চলুন জানি বিটকয়েন কি? কিভাবে আয় করবো ।

0
417

বিটকয়েন হল লেনদেন হওয়ার সাংকেতিক মুদ্রা। ২০০৮ সালে সাতোশি নাকামোতো এই মুদ্রাব্যবস্থার প্রচলন করেন। তিনি এই মুদ্রাব্যবস্থাকে পিয়ার-টু-পিয়ার লেনদেন নামে অভিহিত করেন। বিটকয়েনের লেনদেনটি বিটকয়েন মাইনার নামে একটি সার্ভার কর্তৃক সুরক্ষিত থাকে। পিয়ার-টু-পিয়ার যোগাযোগ ব্যাবস্থায় যুক্ত থাকা একাধিক কম্পিউটার বা স্মার্টফোনের মধ্যে বিটকয়েন লেনদেন হলে এর কেন্দ্রীয় সার্ভার ব্যবহারকারীর লেজার হালনাগাদ করে দেয়। একটি লেনদেন সম্পন্ন হওয়ার সাথে সাথে নতুন বিটকয়েন উৎপন্ন হয়। ২১৪০ সাল পর্যন্ত নতুন সৃষ্ট বিটকয়েনগুলো প্রত্যেক চার বছর পরপর অর্ধেকে নেমে আসবে। ২১৪০ সালের পর ২১ মিলিয়ন বিটকয়েন তৈরী হয়ে গেলে আর কোন নতুন বিটকয়েন তৈরী করা হবে না।

খুব কঠিন মনে হচ্ছে? কোন সমস্যা নাই। এক বিটকয়েন সমান কত ডলার তা জানলেই পাগল হয়ে যাবেন বিটকয়েন আয় করার জন্য।

১ বিটকয়েন সমান ৬৪৭.৭ ডলার । কি বিশ্বাস হচ্ছে না? এই লিঙ্ক থেকে দেখে নিন আজকের আপডেটেড রেট। লিঙ্ক

তাহলে আর দেরি কেন? চলুন শুরু করি বিটকয়েন আয় করা।

বিটকয়েন কামানোর জন্য আপনার একটি ওয়ালেট দরকার। আরে মিয়া আসল ওয়ালেট না, ভার্চুয়াল ওয়ালেট।

প্রথমে এই লিঙ্কে যান। লিঙ্ক

তারপর আপনার ইমেইল আর পাসওয়ার্ড লিখে সাইন আপ করেন। তারপর ইমেইল কনফার্ম করেন। তারপর আপনি একটি বিটকয়েন অ্যাড্রেস পাবেন।এর জন্য বিটকয়েন অ্যাড্রেস ট্যাবে গিয়ে Create New Address এ ক্লিক করলেই পেয়ে যাবেন। ওইটি দিয়ে বিটকয়েন লেনদেন করতে পারবেন। ওয়ালেট তৈরি করা তো হল। এবার আর্ন শুরু করি।

১। প্রথম পদ্দতি…………

প্রথমে এই লিঙ্কে যান= বিটকয়েন । তারপর আপনার বিটকয়েন অ্যাড্রেস, ইমেইল, পাসওয়ার্ড লিখে সাইন আপ করুন। ইমেইল ভেরিফাই করার দরকার নেই কিন্তু ইমেইলটি সক্রিয় থাকা আবশ্যক কারন আপনার পাসওয়ার্ড বা পেমেন্ট সম্পর্কিত সব ধরনের তথ্যই আপনার মেইল এ যাবে।সঠিকভাবে সাইনআপ করলে আপনি দেখবেন টাইম কাউন্টডাউন হওয়া শুরু হয়েছে। সাইন আপ হয়ে গেলে আপনি ফ্রি প্লে বিকল্পটি পাবেন সেখানে সুধু ক্যাপচাটি প্রবেশ করিয়ে রোল এ ক্লিক করুন।ক্যাপচা সঠিক হলে ডান পাশে উপরে দেখবেন আপনার ব্যালেন্স যোগ হয়েছে।আর আপনার ০.০০০০৫৪৬০ বিটকয়েন আয় হলে সেটা সয়ংক্রিয়ভাবে আপনার বিটকয়েন ওয়ালেট এ চলে যাবে যদি আপনার Auto-Withdraw ENABLED (DETAILS) রেডিও বোতামে চেক করা থাকে।প্রত্যেক রবিবারে এরা পেমেন্ট দিয়ে থাকে।আর প্রত্যেকটি সফল লেনদেন এর সাথে সাথে আপনাকে ইমেইলে জানিয়ে দেয়।

২। দ্বিতীয় পদ্দতি…………

এই লিঙ্কে যান। Bitcoin “Create My Free Wallet” এ ক্লিক করুন। এটা আপনার টাকা উত্তলনের অ্যাকাউন্ট।
ইমেইল এবং পাসওয়ার্ড দিয়ে “Continue” এ ক্লিক করুন।
এরপর “Wallet Recovery Mnemonic” শিরনাম এর একটা পপআপ আসবে। এটার ফুল টেক্সট টা কপি করে সেভ করে রাকবেন। কারন এটা আপনার অ্যাকাউন্ট রিকভার করতে লাগবে,যদি আপনি আপনার অ্যাকাউন্ট তথ্য হারিয়ে ফেলেন। ক্লিক “Continue”

“Continue” করার পরবর্তি পেজে “Identifier -84ac4892-8f3c-673-92e0-ca7375fd545e” আপনি এমন একটা কোড পাবেন। এটাও সেভ করে রাকবেন,এটা লগিন করতে লাগবে। এখন আপনি পাসওয়ার্ড দিয়ে লগিন করলে আপনার কয়েন এর পরিমান জানতে পারবেন,কয়েন সেন্ড করতে পারবেন।

তারপর এই লিঙ্কে যান= লিঙ্ক তারপর আপনার বিটকয়েন অ্যাড্রেস লিখে GO তে দিলেই হবে।

ব্যাস আরকি কয়েন আর্ন করতে থাকুন। ওহ ভালো কথা আইখানে বর্নিত কিছু সাইট থেকে রেফারেল দিয়েও আয় করতে পারবেন।

আর Withdraw নিয়ে চিন্তা করবেন না। এটার জন্নে আপনার দরকার একটা okpay, একটা egopay আর একটা payza অ্যাকাউন্ট। আপনি আপনার BTC প্রথমে okpay তে ডিপোজিট করবেন, তারপর okpay থেকে egopay তে withdraw করবেন পুরা ফ্রি তে । তারপর egopay থেকে payza তে withdraw করবেন, এটার জন্নে মাত্র ২% চার্জ কাটবে। যাইহোক পরে নতুন করে Withdrawal এর জন্য টিউন করবো।

 

আর একটি কথা এই সাইটগুলা ১০০% পেমেন্ট করে। একটু বিশ্বাস করে ট্রাই করেন। ১ সপ্তাহ দেখুন যদি পেমেন্ট না পান আমাকে কল করে গালি দিয়েন অথবা আমি ঢাকা বাড্ডা থাকি, বললে এসে মাইরা ও যাইয়েন।

 

আমি ফেইসবুকেঃ- http://facebook.com/untouchable.comet.7

একটি উত্তর ত্যাগ