্পল রান এই পর্যন্ত আয় করেছে ১ মিলিওন ডলারের ও বেশি আর টেম্পল রান ২ তো আছেই

তাছাড়া পি-সি , এক্স-বক্স , প্লে-স্টেশন, ইত্যাদি তে রয়েছে কিছু সিরিস গেম যেমন

ক্র্যাইসিস ( মোট ৩ টি ভার্সন ) মরডান ওয়ার ফেয়ার ( মোট ৩ টি ভার্সন ) ব্যাটেলফিল্ড ( মোট ৪ টি ভার্সন ) ইত্যাদি ছারাও আরো আনেক

তাছাড়া এই গেম গুলা পকেট ডিভাইস গুলতেও আছে।

তাই আমি মনে করি গেম ডেভলপমেন্ট হতে পারে একটি সম্ভবনাময় ক্যারিয়ার সুধু যে গেম ডেভলপ করে নিজেই রিলিস দিতে হবে তা না ,একটু ফ্রিল্যন্স সাইট গুলতে তাকালেই দেখতে পারবেন ককেমন চাহিদা গেম ডেভলপমেন্ট কাজের

গেম তৈরি করা মোবাইল গেম ডেভলপ করে আয় ও ভবিষ্যৎ

গেম তৈরি করা ———– কোন ধরনের গেম তৈরি করবেন গেম এ রয়েছে বিভিন্ন ধাঁচ যেমন,রোল প্লে,প্লাটফর্ম বেস,রেসিং ইত্যাদি একটি সফল গেম অনেকটা এই থিম গুলার উপর নির্ভর করে তাই একটি ভুল সিধান্ত যথেষ্ট আপনাকে অসফল করতে। একটু মাথা খটালেই ধরতে পারবেন কোন সময় ক্যামন ধরনের গেম এর চাহিদা আছে

কোন প্লাট ফর্ম এর উপর গেম ডেভলোপ করবেন গেম ডেভলোপমেন্ট এর ক্ষেত্রে গেম এর স্টোরি,আর্ট ইত্যদির পরে প্রথমে আপনাকে নির্বাচিত করতে হবে আপনি কোন প্লাটফর্ম এর উপ্র ভিত্তি করে আপনার গেমটি তৈরি করবেন – এক্ষেত্রে অবশ্যই সবচেয়ে লাভজনক হচ্ছে এ্যন্ড্রোয়েড এবং অ্যাপেল এর মিনি ম্যক

কেমন গেম তৈরি করবেন 2D নাকি 3D এটি সম্পূর্ণ নির্ভর করে আপনার গেম প্লে এর উপর তবে 2D গেম গুলতে 3D লুক দেয়া যায় এতে করে খরচ অনেক ক্ষেত্রে অনেক টা কমে আসে। তাছাড়া 2D এবং 3D দুটি রয়েছে ভিন্ন ভিন্ন সুবিধা।

গেম থেকে আয় করা মোবাইল গেম ডেভলপ করে আয় ও ভবিষ্যৎ

গেম থেকে আয় করা ———– হুম, গেম তো বানালেন এবার আয় করার পালা,অবশ্যই এক টাকা খরচ করে তৈরি করা গেম টি আপনি ফ্রি তে সবার সাথে সেয়ার করবেন না, তাছাড়া ফ্রি দিয়েও আয় করা যায় এক্ষেত্রে আপনাকে আপনার গেম টি রিলিস দিতে হবে, গুগল প্লে স্টোর বা অ্যাপেল এ্যপ স্টোর অথবা দুটোতেই,

গুগল এ এ্যপ বা গেম রিলিস দিতে হলে আপনাকে প্রথমে গুগল ডেভলপার এবং মার্চেন্ট একাউন্ট খুলতে হবে এর জন্য গুগল আপনাকে এককালীন $25 চার্জ করবে এটা ওদের পলিসি

আর, অ্যাপেল এ্যপ স্টোর এ আপনাকে ব্যয় করতে হবে $99 প্রতি ১ বছর অন্তর অন্তর এটা ওদের পলিসি,এবং এর পরিবর্তে আপনি পাবেন দেভলপার একাউন্ট সাথে অ্যাপেল দেভলপার টুলস গুল ব্যবহার করার সুযোগ

ফ্রি গেম থেকে আয় হ্যা ফ্রী গেম থেকেও আয় করা যায় তবে এক্ষেত্রে দুটি ভিন্ন রাস্তা র‍্যেছে,এবং দুটির ফলাফল ও ভিন্ন

একটি হচ্ছে এ্যড দেখিয়ে আয় তবে এটি এক সময় কমতে সুরু করে,এবং এর পিছনে রয়েছে কিছু কারন আর একটি হছে ফ্রী গেম এর ভিতর বিভিন্ন কন্টেন্ট বিক্রি করে

problems মোবাইল গেম ডেভলপ করে আয় ও ভবিষ্যৎ

তবে আমাদের দেশে রেয়েছে বিভিন্ন সমস্যা যেমন আপনি গুগল প্লে স্টোর এ পেইড গেম রিলিস দিতে পারবেন না কেননা গুগল মারচ্যন্ত বাংলাদেশ সাপোর্ট করে না । তাছাড়া আমাদের দেশ থেকে অনলাইনে পেমেন্ট দিতে গেলেও পোহাতে হয় নানা ঝামেলা আরো রয়েছে বিভিন্ন প্রয়োজনীয় সফটওয়্যার কেনার ঝামেলা এবং আমাদের দেশের টাকায় হিসেব করলেও বিশাল অঙ্কে দারায়।

