চলুন জানি ওডেস্কে এর Dispute পলিসি!

0
335

 

 আসসালামু আলাইকুম

 

চলুন জানি ওডেস্কে এর Dispute পলিসি!

Dispute কী?

 Dispute শব্দের আভিধানিক অর্থ হল বিতর্ক ।সাধারন অর্থে ওডেস্কে এর হ্মেত্রে Dispute বলতে বুজায় ঘন্ট ভিত্তিক কাজের হ্মেত্রে কোন ক্লাইন্টতার কন্ট্রাকটরদের কাজের সময়কার আব্যবহ্ত সাময়ের বা তার কাজের একটি নিদিষ্ট সময়ের কাজের অর্থ যুক্তি সাপেহ্মে ফেরত চাওয়ার একটি প্রক্রিয়া

।জেনে রাখা ভাল Dispute শুদু মাত্র আউয়ারলি জবের হ্মেত্রে প্রযোয্য,ফিক্সড প্রাইজ জবের হ্মেত্রে প্রযোয্য নয়।ফিক্সড প্রাইজ জবের হ্মেত্রে ক্লইন্ট আপনাকে আপফন্ট রিফান্ড চাওয়ার রিকু করা ছাড়া আর কোন হ্মমতা রাখেন না।

 

কি করে জানবেন Dispute হল?

সহজ কথা কোন ক্লাইন্ট Dispute করলে বরাবরের মত একটী নটিফিকেশণ পাবেন।যা আপনি মেনু বারের Help&Community তে দেখতে পাবেন। চিত্র টি দেখুন http://db.tt/7IMilNvg

 

Dispute হবার পরে কি হবে?

ক্লাইন্ট Dispute করার পর কন্ট্রাকটর একটী নটিফিকেশণ পাবে।কন্ট্রাকটর যদি Dispute একসেপ্ট করেন বা কোন রিস্পন্স না করেন তবে ওডেস্ক এর Dispute স্পেশালিস্ট কন্ট্রাকটর এর কাজের Dispute কৃত ঘন্টা সমূহ ওনার ওয়ার্ক ডাইরি থেকে মুছে দিবে এবং তার অর্থ ক্লাইন্ট কে ফেরত দিয়ে দিবে। আর যদি কন্ট্রাকটর Dispute রিজেক্ট করে তবে এটা মধ্যস্থতা প্রবেশ। এই সময় কন্টাকটর টাইম ট্রেকের সকল ইনফরমেশন,মেনূ ইত্যাদি প্রদান করতে পারবে।

 

২য় স্টেপঐ কন্ট্রাক এর ওয়িকলি লিমিট জ়িরো হায়ে যাবে এবং বেলেন্স পেন্ডীং এ চলে আসবে,Dispute রিসলভ হবার আগ পর্যন্ত  এটী বলবৎ থাকবে।এই সময় ওডেস্ক টিম এই সমন্ধে একটী সঠিক সিন্ধান্ত নিবে Dispute  টি কত টুক যুক্তি-যুক্ত। Dispute  টি যদি যুক্তি-যুক্ত হয় তবে ওই অর্থ ক্লাইন্ট কে প্রদান করা হবে এবং বাকি অর্থ কন্ট্রাকটর কে দিয়ে দিবে।ক্লাইন্ট যদি Dispute করে ওডেস্ক টিম কোন সিন্ধান্ত নেবার আগে কেন্সেল করে দেয় তবে ওডেস্ক টিম আর কোন পদক্ষেপ নিবেনা এই বিষয়ে এবং সে আর এটা কে রি-ওপেন করতে পারবে না। সাধারনত Dispute সমন্ধিয় কোন সিন্ধান্তে আসতে ৪ দিন বা তার বেশী সময় নেয় ওডেস্ক টীম।

[সূত্রঃ https://kb.odesk.com/]

 

 

কি করে বাচঁবেন Dispute থেকে?

আসলে ব্যেপার গুলি খুব সহজ বাট আমরা মেনে চলি না।ব্যেপার গুলি জাস্ট আমাদের কমনসেন্স যা মেনে চললেই হল।এই গুলি নিয়ে কি লিখব বুজতে পারছি না যাক লিখা শুরু করেছি কিছু লিখিঃ-

 

১) ফেসবুকঃ জুকারু মামু কি জিনিস দিয়া গেল আমাগ।আম্মা একদিন ভাত দিয়েন না খালি একটু ফেসবুক চালাবার দেন এই আবস্তা আমাদের।হাউয়ারলি কাজের সময় ফেসবুক না চালাইয়লে কলিজা পুরে।আমি তাই বলে বলি নাই না চলানোর কথা(আমি নিজে চালাই তো)ফেসবুক চালালেও একটা লিমিট রখা দরকার।হউরলি জবের সময় যদি কোন কারনে কোন স্কিনশট ফেসবুকে পরে যায় তবে তাকে যথা সম্ভব দ্রুত ডিলিট করেন কারন আপনার ক্লাইন্ট আপনার ওয়ারক ডাইরী চেক করতে পারে যে কোন সময়।ডিলিট করার জন্য My Jobs>Work Diary  তারপর ডিলিট।

 

২) সাধারনত কাজ কারার সময় যে প্রোগ্রামের কাজ করছেন তারই যেন স্ক্রিনশট নেয় সেই ব্যেপারে একটু নজর রাখেন।একটু এ্ক্সপ্লেইন করি ধরেন আপনি ফটোশপের কাজ করছেন বা কুডিং করছেন দেখা গেল এক ঘন্টার স্ক্রিনশট এর মাঝে ৫ টা স্ক্রিনশট ডেস্কটপ এর আর ১ টা নোট প্যাড বা ফটোশপের এতে ক্লাইন্টের মনে সন্ধেহ জাগতে পারে।ওডেস্ক স্ক্রিনশট সাধারনত ১০ মিনিট পর পর নিয়ে থাকে সেই নিয়ম টী ফলো করতে পারেন।

 

৩) সবচেয়ে ভাল হয় কাজের শেষে ফাইনাল ফাইল দেওয়ার আগে ওয়ারক ডায়েরি টা একটু রিভিও করে দেখেনিন এবং আনাকাঙ্খিত  স্ক্রিনশট গুলি ডিলিট করেন দিন।

 

আসলে লিখে আর আনেক লিখা যাবে, কথা হল মানুষের সবচেয়ে বড় কাঠগড়া হচ্চে তার বিবেক।কোন দিন কাওকে ঠকাতে চেস্টা করবেন না আল্লাহ তায়লাও আপনাকে ঠকাবে না।

 

Dispute হলে কি করবেন?

যদি কোন কারনে Dispute হয়ে যায় তা যদি ১-২ ঘন্টা হয় তবে তা মেনে নেওয়াটাই সবচেয়ে বেটার হবে কারন কিছু ডলার এর জন্য এত সব এর দরকার আছে কি।আমার ক্ষেত্রে আমি মেনে নিব কারন কাজের শেষে ফিডবেকেরা একটা ব্যেপার আছে।আর সবচেয়ে ভাল হচ্ছে ক্লাইন্ট এর সাথে ডিসকাস করে নেওয়াটা।আর একটা গুরুত্ব পূর্ন বিষয় হচ্চে কাজের সময় আবশ্যই সঠিক মেনু ব্যবহার করেন একটু আলসেলি হলেও কাজ টা করা উচিত।

আনেক জারি জাইরা দিসি,মনযোগ দিয়ে পড়ার জন্য থেঙ্কু ।

সময় পেলে আমার ব্লগটি ঘুর আসতে পারেন ।

একটি উত্তর ত্যাগ