ফিফা ওয়ার্ল্ডকাপ ম্যাচ প্রিভিউ : জার্মানি বনাম আর্জেন্টিনা

1
453

বিশতম বিশ্বকাপের আজ সফল পরিসমাপ্তি ঘটতে যাচ্ছে। ফুটবলের দেশ ব্রাজিলে অনুষ্ঠিত হওয়া এই বিশ্বকাপকে অনেকেই এ যাবৎ কালের শ্রেষ্ঠ বিশ্বকাপ বলে অভিহিত করেছেন। ছোট ছোট দলগুলোর থেকে বড় দলগুলোর পার্থক্য কমে এসেছে, কৌশলে উন্নতি ঘটেছে, আক্রমণ আরও ক্ষুরধার হয়েছে। ল্যাটিন ও ইউরোপের শ্রেষ্ঠত্ব অক্ষুণ্ণ আছে। আর তারই প্রমাণ হিসেবে আস ব্রাজিলের রিওতে ল্যাটিন শক্তি আর্জেন্টিনা ও ইউরোপের জায়ান্ট জার্মানি আজ নিজেদের শ্রেষ্ঠত্ব প্রমাণ করতে নামবে।

জার্মানি

বিশ্বকাপের সবচেয়ে ধারাবাহিক ও সবচেয়ে শক্তিশালী দল হিসেবে এরই মধ্যে জার্মানির নাম সবার মুখে মুখে। পর্তুগালের সাথে চার গোলের বিশাল ব্যবধানে জয় দিয়ে বিশ্বকাপ শুরু করে শেষ ম্যাচে ব্রাজিলকে সাত গোলে উড়িয়ে দেওয়াটা তাদের অমিত শক্তির প্রমাণ বহন করে। ঠাণ্ডা মাথায় প্রতিপক্ষকে বোকা বানিয়ে একের পর এক গোল করে ফেলতে পারে তারা। সামান্য স্পেস দিলে তা কাজে লাগিয়ে জার্মানি যে গোল আদায় করতে পারে, আমরা তা ব্রাজিলের সাথেই দেখতে পেয়েছি। মুলার, অজিল, ক্লোসা বর্তমান সময়ে তাদের সেরা ফর্মে রয়েছেন।

 

ফিফা ওয়ার্ল্ডকাপ ম্যাচ প্রিভিউ : জার্মানি বনাম আর্জেন্টিনা

আর্জেন্টিনা

আর্জেন্টিনা প্রতিটা ম্যাচে ন্যুনতম এক গোলের ব্যবধানে জয় পেয়েছে। তবে, খেয়াল রাখার বিষয় হচ্ছে, তারা এ পর্যন্ত খুব কম গোল হজম করেছে। গোলরক্ষক রোমেরো এ পর্যন্ত একটিও ভুল করেন নি, যা আর্জেন্টিনাকে গত ম্যাচে নেদারল্যান্ডসের সাথে টাইব্রেকারে জিততে সাহায্য করেছে। মেসি বরাবরই অপ্রতিরোদ্ধ। ডি মারিয়া আজ ফিরলে বিশ্বের যেকোন দলের জন্য একাই মারাত্মক হয়ে উঠতে পারে। আর বিশ্বকাপ যখন ল্যাটিন অ্যামেরিকায়, তখন আর্জেন্টিনা যে শক্তিশালী হয়ে উঠবে, তা আর বলতে হবে না।

 

ফিফা ওয়ার্ল্ডকাপ ম্যাচ প্রিভিউ : জার্মানি বনাম আর্জেন্টিনা

 

নিজেদের মধ্যে
জার্মানি এবং আর্জেন্টিনা পরপস্পরকে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী বলা যায়। ১৯৫৮ এর বিশ্বকাপে জার্মানি আর্জেন্টিনাকে ৩-১ গোলে পরাজিত করে। ৯০ এর ফাইনালে এক গোলে, ২০০৬ এ পেনাল্টি শ্যুট আউটে, ও ২০১০ সালে ৪ গোলে হারিয়ে দেয় বটে, কিন্তু এখন পর্যন্ত তাদের নিজেদের মধ্যে ২০ বারের খেলায় আর্জেন্টিনা জিতেছে নয় বার, জার্মানি ৬ বার।

সময়: আজ ১৩ জুলাই রাত এগারোটায় সমাপনী অনুষ্ঠান শুরু হবে। জমজমাট এই অনুষ্ঠান শেষে রাত একটায় জার্মানি ও আর্জেন্টিনা ব্রাজিলের রিও ডি জেনিরো’র মারাকানা স্টেডিয়ামে নিজদের মুখোমুখি হবে।

সম্ভব্য ফলাফল
আর্জেন্টিনার ডিফেন্সে চির ধরাতে সক্ষম হবে কিনা তার উপরে নির্ভর করছে জার্মানির সম্ভব্যতা। জার্মানি কাউন্টার এটাক নির্ভর ফুটবল খেলবে। আর্জেন্টিনা আজ জিততে বদ্ধপরিকর। খেটে খেলবে তারা। ডিফেন্সে নামলে ৬-৭ জন নেমে যাবে, আক্রমণে ৬ জন উঠে যাবে। আর মেসিকে আটকাতে না পারলে জার্মানি আজ এই ফুটবল যাদুকরের কাছেই হেরে যাবে। কিন্তু তারা যে ঠাণ্ডা মাথায় খেলে যাচ্ছে, মনে হচ্ছে এবার বিশ্বকাপ না নিয়ে জার্মানি বাড়ি ফিরবে না।

অনলাইনে খেলা দেখতে এই লিঙ্ক এ ক্লিক করুন।

 টিউন ভাল লাগলে অবশ্যই টিউমেন্ট দিবেন।

1 মন্তব্য

একটি উত্তর ত্যাগ