আর আমাদের দেশে তৈরি Ant-Smaser ছিল একটি সফল গেম যাদের আয় ছিল ৪০,০০০ ডলার [ পত্রিকা থেকে জেনেছি ] তাছাড়া আরো কিছু গেম আমাদের দেশে থেকে রিলিস হয় তবে তেমন সফল ছিল না গেম গুলো এর পিছনে রয়েছে বিভিন্ন কারন

———- গত কয়েক বছর যাবত আমি গেম তৈরির উপর কাজ চালিয়ে যাচ্ছি, গত বছর এক গেম ডেভেলপার এর সাথে কাজ করি ও-ডেস্ক থেকে হায়ার হোয়ে,এবং তার সাথে কাজ করে জানতে পারেছি আনেক কিছু কিভাবে সফল গেম তৈরির পথে হাঁটতে হয় এবং কিছু নিওম কানুন আরো আনেক কিছু জানতে পারলাম ও গেম ডেভেলপার না তার পর ও আনেক গেম রয়েছে তার।এটা কি ভাবে সম্ভব তাও জানাল তবে সমস্যা একটাই আমাদের দেশ থেকে অনলাইনে পেমেন্ট। নিচে আমার ডিজাইন করা এই বায়ার এর জন্য একটি গেম এর আই-টিউন লিংক দিলাম,গেম এর একটি ক্যরেক্টার আমি নিজেই। চাইলে আমার ফেসবুক প্রোফাইল এর সাথে মিলিয়ে দেখতে পারেন : https://www.facebook.com/jitu.hossain এটাই কারো জন্য আমার প্রথম গেম ডিজাইন তাই তেমন ভাল নাও লাগতে পারে আপনাদের কাছে,কেননা আমি গেম ডিজাইন এর তেমন কিছুই বুঝতাম না তক্ষণ, এক্ষেত্রে বায়ার আমাকে অনেক হেল্প করেছে , করবেই তো ঘন্টায় অনেক কম রেটে আমি কাজ করতাম যে ! https://itunes.apple.com/us/app/endless-running-rogue- runner/id673991625?mt=8

আমার হাতে থাকা নিজের গেম গুলার কাজ ও প্রায় শেষ হয়তো আগামি ১-২ মাসের মধ্যে রিলিস দেব ইনশাহ-আল্লাহ আর আপাদত কাজ করছি লেবানন এর এক বায়ার এর সাথে নিচে দেখুন কিছু পেয়েমেন্ট এর প্রুফ বায়ার আমাকে Wester-Union এ পেয়েমেণ্ট দেয় মনে হয় ওদের দেশেও আমাদের দেশের মত অনলাইনে পেমেন্ট সমস্যা কারন অর জন্য আমার তৈরি গেম গুলা গুগল প্লে স্টোর এবং এপেল স্টোর এ রিলিস দেওয়ার কথা ছিল পরে পেমেন্ট প্রসেস সম্পর্কে জানার পর আর আগে বারেনি

CAM02508 মোবাইল গেম ডেভলপ করে আয় ও ভবিষ্যৎCAM02334 মোবাইল গেম ডেভলপ করে আয় ও ভবিষ্যৎ

গেম থেকে আয় করা - Seminer মোবাইল গেম ডেভলপ করে আয় ও ভবিষ্যৎ

গেম ডেভলপমেন্ট এর উপর আমি ফ্রী-ল্যঞ্চ করি আজ ১ বছরেরও ও বেশি আর আমার ব্যক্তিগত কয়েক বছরের অভিজ্ঞতা রয়েছে ৩ বছরের ও বেশি। তাই আমার নিজের একটি টিম তৈরি করার জন্য এবং গেম ডেভলপমেন্ট এর ক্ষেত্রে গুরুত্ব পূর্ণ দিক বিসয় গুলো আপনাদের সামনে তুলে ধরতে আগামি —– তারিখে আয়জন করা হবে গেম ডেভলপমেন্ট এর উপর আমার প্রথম সেমিনার উক্ত সেমিনারে যে সকল বিষয় আমি আপনাদের সামনে তুলে ধরব তার মধ্যে রয়েছে ০. গেম এর অতিত ও বর্তমান ১. কেন আমরা গেম খেলি ২. শতকরা কত ভাগ মানুষ গেম খেলে ৩. কোন প্লাটফর্মে মানুষ বেশি গেম খেলতে পছন্দ করে ৪. কেন একটি গেম সফল হয় না ৫. সফল গেম তৈরি করার কিছু কৌশল ৬. গেম এর কোন দিক গুলা গেমার পছন্দ করে ৭. কিভাবে ফ্রী গেম দিয়ে ইয়ে আয় করা যায় ৮. আমাদের দেশ থেকে গেম রিলিস দেয়ার ক্ষেত্রে সমস্যা ও সমাধান।

——

পোস্ট টি প্রথমে টেকসময় ব্লগ এ প্রকাশিত হয়েছে

techsomoy.com

 

বিস্তারিত জানতে আমাদের ফেসবুক পেজ এ যোগ দিন

https://www.facebook.com/groups/freelancerzone.asia/

ধন্যবাদ

একটি উত্তর ত্যাগ